Skip to content

বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষে ধর্ম।গুরুজী।।হারানো ধন ফেরৎ পেতে করণীয়।পর্ব=২(১৮ প্লাস নারীদের জন্য)

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সৃষ্টির সকলেই চাই সে সবার থেকে সু-শ্রী হোউক।কিন্তু সৃষ্টি সুত্রে আমরা কেহ সুন্দর চেহারা আবার কেহ অসুন্দর চেহারা নিয়ে জন্মেছি।তাই অ-সুন্দর চেহারা প্রাপ্তির জন্য নিজেকে নিজের কাছেই লজ্জিত হতে হয়। তাই সকলেই রুপকে সুন্দর করতে ও রুপ ধরে রাখতে করে রুপ চর্চা।রুপ চর্চার ক্ষেত্রে ছেলেদের অপেক্ষা মেয়েরা কয়েক ধাপ এগিয়ে আছে । তাই আজ আমি মেয়েদের শরির ও রুপ কিভাবে ধরে রাখতে পারেন, সে বিষয়ে আলোচনা করবো।

জন্ম সুত্রে আপনি যে শারিরিক গঠন পেয়েছেন, এই শরিরটাকে ও চেহারাটাকে বর্তমান অপেক্ষা সুন্দর করতে ও মৃত্যুর আগের দিন পর্যন্ত শরির ও চেহারা অটুট রাখতে হলে, আপনাকে যাহা করতে হবে তাহা হলো -

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম পাঠ করা।একমাত্র এই বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম পাঠই পারে, আপনার শরির ও চেহারাকে মৃত্যুর আগের দিন পর্যন্ত অটুট ভাবে ধরে রাখতে।তাই আসুন, বিসমিল্লাহ কি ও তা কি ভাবে পাঠ করতে হবে, তাহা জেনে নিই।

আপনার শরির বা চেহারা যেমনই হোউক না কেন।তাতে যদি প্রয়োজন মত মাংস থাকে, এবং চক চক করে, তা হলে কালো হলেও আপনাকে দেখতে সুন্দর লাগবে।আর যদি শরিরে প্রয়োজন মত মাংস না থাকে, আপনি ফর্সা হলেও দেখতে অসুন্দর লাগবে।তাই চেহারা সুন্দর করতে হলে আগে শরিরে প্রয়োজন মত মাংসের দরকার।তাই আসুন বিসমিল্লাহর সাথে আগে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিই।

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।

যার বাংলা অর্থ,শুরু করিতেছি দাতা দয়ালু স্রষ্টার নামে।সকল কাজ শুরুর পূর্বে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম বলা মুসলমানদের রেওয়াজ।আজ আমি এলমে মারফতে বিসমিল্লাহ এর পরিচয় ব্যাক্ত করবো।আসুন, আমরা জেনে নিই বিসমিল্লাহ কি এবং ইহা আমাদের কি কাজে লাগে।

এই বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিমকে আবার ৭৮৬ ও বলা হয়।অর্থাৎ ৭৮৬ লিখলেই বুঝতে হবে উহা বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম।এটা বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম এর আঙ্কিক মান।কেন না বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম লিখতে মোট ১৯ টি আরবি অক্ষর লেগেছে।এই ১৯ টি অক্ষরের আঙ্কিক মান যোগ করলে হয় ৭৮৬।তাই অনেকেই লেখার শুরুতে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম না লিখে, লেখেন ৭৮৬।তো-

আসুন, এই বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম এর কোন অক্ষরের কত মান তা জেনে নিই।

১।বা-যার মান=২ ২।সীন-যার মান=৬০ ৩।মীম-যার মান=৪০ ৪।আলিফ-যার মান=১ ৫।লাম-যার মান=৩০ ৬।লাম-যার মান=৩০ ৭।ছোট হে-যার মান=৫ ৮।আলিফ-যার মান=১ ৯।লাম-যার মান=৩০ ১০।রা-যার মান=২০০ ১১।বড় হে-যার মান=৮ ১২।মীম-যার মান=৪০ ১৩।নুন-যার মান=৫০ ১৪।আলিফ-যার মান=১ ১৫।লাম-যার মান=৩০ ১৬।রা-যার মান=২০০ ১৭।বড় হে-যার মান=৮ ১৮।ইয়া-যার মান=১০ ১৯।মীম-যার মান ৪০

সম্মানিত পাঠক,

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম এর ১৯ টি অক্ষরের মধ্যে কিন্তু মূল অক্ষর আছে ১০ টি।আর এই ১০ টি অক্ষরই মোট ১৯ বার ব্যাবহার হয়েছে।যেমন-

১।আলিফ-ব্যাবহার হয়েছে=৩ বার ২।মীম-ব্যাবহার হয়েছে=৩ বার ৩।বড় হে-ব্যাবহার হয়েছে=২ বার ৪।রা-ব্যাবহার হয়েছে=২ বার ৫।লাম-ব্যাবহার হয়েছে=৪ বার ৬।নুন-ব্যাবহার হয়েছে=১বার ৭।ছোট হে-ব্যাবহার হয়েছে=১ বার ৮।বা-ব্যাবহার হয়েছে=১ বার ৯।সীন-ব্যাবহার হয়েছে=১ বার ১০।ইয়া-ব্যাবহার হয়েছে= ১ বার।

