Skip to content

অন্ধকারে ঢেকে যাচ্ছে তার, কুমিল্লার জীবন।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

রাজেশ। অধিকাংশ ছেলের মতই পড়তে চলে আসছে বি- বাড়িয়া থেকে কুমিল্লা নগরীতে। লক্ষ্য একটাই কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রাজুয়েশন করে ভালো একটা চাকরী করা। কিন্তু বাস্তবতার নির্মমতা তাকে থেমে যেতে বলছে। বাড়ি নাসিরনগর ব্রাহ্মণবাড়িয়া,বাবা মায়ের তিন সন্তানের মধ্যে বড় সে। ছোটভাইটা ক্লাস নাইন এ পড়ে। তাই পারিবারিক ভাবে পরিবারের দায়িত্ব বুঝে নেওয়া সময় সামনে তার। তাইতো রাত দিন এক করে পড়ালেখা করতে সে। ডিপার্টমেন্ট এ CGPA ও ভালো 3.65। কিন্তু ভাগ্য তাকে হাসপাতালে বেড ও তার পিঠের সাথে বেধে দিয়েছে। দুইটি কিডনি অকেজো হয়ে গেছে তার। চাকরির স্বপ্ন থেকে সে সরে এসে,এখন সে বাঁচার স্বপ্ন দেখে। তার শেষে স্ট্যাটাস এ সে লিখেছে" I don't fear death. No matter how many plans you make or how much in control you are, death is always wining it. My only fear is for My Mother, Father, Loving Brothers & sisters as well my all careful friends."

যদিও মুখে বলে সে মুত্যুকে ভয় পায় না কিন্ত সে বুঝিয়ে দিয়েছে সে পৃথিবীটাকে কতটা ভালোবাসে। একটা বড় ছেলে হিসেবে সে কতটু দায়িত্ব নিতে চেয়েছিলেন। বাবা মিষ্টির দোকানের কর্মচারী। ছেলেটাকে সবকিছুর বিনিময়ে পড়ালেখা করিয়েছেন। তাইতো সে নিজের মুখে বলেছেন " যে ছেলে আমাদের দায়িত্ব নিবে, তার দায়িত্বই এখন আমাদের কাধে।

আসুন পৃথিবী থেকে এসব দায়িত্ববান ছেলেদের হারাতে না দেই।আপনার একটু সহযোগীতা, রাজেশের ২০ লক্ষ টাকার কাছে কিছুই না। আসুন পাশে দাঁড়াই রাজেশের।

01635501793 (বিকাশ) 016355017931 ( রকেট)

glqxz9283 sfy39587p07