Skip to content

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এইটা প্রশ্ন?


প্রত্যেকটা মানুষ চেহারা, আকার, আকৃতি, স্বভাবে ভিন্ন ভিন্ন। কিন্তু তাদের ভালোবাসাও কি ভিন্ন ভিন্ন?

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ঘুম পাড়ানি গান

ঘুম পাড়ানি গান গেয়ো না আর
তুমিতো অনেক আগেই ঘুমিয়েছো মা
অনন্ত ঘুম । আমি এখন ঘুমুতে চাই না
আমি জেগে থাকতে চাই অনন্তকাল ।

যতোদিন বেঁচে থাকবে পৃথিবী, চন্দ্র সূর্য গ্রহ তারা
যতোদিন বেঁচে থাকবে নদী,

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার ব্লগ বাড়ির এমন অবস্থা ক্যান???

আমার ব্লগ বাড়ির এমন অবস্থা ক্যান? অনেক দিন পর লগইন করলাম। সবই ফাকা ফাক লাগে।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

প্রতিরক্ষা চুক্তিতে চমক, যত গর্জে তত কি বর্ষে, হয়তো তারও বেশী

প্রতিরক্ষা চুক্তিতে চমক, যত গর্জে তত কি বর্ষে, হয়তো তারও বেশী
================================================
চমক শব্দটি বর্তমান সময়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে একটি বহুল ব্যবহৃত শব্দ, তাই সমগ্র বাংলাদেশ এখন

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হেঁটে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ ভ্রমনের এক বছর

হেঁটে হেঁটে তেঁতুলিয়া থেকে টেকনাফ জাহাঙ্গীর আলম শোভন

বাংলাদেশের কোনো প্রান্তে থাকা এক কিশোরের জন্য যা ছিলো অলীক কল্পনা মাত্র। তাকেই একদিন সত্যি করেছি। তা এভারেস্ট জয় করতে পারিনি। উত্তর মেরু

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শোক থেকে শক্তি: অদম্য পদযাত্রা

পায়ে হেঁটে শহীদ মিনার থেকে স্মৃতি সৌধ
জাহাঙ্গীর আলম শোভন

২০১৩ সাল থেকে অভিযাত্রী সংগঠনের কর্মীরা পায়ে হেঁটে শহীদমিনার থেকে স্মৃতিসৌধে যায় প্রতিটি ২৬ মার্চে। ২০১৪ সাল থেকে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ও অভিয

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ইউরোপের রাজনীতি ও ডঃ ফরহাদ আলী খান:- Light at the end of the tunnel

সুড়ঙ্গের শেষ প্রান্তে আশার আলো, Light at the end of the tunnel.গল্পের শুরুতেই বলে রাখা প্রয়োজন যে শিশুটি আমার অন্তরের গহীনে ভালোবাসা আর স্নেহ মমতায় মায়া আমার মনের আকাশে স্থান করে নিয়েছে তার নাম জনি ,

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

তুহিন মালিকরা পাকিস্তানী-বীজের বংশধর ও নষ্ট-ফসল



তুহিন মালিকরা পাকিস্তানী-বীজের

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বন্দী হলাম মায়ার জালে -ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চিশতী

[৬৪]
বন্দী হলাম মায়ার জালে
-ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চিশতী ।

বন্দী হলাম মায়ার জালে
ললনার ঐ ছলনায়,
চিনলে তাঁরে যেতাম নারে
কাম তটিনীর কিনারায়-।।

কাম তটিনীর উতাল তরঙ্গে
অনুরাগী বাদাম গেল ভেঙ্গে,

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আখ্যান একাত্তর: সুনামগঞ্জে আ.লীগ কর্মীদের হাত-পা বেধে খুচিয়ে হত্যার অশ্রুত গাঁথা

শামস শামীম::
আমার নিজ গ্রাম সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মোহনপুর। এ গ্রামের আলতই বিবি, ছেরাগ আলীদের একাত্তরের মর্ম্মন্তুদ স্বজন হারানোর গল্প কখনো শোনা হয়নি। বাড়ি আসা-যাওয়ার পথে করুণ মুখখানিতে করুণ হাসিও দেখি। সুযোগে কুশল বিনিময় করি। তাদের ভিতরে পোষে রাখা ভেতরের চিরন্তন দহনের গল্পটি অজানাই ছিল। কোন কাগজ বা ইতিহাসেও কখনো উঠে আসেনি সেই গল্প। আলতই বিবি একাত্তরে ভরা বর্ষার আষাঢ় মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে স্বামী ও এক দেবরকে হারিয়েছেন। চেরাগ আলী হারিয়েছেন তার জন্মদাতা পিতাকে। শরণার্থীদের নিরাপদে চলে যাওয়ায় সহযোগিতা করায় স্থানীয় রাজাকার ও স্বাধীনতা বিরোধীরা চারজনকে হাত পা বেঁধে হাওরের ফেলে দিয়ে ঝাটা দিয়ে তিনজনকে হত্যা করেছিল। একজন সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে গিয়েছিলেন, কিন্তু মৃত্যুর আগ পর্যন্ত অস্বাভাবিক আচরণের মাধ্যমেই দেড় দশক আগে মারা যান। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর সহায়তাপ্রাপ্ত গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সমির উদ্দিনের কল্যাণে সেই দহনের গল্পটি ভুক্তভোগীদের মুখ থেকে শোনে আসলাম।

Syndicate content
glqxz9283 sfy39587p07