এই দশ অক্ষর কে বিসমিল্লাহর প্রাণ অক্ষর বা বীজ অক্ষর বলা হয়।

এবার আসুন বিসমিল্লাহর স্বরুপ দর্শণ করি।

বিসমিল্লাহ একটি সাংকেতিক শব্দ।যাহা দিয়া শুক্রাণুকে বুঝানো হয়েছে।এই শুক্রাণুর মধ্যে ১০টি মহাস্বত্বা ১৯ ভাবে বিরাজিত।শুক্রাণুর এই ১০ অক্ষর দিয়ে মানুষের দেহের ১০টি মূল স্বত্বা সৃষ্টি হয়েছে।তাহা হলো-
১।কালেব ২।রুহু ৩।ছের ৪।খফি ৫।আখফা ৬।নফস ৭।আব ৮।আতশ ৯।খাক ১০।বাত।
তম্মধ্যে কালেব ও রুহু তিন তিন ভাবে অবস্থান করছে। ছের ও নফস দুই দুই ভাবে অবস্থান করছে । আখফা চার ভাবে অবস্থান করছে।ইহা ছাড়া খফি, আব , আতশ, খাক ও বাত এক এক ভাবে অবস্থান করছে।

বিসমিল্লাহ হলো সৃষ্টির বীজ বা প্রাণ।বিসমিল্লাহ ব্যাতীত কোন কিছুই সৃষ্টি হয়নি।আমাদের সকলেরই সৃষ্টি শুরু বিসমিল্লাহ দিয়েই হয়েছে।বিসমিল্লাহর মাধ্যমে পিতা,আমাকে মাতার গর্ভে দিলেন ৭+৭+৫=১৯ রুপে আমাতে জাহান্নাম করে।যার ১৯ জন দ্বার রক্ষিও দিয়ে দিলেন । মাতা তার জান্নাতি ধন ৭+৫=১২ দিয়ে তা পূরণ করে দিলেন।জন্মের পরে আমরা মায়ের দেওয়া জান্নাতি ধনই খরচ করছি।

এখন যে সকল মেয়েরা মৃত্যুর আগের দিন পর্যন্ত সুস্থ স্বাস্থ,রুপ ও যৌবণকে ধেরে রাখতে চান, তাদেরকে বিসমিল্লাহ পাঠ করতে হবে, অর্থাৎ শুক্র খেয়ে নিতে হবে।যেদিন মাসিক আসবে সে দিনকে ১ তারিখ ধরে হিসাব মত ১০,১১,১২,২১ ও ২৫ তারিখ মোট পাঁচ দিন, পুরুষের শুক্র খেয়ে নিতে হবে।ইহা ছাড়াও যে কোন সময় শুক্র খেতে পারেন।এমন কি দিনে যতজন থেকে যত খুশি নিতে পারেন।তবে খেয়াল রাখবেন যার কাছ থেকে বিসমিল্লাহ পাঠ করবেন, তার বয়স যেন ২০ থেকে ৩০ বৎসরের মধ্যে থাকে।

যদি আপনি ফর্সা হতে চান, তাহলে ফর্সা ছেলের কাছ থেকে বিসমিল্লাহ পাঠ করুন।৪০ বার বিসমিল্লাহ পাঠের পরেই আপনি আশা নুরুপ ফল পাবেন।তবে খেয়াল রাখবেন যে,যেন বিসমিল্লাহ পাঠের সময় তাতে বাতাস না লাগে।অর্থাৎ মুখের মধ্যেই যেন স্খলণ করা হয়।এটা সহবাস শেষে শুক্র স্খলণ সময়ে মুখে স্খলণ করতে হবে।অথবা যে কোন উপায়ে স্খলণ পর্যন্ত এনে, তা মুখের মধ্যেই পতন ঘটাতে হবে।এবং খেয়ে নিতে হবে।এতে আপনি যে সত্বা অর্জন করবেন, যমিনে উৎপাদিত কোন উপজীবিকাতেই তাহা পাবেন না।আর আপনার দেহ থেকে প্রতিনিয়ত ক্ষয় হওয়া ইমান ধনকে পূরণ করে দেবে।

এই মহাস্বত্বা আপনার শরিরের ,কালেব রুহু ,ছের ,খফি, আখফা, নফস, আব, আতশ, খাক ও বাত কে পরিশুদ্ধ করে, আপনাকে শান্তির দ্বার প্রান্তে নিয়ে যাবে। তাতে আপনার শরির সুস্থ থাকবে,মৃত্যুর আগের দিন পর্যন্ত যৌবন অটুট থাকবে।ও চেহারা বর্তমান অপেক্ষা সুন্দর হবে।

মাদকাসক্তের কাছ থেকে এমন কি ধুমপায়ীর কাছ থেকেও,বিসমিল্লাহ পাঠ না করায় উত্তম।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি জানিনা বাউলদের সাথে এই কালাম এর কি সর্ম্পক থাকতে পারে। তবে একথা বলতে পারি যদি কোন মুসলমান সজ্ঞানে একাজ করে তাহলে সে আর মুসলমান থাকবেনা। আমি লেখক কে বলছি না। যারা মুসলমান হিসাবে মৃত্যু বরন করতে চান তাদের জন্য বলছি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সকাল>বিকাল-কে

তবে একথা বলতে পারি যদি কোন মুসলমান সজ্ঞানে একাজ করে তাহলে সে আর মুসলমান থাকবেনা।

আপনি আপনার জ্ঞান মত মন্তব্য পেশ করতেই পারেন।তবে আপনার কাছে আমার জিজ্ঞাসা-

মুসলমান শব্দের অর্থ কি?এবং মুসলমানের সঙগা কি?

দয়া করে উপস্থাপন করবেন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পোষ্টে পাঁচ তারা ।

জয় আমার ব্লগ !
জয় সেরু পাগলা!
জয় বাউল ধর্ম!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নাজিবুল্লাহ-কে

পোষ্টে পাঁচ তারা ।

জয় আমার ব্লগ !
জয় সেরু পাগলা!
জয় বাউল ধর্ম!


