Skip to content

বেহেস্তের টিকেট

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

::::::::: বেহেস্তের টিকেট :::::::::::
::::::: পাগল রোমান দাদা :::::::::

মাথায় দিয়া একখান টুপি
মুখে লইয়া দাড়ি
বেহেস্তের টিকেট বেচে গো
গিয়া বাড়ী বাড়ী।

চার টা নহর পাইবা তুমি
সেই বেহেস্তে গিয়া
শুইয়া শুইয়া আঙ্গুর খাইবা
সত্তোর টা হুর নিয়া।

সাত টি দরজা বন্ধ কইরা
আট টি খুলে যাবে
দশ টি গুনাহ মাফ করিয়া
দশ টি নেকি পাবে।

সত্তোর হুরের লোভে মানুষ
যায় রে পাগল হইয়া
গাট্টি লইয়া বেহেস্তে যায়
বউ বাচ্চা ফালাইয়া।

চিল্লায় চিল্লায় ঘুইরা বেড়ায়
হুরের নেশায় পড়ে
নকল হুরের পিছে দৌড়ায়
আসল থুইয়া ঘরে।

হালাল হারাম না বাছিয়া
ব্যাস্ত নামাজ লইয়া
হুরের রুপে মগ্ন থাকে
সেই নামাজে দাড়াইয়া।

একবারো দেখিতে তারা
চায় নারে আল্লাহ রে
বেহেস্তের লোভে পড়িয়া
নামাজ রোযা করে।

নিজের ঘরে নিজের গ্রামে
বেনামাজী ভরা
তাদের থুইয়া অন্য পাড়ায়
জারি করে শরা।

তিন বেলাতেই পেট ভরে খায়
মসজিদে বসিয়া
প্রতিবেশী খাইল কিনা
খোজ লয়না আসিয়া।

এই সমাজে কত বৃদ্ধ
কান্দে রুগী হইয়া
একদিনও দেখিতে যায়না
হাতে ঔষধ লইয়া।

তবু তারা নবীর উম্মত
দাবী করে ভাই
পাগলে কয় এই উম্মতের
লজ্জা শরম নাই।

একটা কথা জানতে মন চায়
ঐ উম্মতের কাছে
আমার নবী কবে গাট্টি লইয়া
ঘুরছে দেশে দেশে?

আরেক খানি উত্তর দিবেন
আছে যাদের জানা
আমার নবী কবে পেট ভরিয়া
খাইত তিনবার খানা?

আরেকটা বার জিজ্ঞাসিলাম
জানার ইচ্ছা নিয়া
আমার নবী কবে দাওয়াত দিত
মুসলমান কে গিয়া?

এই পাগলকে মাফ করিবেন
অ মুসলমান ভাই
নবীর কোন কাজের সাথে
তাদের তো মিল নাই।

তবু তারা বেহেস্ত খোজে
লজ্জা শরম ছাড়ি
কেউ আমারে মাইরালা ভাই
মাথায় দিয়া বারী।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কেন রে তুই মরতে চাইলি
বলনা আমারেে
আল্লার নামে সিদ কাটে
অভুক্ত এক চোরে।

আল্লার নামে কোন ফাজলমি
করিস নারে ভাই
সত্যি এটাই মরতে হবেই
বাচার উপায় নাই

অদেখা সেই ভূবন গুলো
আছে কিবা নাই
সেই বিষয়ে সত্যি কিন্তু
জানোনা তুই ভাই।

না থাকলে বিষয় না
পার পেয়ে তুই যাবি
কিন্তু যদি থাকে সে পথ
তখন দুইকুলই হারাবি।

সম্মান তুই নাইবা করো
ব্যাঙ্গ করো কেনো
আদি জন্মের ইতিহাস
ভালো করে জানো।

================= দুঃস্বপ্নও কখনো স্বপ্ন হয়ে যায়
বাস্তবতার হাতে গড়ে উঠে জীবনের সৌখিন বিন্যস ========

glqxz9283 sfy39587p07