Skip to content

কিছু অপ্রিয় সত্য কথা; জননেত্রীর লন্ডন আগমনে

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি



এই তিনদিন জননেত্রী শেখ হাসিনার লন্ডন আগমনে খুব কর্মব্যস্ত সময় কাটালাম। কালকে থেকে আবার নিয়মিত লাইফ। নেত্রীর আগমন উপলক্ষ্যে কমপক্ষে চারটি প্রস্তুতি সভা হয়েছে আমার অফিসগুলোতে। আমি পুরো অফিস ছেড়ে দিয়েছিলাম। বাংলাদেশ থেকে ব্যানার ডিজাইন করিয়ে এনেছি। কমপক্ষে সাতবার সাইজ চেঞ্জ করতে হয়েছে। এক নেতা বলে এই সাইজ, আরেক নেতা বলে ঐ সাইজ। ফাইনালী ২৫/১৫ ফুট ব্যনার প্রিন্ট করার জন্য এক প্রিন্টারকে রাজি করালাম। ৩ ফুট প্রিন্ট হওয়ার সাথেই এক নেতা ফোন করে বললেন , ২০/৫ ফুট প্রিন্ট করো। প্রিন্টারকে ডেমারেজ দিয়ে আবার নতুন প্রিন্ট করালাম নতুন সাইজে।

যখন ব্যানার পৌছাইলাম এক নেতা বললেন কতো বাই কতো প্রিন্ট করছো? কই থাইক্কা করছো?

আমি কইলাম, আপনার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২০/৫ এবং অমুক প্রিন্টার থেকে। উনি রেগে গিয়ে বললেন, তমুক প্রিন্টার থেকে করলে না কেনো? তারা তো যে কোন সাইজ করতে পারে!

২। এর মধ্যে এক ছোটভাই ফেইসবুকে ইনবক্সে কইলো, ''দাদা, নেত্রীর সাথে ছবি আপলোড করেন। সবাই তো করতেছে!''

আমি কি কমু ওরে? আসল কাহিনি হলো আমি এইবার নেত্রীর চেহারা দেখারই সুযোগ পাইনাই! ছবি দিমু কেমনে?

৩। ছোটভাই সুমন ফোন দিয়ে চিল্লাইতেছে। দাদা, যে অজন্তা নেত্রীকে সারাক্ষন হাসিনা হাসিনা নাম ধরে ডাকে, আওয়ামী লীগ দেখলেই যার পিত্তি জ্বলতে দেখছি সে কিভাবে নেত্রীর সামনে হাফপ্যান্ট ফিন্দে চেয়ারে বসার সুযোগ পায়?



আমি কইলাম, ভাইরে! গাফফার সাব এবং মোজাম্মেল আলী সাহেব যখন অজন্তারে এসকর্ট করে নেত্রীর রুমে নিয়ে যায় ওরে আটকানোর সাধ্য কার?

৪। '' দাদা, আমরা সারাদিন মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের কথা বলি আমাদের নিউজে। অথচ দাওয়াত পায় চৌধুরী মইনুদ্দিনের আত্মীয় । দাওয়াত ভাইলো তারেক চৌধুরী যে ইফতারে যাওয়ার দুই ঘন্টা আগে ও নেত্রীর নামে ছাগু প্রোপাগান্ডা করতেছিলো।'' এক ছোট ভাই ফোনে চিল্লাইতেছিলো আমার সাথে।



আমি ওরে কি বলে সান্তনা দিমু?

৫। ফাইনালী এগুলো হইলো আজাইরা আলাপ। আসল কথা হলো সফল রাষ্ট্রনায়ক জননেত্রী শেখ হাসিনার সফর দারুনভাবে সফল হয়েছে। এই কথা যখন ভাবি, উপরের আজাইরা প্যাচাল ভুলে যাই। স্লোগান তুলতে ইচ্ছে করেঃ

জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু জয় শেখ হাসিনা।

জয়তু Bangladesh Awami League.


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

" আসল কথা হলো সফল রাষ্ট্রনায়ক জননেত্রী শেখ হাসিনার সফর দারুনভাবে সফল হয়েছে। "

বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী কি আবার জয়ী হতে চায়, দলের সভাপতি হতে চায়?

__________________________
'৭১ সালের মানুষদের স্বপ্ন, এখনো জীবিত!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনাদের মাঝে উনি ভালই থাকতেন, উনাকে ইংল্যান্ডে রেখে দিলে ভালো হতো; ইংরাজদের বুদ্ধি দিতো।

__________________________
'৭১ সালের মানুষদের স্বপ্ন, এখনো জীবিত!

glqxz9283 sfy39587p07