বাউল ধর্ম নয়।বলুন জয় ইসলাম ধর্মের ।

আমার আলোচিত বিষয়ে আকৃষ্ট হওয়া এবং শুভ কামনার জন্য, আপনাকে ধন্যবাদ।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সিরাজকে বলছি- আপনার নামের শেষে ইসলাম শব্দটি বাদ দিন| বুঝা গেল আপনি একজন খাঁটি অমুসলিম| আপনি সত্যি মুসলিম হলে পরামর্শটি আপনার মা-বোন-স্ত্রীকে দিবেন|


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বুঝা গেল আপনি একজন খাঁটি অমুসলিম|

আন্দাজে আক্রমণ না করে।দয়া করে নিজে জানার চেষ্টা করুন,ভুল ভেঙ্গে যাবে।

দয়া করে বলুন,মুসলিম শব্দের অর্থ কি,এবং মুসলমানের সংগা কি?

আপনি সত্যি মুসলিম হলে পরামর্শটি আপনার মা-বোন-স্ত্রীকে দিবেন|

আমার পোষ্টের কোথাও কি লেখা আছে,আমার মা বোন এই পরামর্শের বাইরে থাকবে।

অন্ধের মত বিশ্বাস না করে,একটু সত্য উদঘাটন করে, বিশ্বাস স্থাপন কইরেন।আখেরে মঙ্গল হবে।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কনফিউজ-কে

১৮ + কই ?


কি বলতে চেয়েছেন,আমি বুঝি নাই।দয়া করে বুঝিয়ে বলুন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

১৮ + কই ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Tired

________________________
বিজ্ঞান হলো প্রকৃত সত্য উদঘাটনের চলমান প্রক্রিয়া।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বৈজ্ঞানীক-কে

কি বুঝাতে চেয়েছেন,আমি বুঝি নাই।দয়া করে বুঝিয়ে বলুন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বিশ্বযৌনতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সিরাজ ধর্ম| জয় সিরাজ ধর্ম জয় !!!!!!!!!!!!!!!!!!!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

বিশ্বযৌনতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সিরাজ ধর্ম| জয় সিরাজ ধর্ম জয় !!!!!!!!!!!!!!!!!!!

জীবশান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য, যৌণতা অ-পরিহার্য্য।

সবে দেহতত্ব আলোচনা করছি,তাই।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গুরুজি, আপনি আমার ব্লগের এক ব্যাকুফ বিনুদনের আধার

------------
অকিঞ্চন
banglaydebu.blogspot.com


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অকিঞ্চনের বৃথা আস...-কে


গুরুজি, আপনি আমার ব্লগের এক ব্যাকুফ বিনুদনের আধার

যদি আপনি মনে করেন,তবে তাই।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি


সিরু ভাই আপনার চেহারা তো মাশাল্লাহ সুন্দর মুনে হয়-একটা ফটুক দেন আপনার।
Cool

_____________________

ক্ষুদ্র স্বার্থ ভুলে মুক্তির দাঁড় টান।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অনিমেষ রহমান-কে

সিরু ভাই আপনার চেহারা তো মাশাল্লাহ সুন্দর মুনে হয়-একটা ফটুক দেন আপনার।

ছবি না দিতে পারার জন্য, দুঃখিত।তবে আমার বাড়িতে বাৎসরীক অনুষ্ঠানে আইসেন।স্ব-শরিরেই দেখতে পাবেন।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হারানো ধন ফেরৎ পেতে করণীয়।পর্ব=২(!)

গুরুজী এখানে কি ও-কার হারিয়ে গেছে!!!

(১৮ প্লাস নারীদের জন্য)

গুরুজী এখনতো বাজারে পাওয়া যায়। নানা আকারের নানা বর্নের। ব্যাটারী চালিত।

===================================================================
যেখানে পাইবে ছাগু আর বাদাম

চলিবে নিশ্চিত উপর্যপরি গদাম...............


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কর্নফুলির মাঝি-কে

গুরুজী এখানে কি ও-কার হারিয়ে গেছে!!!

হারিয়েছে ইমান,হারায়েছে সৃষ্টি।

গুরুজী এখনতো বাজারে পাওয়া যায়। নানা আকারের নানা বর্নের। ব্যাটারী চালিত।

আপনি চালাইবেন।যেটা খুশি সেটা।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এক বার পড়লাম কিছুই বুঝলাম না,
দ্বিতীয় বার পড়ার ইচ্ছা হলোনা-----------
*
*
*
দয়া করে আপনিই বলুন,মুসলিম শব্দের অর্থ কি--এবং মুসলমানের সংগা কি???????


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মুনিরুল আলম-কে

দয়া করে আপনিই বলুন,মুসলিম শব্দের অর্থ কি--এবং মুসলমানের সংগা কি???????

যেহেতু না বুঝার কারণে দ্বিতীয় বার পড়তে ইচ্ছা করে নাই।তাই,আপনি যাহাকে ধর্ম বিষয়ে জাননেওয়ালা মনে করেন তার কছে জিজ্ঞাসা করুন এবং সে কি বলে আমাকে জানান।তার পরে বলা হবে আমি মুসলমান নাকি কে মুসলমান।

আর না হলে, আমার লেখা সব পোষ্ট গুলি একবার পড়ে আসুন।তারপরে আলোচনায় আসা যাবে।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এই লোক শারীরিক ও মানসিকভাবে অসুস্থ ।

_________ *I i I*_________
ঈশ্বরই জ্ঞান, জ্ঞানই আত্মা ।
মানুষ* মাত্রই জ্ঞানী
আমি মানুষ ,আমার ঔরসে জন্মায় দেবতার কারিগর।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সরকার পায়েল-চজ

এই লোক শারীরিক ও মানসিকভাবে অসুস্থ ।

কিভাবে বুঝলেন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শালার বালছাল !! তুই খাস নাকি ডেইলি !!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সায়েম চৌধুরী-কে

শালার বালছাল !! তুই খাস নাকি ডেইলি !!

চ্যাতেন কেনো? না জানলে জানার চেষ্টা করুন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শালার বালছাল !! তুই খাস নাকি ডেইলি !!


আপনিতো পোষ্টের মেসেজ বুঝতে ভুল করলেন। ও খাবে কেন ? পোষ্টতো দেয়া হয়েছে মেয়েদের জন্যে। ও ওরটা খাওয়ায় ওর মেয়ে শিষ্যদেরকে। তা সেরু বাবা এ পর্যন্ত কতজন মেয়েকে খাওয়ালেন ? আপনার বার্ষিক অনুষ্ঠানে কতজন পুরুষ মহিলা আসে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নাজিবুল্লাহ-কে

পোষ্টতো দেয়া হয়েছে মেয়েদের জন্যে।

এতদিনে যে আপনি আমার এই কথাটা বুঝতে পেরেছেন।সেজন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এইটাই হয়তো একদিন সিরাজ মতবাদে রূপ পরিগ্রহ করেবে, চলুক কোন এক সময় কামে লাগবার পারে...... Wink Wink Wink Wink

------------------
স্বাধু সেজনা, স্বাধু হও....


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মহী-কে

এইটাই হয়তো একদিন সিরাজ মতবাদে রূপ পরিগ্রহ করেবে, চলুক কোন এক সময় কামে লাগবার পারে......

আমি যাহা বলছি তাহা তাওরাত,যব্বুর,ইঞ্জিল ও কোরানের মধ্যে, সাংকেতিক ভাষায় সব কথা বলে গেছে।গুরু আর ভক্তের মধ্যে একাকার সম্পর্ক না হওয়া পর্যন্ত কোন গুরুই একথা কাউকে বলে নাই।আমাকেও না।

একমাত্র আমিই সাংকেতিক ভাষা ছেড়ে নিজস্ব ভাষায় মুখ খুললাম।

লালন শাহ ও এই কথায় বলেছে ।তবে সাংকেতিক ভাষায়।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গুরু সিরু ভাই ১৮+Fদের ঠিকানার দরকার হইলে যোগাযোগ করতে বলবেন।

----------------------------------
বাংলার মাটি থেকে দুর্নীতি উৎখাত করতে হবে,দুর্নীতি আমার বাংলার কৃষক করে না,দুর্নীতি আমার বাংলার মজদুর করে না।দুর্নীতি করে আমাদের শিক্ষিত সমাজ।যারা ওদের টাকা দিয়ে লেখা পড়া করেছে....বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শাহ জালাল মুন্সী-কে

গুরু সিরু ভাই ১৮+Fদের ঠিকানার দরকার হইলে যোগাযোগ করতে বলবেন।

শুধু এদের জন্যই নয়, সকলের যোগাযোগের জন্য একটা ব্যাবস্থা, প্রভু চাইলে ডিসেম্বরের মধ্যেই করে ফেলবো।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?

খুব সুন্দর ইসলামিক কথা বলেছেন।

ইসলামের দৃষ্টিতে বিয়ে করতে হবে,এটা কোরানের কথা।তাই বলে কি আপনি আপনার মা এবং বোন কে বিয়ে করবেন?অবশ্যয় না।এর জন্য আইন আছে।আপনি কর সাথে বিয়ে করতে পারবেন,কার সাথে বিয়ে করতে পারবেন না।

অতএব কথা বলার পূর্বে ভাইবেন,আপনি কি বলছে।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?

খুব সুন্দর ইসলামিক কথা বলেছেন।

ইসলামের দৃষ্টিতে বিয়ে করতে হবে,এটা কোরানের কথা।তাই বলে কি আপনি আপনার মা এবং বোন কে বিয়ে করবেন?অবশ্যয় না।এর জন্য আইন আছে।আপনি কর সাথে বিয়ে করতে পারবেন,কার সাথে বিয়ে করতে পারবেন না।

অতএব কথা বলার পূর্বে ভাইবেন,আপনি কি বলছে।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?

খুব সুন্দর ইসলামিক কথা বলেছেন।

ইসলামের দৃষ্টিতে বিয়ে করতে হবে,এটা কোরানের কথা।তাই বলে কি আপনি আপনার মা এবং বোন কে বিয়ে করবেন?অবশ্যয় না।এর জন্য আইন আছে।আপনি কর সাথে বিয়ে করতে পারবেন,কার সাথে বিয়ে করতে পারবেন না।

অতএব কথা বলার পূর্বে ভাইবেন,আপনি কি বলছে।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?

খুব সুন্দর ইসলামিক কথা বলেছেন।

ইসলামের দৃষ্টিতে বিয়ে করতে হবে,এটা কোরানের কথা।তাই বলে কি আপনি আপনার মা এবং বোন কে বিয়ে করবেন?অবশ্যয় না।এর জন্য আইন আছে।আপনি কর সাথে বিয়ে করতে পারবেন,কার সাথে বিয়ে করতে পারবেন না।

অতএব কথা বলার পূর্বে ভাইবেন,আপনি কি বলছে।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?

খুব সুন্দর ইসলামিক কথা বলেছেন।

ইসলামের দৃষ্টিতে বিয়ে করতে হবে,এটা কোরানের কথা।তাই বলে কি আপনি আপনার মা এবং বোন কে বিয়ে করবেন?অবশ্যয় না।এর জন্য আইন আছে।আপনি কর সাথে বিয়ে করতে পারবেন,কার সাথে বিয়ে করতে পারবেন না।

অতএব কথা বলার পূর্বে ভাইবেন,আপনি কি বলছে।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম-কে

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন? অথবা আপনার মা-বোন কতবার আপনার বীর্য খেয়ে হারানো ধন ফিরে পেয়েছে ?

খুব সুন্দর ইসলামিক কথা বলেছেন।

ইসলামের দৃষ্টিতে বিয়ে করতে হবে,এটা কোরানের কথা।তাই বলে কি আপনি আপনার মা এবং বোন কে বিয়ে করবেন?অবশ্যয় না।এর জন্য আইন আছে।আপনি কর সাথে বিয়ে করতে পারবেন,কার সাথে বিয়ে করতে পারবেন না।

অতএব কথা বলার পূর্বে ভাইবেন,আপনি কি বলছে।


সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জাহেদুল ইসলাম ভাই তো কোন বিয়ের ব্যাপারে প্রশ্ন করেন নি। প্রশ্ন করেছেন হারানো ইমান ফিরে পাবার ব্যাপারে। আপনার মা বোনদের হারানো ইমান ফিরে পাবার জন্য কি বীর্য খেতে হবে না ? আপনি বিয়ের প্রসঙ্গ টানলেন কেন সেরু বাবা ? আর উপরে প্রশ্ন করেছিলাম এ পর্যন্ত কয়জন নারীর হারানো ঈমান ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আপনি আপনার বীর্য তাদের খাওয়াইছেন ? আপনার বার্ষিক অনুষ্ঠানে কত জন নারী পুরুষ জমায়েত হয় ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছেরা (সিরাজ)ভাই আপনি কি কখনো আপনার মায়ের অথবা বোনের মাসিক পান করেছেন?

এ কথার প্রেক্ষিতেই বিয়ের বিষয় উপস্থাপণ করেছি।

আর উপরে প্রশ্ন করেছিলাম এ পর্যন্ত কয়জন নারীর হারানো ঈমান ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আপনি আপনার বীর্য তাদের খাওয়াইছেন ?

ভিতরে প্রবেশ না করলে এটা জানতে পারবেন না।

আপনার বার্ষিক অনুষ্ঠানে কত জন নারী পুরুষ জমায়েত হয় ?

তা নিজে এসেই দেখে যাইয়েন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আর উপরে প্রশ্ন করেছিলাম এ পর্যন্ত কয়জন নারীর হারানো ঈমান ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আপনি আপনার বীর্য তাদের খাওয়াইছেন ?


ভিতরে প্রবেশ না করলে এটা জানতে পারবেন না।


ভিতরে প্রবেশের পূর্ব যোগ্যতা হিসেবে আমাকে কয়জনকে ঈমান (বীর্য) দান করতে হবে বা কয়জনের বীর্য খেতে হবে ? নাকি এ বিধান শুধু মহিলাদের জন্যেই।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নাজিবুল্লাহ-কে

ভিতরে প্রবেশের পূর্ব যোগ্যতা হিসেবে আমাকে কয়জনকে ঈমান (বীর্য) দান করতে হবে বা কয়জনের বীর্য খেতে হবে ? নাকি এ বিধান শুধু মহিলাদের জন্যেই।



স্বামী স্ত্রী উভয়কেই আমার বাক্যই একমাত্র সত্য জ্ঞানে পালনের মানসিকতা নিয়ে অঙ্গিকারাবদ্ধ হতে হবে এবং।এবং কর্মের মাধমে তা প্রমান করতে হবে।তবেই ভিতরে প্রবেশ করতে পারবেন।নচেৎ নয়।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

স্বামী স্ত্রী উভয়কেই আমার বাক্যই একমাত্র সত্য জ্ঞানে পালনের মানসিকতা নিয়ে অঙ্গিকারাবদ্ধ হতে হবে এবং।এবং কর্মের মাধমে তা প্রমান করতে হবে।তবেই ভিতরে প্রবেশ করতে পারবেন।নচেৎ নয়।


স্ত্রী ছাড়া আসলে কি ঢুকতে পারব না ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নাজিবুল্লাহ-কে

স্ত্রী ছাড়া আসলে কি ঢুকতে পারব না ?

স্ত্রী ছাড়া আসলে আমার বাক্য মত স্ত্রী গ্রহন করবেন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সবসময় কি যারা স্ত্রী ছাড়া আসে তাদের জন্যে স্ত্রী রেডী থাকে ? আমার যদি স্ত্রী পছন্দ না হয় ? আপনি যেই স্ত্রীর ব্যবস্থা করে দিবেন আমাকে কি তার বীর্য খেতে হবে ? আর আমার বীর্য কি সে খাবে ? দুই জনেরটা একে অপরে খাওয়া কি বধ্যতামূলক নাকি কেহ একজন খেলেই হবে? একবার কেউ এই ঈমান তথা বীর্য পান করার পরে তাকে কতদিন আপনার দরগায় যেতে হবে ? কতদিন এমন বীর্য পান করাটা বাধ্যতামূলক ?আর স্ত্রী নিয়ে আসলে কি আমরা একে অপরেরটা খাব নাকি সেক্ষেত্রে আমাকে আরেক জনের স্বামী হতে হবে আর আমার স্ত্রী আরেকজনের স্ত্রী হিসেবে ইমান ভক্ষণ করবে ?

( Puzzled Puzzled Puzzled ভাই, কেহ আমার মন্তব্যে উকি মাইরেন না। আমি একটু সেরু বাবার থেইক্যা মারেফাত শিখতাছি)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সবসময় কি যারা স্ত্রী ছাড়া আসে তাদের জন্যে স্ত্রী রেডী থাকে ?

না!কম পক্ষে ১ বছর পরীক্ষার মধ্যেই থাকবেন।আসার পরে তো বারান্দাতেই থাকবেন ৬ মাস।পরীক্ষার নিরীক্ষার পরে বিয়ের ব্যাবস্থা।তার পরে না ভিতরে প্রবেশ।

আমার যদি স্ত্রী পছন্দ না হয় ?

পছন্দ মত বিয়ে করে স্ত্রী সহ আসবেন।

আপনি যেই স্ত্রীর ব্যবস্থা করে দিবেন আমাকে কি তার বীর্য খেতে হবে ? আর আমার বীর্য কি সে খাবে ?

আপনাকে কোরান জানানো হবে।কোরানে যাহা আছে তাহাই করতে হবে।

আর স্ত্রী নিয়ে আসলে কি আমরা একে অপরেরটা খাব নাকি সেক্ষেত্রে আমাকে আরেক জনের স্বামী হতে হবে আর আমার স্ত্রী আরেকজনের স্ত্রী হিসেবে ইমান ভক্ষণ করবে ?

এখানে সবাইকেই স্ত্রী সহ আসতে হবে।তবে এখান কার সমস্ত সম্পদ সরকারের। সরকার যাহা বলবে তাহাই মান্য করতে হবে।বিবাহের পরে তার দেখা শোনার দায়িত্ব আপনার কিন্তু আদেশ পালন করবে আমার।এমন কি আপনি সহ।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Laughing out loud , আইচ্ছা তাইলে এই কাহিনী! তা বাবা আপনার শিষ্যের সংখ্যাটা আমরা জানতে পারি কি ? কতজন স্বামী এবং কতজন স্ত্রী শিষ্য রয়েছে আপনার। আর দরগার ঠিকানাটাও দিয়া দিয়েন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নাজিবুল্লাহ-কে

আইচ্ছা তাইলে এই কাহিনী! তা বাবা আপনার শিষ্যের সংখ্যাটা আমরা জানতে পারি কি ? কতজন স্বামী এবং কতজন স্ত্রী শিষ্য রয়েছে আপনার। আর দরগার ঠিকানাটাও দিয়া দিয়েন।

সময় হলেই সব জানতে পারবেন।অপেক্ষা করুন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সেরু পাগলা' ,এই সব ফালতু আলোচনা বাদ দেন।তার চেয়ে বরং কোরানের বাংলা অনুবাদ নিয়ে কাজ করুন । যদি ভালো আরবি ভাষা পেরে থাকেন।আপনার এই সমস্ত কথাবার্তা মোটেও গ্রহণ যোগ্য নয়, এবং এর বৈজ্ঞানিক কোনো ভিক্তি নেই।.

শুধু শুধু নিজেকে হাস্যকর করে তুলছেন।
আর মন -মত -মতামত -মতবাদ মানুষ মাত্র্ই থাকবে।এবং মানুষ তা প্রচার প্রসারের জন্য নিজেকে নিয়োগ্ও করে এবং করবে। কিন্ত্ত সেই মত -পদ- মতবাদটা সামান্যতঃ যুক্তিযুক্ত হতে হবে। নাহলে আপনার সব প্রকাশ্ই আহাম্মকের প্রলাপে রুপ নিবে।
.
শরির বানানটা কী ঠিক আছে? (শরীর)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আহমেদ সায়েম-কে

আর মন -মত -মতামত -মতবাদ মানুষ মাত্র্ই থাকবে।এবং মানুষ তা প্রচার প্রসারের জন্য নিজেকে নিয়োগ্ও করে এবং করবে। কিন্ত্ত সেই মত -পদ- মতবাদটা সামান্যতঃ যুক্তিযুক্ত হতে হবে। নাহলে আপনার সব প্রকাশ্ই আহাম্মকের প্রলাপে রুপ নিবে।

আপনার কাছে হাস্যকর মনে হলেও।আমি সত্য উপস্থাপন করছি।আগামীতে অনেকেই এই ক্রীয়ার মাধ্যমে উপকৃত হবে।বিজ্ঞান ও একদিন আমার কথাকে সত্য বলে স্বীকার করবে।হয়তো সেদিন আমি আপনি থাকবো না।।

তার চেয়ে বরং কোরানের বাংলা অনুবাদ নিয়ে কাজ করুন ।

কোরানের অনুবাদের কাজ চলছে।অচিরেই আপনারা বাজারে আমার অনুবাদকৃত কোরান পাইবেন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সিরাজ ভাই আপনি কি লিখেন বুঝতে কষ্ট হয়।আপনার দেহতত্ব যদি সহজ ভাষায় প্রকাশ করতে পারেন করেন। এমন অসম্পূর্ন ভাবে নয়।জানার মাঝে আপনার ও ভুল থাকতে পারে।আর সঠিক হলে প্রমান সহ উপস্থাপন করবেন।

''''।যেদিন মাসিক আসবে সে দিনকে ১ তারিখ ধরে হিসাব মত ১০,১১,১২,২১ ও ২৫ তারিখ মোট পাঁচ দিন, পুরুষের শুক্র খেয়ে নিতে হবে।ইহা ছাড়াও যে কোন সময় শুক্র খেতে পারেন।এমন কি দিনে যতজন থেকে যত খুশি নিতে পারেন।তবে খেয়াল রাখবেন যার কাছ থেকে বিসমিল্লাহ পাঠ করবেন, তার বয়স যেন ২০ থেকে ৩০ বৎসরের মধ্যে থাকে।

যদি আপনি ফর্সা হতে চান, তাহলে ফর্সা ছেলের কাছ থেকে বিসমিল্লাহ পাঠ করুন।৪০ বার বিসমিল্লাহ পাঠের পরেই আপনি আশা নুরুপ ফল পাবেন।তবে খেয়াল রাখবেন যে,যেন বিসমিল্লাহ পাঠের সময় তাতে বাতাস না লাগে।অর্থাৎ মুখের মধ্যেই যেন স্খলণ করা হয়।এটা সহবাস শেষে শুক্র স্খলণ সময়ে মুখে স্খলণ করতে হবে।অথবা যে কোন উপায়ে স্খলণ পর্যন্ত এনে, তা মুখের মধ্যেই পতন ঘটাতে হবে।এবং খেয়ে নিতে হবে''''''''''

এসবের মানে কি?? Shock

*****************************************************************
"মানুষ মানুষের জন্য"


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অচপল-কে

এসবের মানে কি??

আমি সঠিক তথ্যই উপস্থাপন করে চলেছি ।তথ্য সুত্রও উপস্থাপন করেছি। এখন আপনি কিসের মানে জানতে চান বলুন।আমার জানা মতে, আপনাকে জানানোর চেষ্টা করবো।

পৃথিবীতে এই প্রথম, ধর্ম নিয়ে একেবারে খোলামেলা আলোচনা হচ্ছে,তাই সমস্যা হচ্ছে।আগামীতে সব ঠিক হয়ে যাবে।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনি এক কাজ করেন আপনার মেয়ে আর আপনার বৌ-এর উপার এই পদ্দতি প্রোয়োগ করেন।ওনারা চীর জৌবনা হবে।

এই সব লোকের কারনে মাঝে মাঝে পত্রিকাতে খবর আসে "অসংক্ষ 'নারী মুরিদ' বেস্ঠিত সঘোসিত পীর গ্রেফতার"।

----ইসলাম/ মুসলিম ধর্মের ইবাদতের মাঝে অপবিত্র/খারাপের কোন স্থান নাই------
এর বিপরিত হলে সে ইসলাম নামদারি শয়তান। যেমন কোন কোন সময় শয়তান ও, মানুষকে ইবাদত করার জন্য প্ররোচনা দেয়।
হে ভাই ও বোনেরা আমার এদের কথায় কান দিবেন না। শয়তান সব সময়ই মানুষের শত্রু।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

রোবট-কে

আপনি এক কাজ করেন আপনার মেয়ে আর আপনার বৌ-এর উপার এই পদ্দতি প্রোয়োগ করেন।ওনারা চীর জৌবনা হবে।

মা বোন বলে কথা নয়।আমি সুত্র বলে যাচ্ছি।যার ভালো লাগে সে করবে, যার ভালো না লাগে সে করবে না।

"অসংক্ষ 'নারী মুরিদ' বেস্ঠিত সঘোসিত পীর গ্রেফতার"।

নারী মুরিদের জন্য গ্রেফতার হয় নি।গ্রেফতার এর পিছনে অন্য কোন কারণ থাকতে পারে।তাই দয়া করে রেফারেন্স দিন।

কাকে,কবে,কোথায় নারী মুরিদের জন্য গ্রেফতার করেছে।

শয়তান সব সময়ই মানুষের শত্রু।

কথা ঠিক আছে।তবে শয়তান আপনার মধ্যেই বর্তমান ।তাকে চিনে আপনার আদমকে সেজদা করিয়ে নিন।তবেই মুক্তি।নচেৎ নয়।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

''''পৃথিবীতে এই প্রথম, ধর্ম নিয়ে একেবারে খোলামেলা আলোচনা হচ্ছে,তাই সমস্যা হচ্ছে।আগামীতে সব ঠিক হয়ে যাবে।'''''

আপনি কোন ধর্মের কথা বলছেন?আচ্ছা ইসলাম ধর্মের কোথায় এসব বলা আছে একটু রেফারেন্স দিন।
কোরআন এবং হাদিসের ভিত্তিতে দিবেন ।নিজের মনগড়া নয়।

*****************************************************************
"মানুষ মানুষের জন্য"


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অচপল-চজ

কোরআন এবং হাদিসের ভিত্তিতে দিবেন ।নিজের মনগড়া নয়।

আমি সমস্ত প্রমান কোরান থেকেই দেবো।অন্য কোন ধর্ম গ্রন্থে আমি যাবো না।

১।আল্লাহ-এটা কোরানে ব্যাবহৃত শব্দ।যার অর্থ স্রষ্টা।অর্থাৎ যাহা দ্বারা আমি সৃষ্টি হয়েছি।এক কথায় আমি সৃষ্টিতে যে সকল উপাদান ব্যাবহার হয়েছে তাহা সবই আল্লাহ।

২।দ্বীন-এটা কোরানে ব্যাবহৃত শব্দ।যাহার অর্থ স্বভাব উৎপত্তিকারক স্বত্বা।অর্থাৎ যে স্বত্বা আমাতে স্বভাব উৎপত্তি করে তার নাম দ্বীন বা ধর্ম।এক কথায় আমি সৃষ্টির সকল উপাদানই এক একটি দ্বীন।

মানিউন আরবি শব্দ যার অর্থ বীর্য্য।

৩।ইমান-এটা কোরানে ব্যাবহৃত শব্দ।যার অর্থ বীর্য্য উৎপত্তিকারী স্বত্বা।এক কথায় স্বত্বা রুপান্তরিত হয়ে আমার দেহে বীর্য্য উৎপত্তি হয়,তার নাম ইমান।

এগুলি আপনি জানেন বা মানেন কি না?

এর পরে এর অপচয়,সঞ্চয় ও রক্ষা বিষয়ে কোরান আলোচনা করেছে।আমি সেই কথা গুলিই উপস্থাপন করছি মাত্র।

আপনি কি কোরান যে সত্য তাহা মানেন?

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জনাব........

আল্লাহ--অর্থাৎ যাহা দ্বারা আমি সৃষ্টি হয়েছি!
দ্বীন--------অর্থ স্বভাব উৎপত্তিকারক স্বত্বা!
ঈমান--অর্থ বীর্য্য উৎপত্তিকারী স্বত্বা!
এর পরে এর অপচয়,সঞ্চয় ও রক্ষা বিষয়ে কোরান আলোচনা করেছে!


ভাই আপনিতো জটিল অর্থ দাড় করিয়েছেন।শুনেন নিজে না জানলে জেনে নিন ।মন গড়া অর্থ করবেন না।ধর্ম ব্যবসা বা ধর্ম বিকৃত করা ছাড়ুন।

*****************************************************************
"মানুষ মানুষের জন্য"


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অচপল-কে

ভাই আপনিতো জটিল অর্থ দাড় করিয়েছেন।শুনেন নিজে না জানলে জেনে নিন ।মন গড়া অর্থ করবেন না।ধর্ম ব্যবসা বা ধর্ম বিকৃত করা ছাড়ুন।

তাহলে আপনি আমাকে জানান।

আল্লাহ , দ্বীন ও ইমান শব্দের অর্থ কি?

তার পরে আলোচনায় আসা যাবে।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনি বলেছেন...
১।আল্লাহ-এটা কোরানে ব্যাবহৃত শব্দ।যার অর্থ স্রষ্টা।অর্থাৎ যাহা দ্বারা আমি সৃষ্টি হয়েছি।এক কথায় আমি সৃষ্টিতে যে সকল উপাদান ব্যাবহার হয়েছে তাহা সবই আল্লাহ

আল্লাহ- আল্লাহ শব্দটি আরবী( আল অর্থ সুনির্দিষ্ট বা একমাত্র) এবং( ইলাহ অর্থ ঈশ্বর বা সৃষ্টিকর্তা)=একমাত্র ঈশ্বর বা সৃষ্টিকর্তা।(যিনি আমাকে সৃষ্টি করেছেন তিনি স্রষ্টা,যার দ্বারা আমি সৃষ্টি হয়েছি তাহা নহে )।

আপনি বলেছেন...
২।দ্বীন-এটা কোরানে ব্যাবহৃত শব্দ।যাহার অর্থ স্বভাব উৎপত্তিকারক স্বত্বা।অর্থাৎ যে স্বত্বা আমাতে স্বভাব উৎপত্তি করে তার নাম দ্বীন বা ধর্ম।এক কথায় আমি সৃষ্টির সকল উপাদানই এক একটি দ্বীন।

দ্বীন আরবী শব্দ-অর্থ ধর্ম বা জীবনবিধান।প্রত্যেক ধর্মের স্ব স্ব পরিপূর্ণ জীবনবিধান রয়েছে ,তাকে ধর্ম বলে।( আমি সৃষ্টির সকল উপাদানই এক একটি দ্বীন নয় )।

আপনি বলেছেন...
।ইমান-এটা কোরানে ব্যাবহৃত শব্দ।যার অর্থ বীর্য্য উৎপত্তিকারী স্বত্বা।এক কথায় স্বত্বা রুপান্তরিত হয়ে আমার দেহে বীর্য্য উৎপত্তি হয়,তার নাম ইমান।

ঈমান-অর্থ দৃঢ় বিশ্বাস।আপনি যে ধর্মের অনুসারি সেই ধর্মকে দৃঢ়ভাবে মনে প্রাণে বিশ্বাস করার নাম ঈমান।(বীর্য্য এর নাম ঈমান নয়)।

ভাই আপনি সব কিছুতে শুধু বির্য্যের গন্ধ পান কেন?

*****************************************************************
"মানুষ মানুষের জন্য"


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অচপল-কে

( ইলাহ অর্থ ঈশ্বর বা সৃষ্টিকর্তা)(যিনি আমাকে সৃষ্টি করেছেন তিনি স্রষ্টা,যার দ্বারা আমি সৃষ্টি হয়েছি তাহা নহে )।


শুনলে অবাক হবেন ,আজ পর্যন্ত কেহই আবিস্কার করতে পারে নাই।আমাদের সৃষ্টিকর্তা কে।তবে আবিস্কার করতে পেরেছে আমরা কি দ্বারা সৃষ্টি হয়েছি।তাই আমরা যাহা দ্বারা সৃষ্টি হয়েছি তাহাকেই স্রষ্টা বলে অভিহিত করেছে।আর স্রষ্টার আরবি শব্দ আল্লাহ।

আর ইলাহ অর্থ সৃষ্টি কর্তা নয়।খালিক অর্থ সৃষ্টি বা একই নির্বোধেরা সৃষ্টিকর্তা বলে,আল্লাহ অর্থ সৃষ্টিকর্তা নয়।স্রষ্টা

দ্বীন আরবী শব্দ-অর্থ ধর্ম বা জীবনবিধান।প্রত্যেক ধর্মের স্ব স্ব পরিপূর্ণ জীবনবিধান রয়েছে ,তাকে ধর্ম বলে।( আমি সৃষ্টির সকল উপাদানই এক একটি দ্বীন নয় )।

জীবণ বিধান আর ধর্ম এক নয়।ধর্ম শব্দের যদি বাংলা করা হয় তাহলে হয়।স্বভাব।অর্থাৎ বস্তুর নিজস্ব ক্রীয়ার ক্ষমতাকে স্বভাব বলে।আর জীবণ পরিচালনার আইন যাহতে লিপিবদ্ধ তার নাম জীবণ বিধান। মূলতঃ স্বভাব বা চরিত্র বা ধর্ম এর আরবি শব্দ আখলাক ।দ্বীন নয়।আরবি দ্বীন শব্দের বাংলা অর্থ, আখলাক বা স্বভাব বা চরিত্র বা ধর্ম উৎপত্তিকারী মহাস্বত্বা।

ঈমান-অর্থ দৃঢ় বিশ্বাস।আপনি যে ধর্মের অনুসারি সেই ধর্মকে দৃঢ়ভাবে মনে প্রাণে বিশ্বাস করার নাম ঈমান।(বীর্য্য এর নাম ঈমান নয়)।

আরবি আকাইদ শব্দের বাংলা অর্থ বিশ্বাস।আর বিশ্বাস স্থাপন প্রক্রীয়ার নাম একিন।আর দৃঢ় বিশ্বাসের আরবি শব্দ সাদিক।ইমান নয়।

ইমান হলো শুক্র উৎপত্তিকারী স্বত্বা্‌। এই ইমানের প্রতি আপনাকে বিশ্বাস স্থাপন করতে হবে।আর আকাইদ অর্থ বিশ্বাস।যে প্রক্রীয়ায় বিশ্বাস স্থাপন করবেন, তার নাম একিন।আর আপনাতে ইমানের প্রতি পূর্ণ বিশ্বাস স্থাপন হলে, আপনি সাদিক।

শিক্ষার শেষ নাই।জানার চেষ্টা করুন।

সত্য সহায়।গুরুজী


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নতুন ব্লগারদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য।

glqxz9283 sfy39587p07