Skip to content

"জোহান ও একটি নীল পরীর গল্প"

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জোহান দেখতে সাধারন কিন্তু যখন চোখে কালো চশমা হাল্কা আকাশী রঙের শার্ট কালো প্যান্ট-কা‌লো সু(‌জুতা) সাথে ব্লু কালারের এপাচি বাইক চালায় তখন কি ‌সে অার সাধারণ থাকে,,,, হয়ে যায় কারো কারো চোখে অসাধারণ। তবে জোহান শুধু একজনের চোখেই অসাধারণ থাকতে চাই,,, আর তা হলো তার নীল পরী। নাম তার নিলা তবে জোহান আদর করে নিলু বলে ডা‌কে। জোহানের বাইক চালানোর ব্যাপারে অ‌ভি‌যোগ আছে,,,,। সে বিশেষ ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হর্ন বাজায়। ওর বন্ধুরা বলে,,,,, এরকম কেন হর্ন বাজাও,,,,,। সে এক কথায় বলে ফেলে,,,, "এটিই আমার স্টাইল"। জোহানের style হল এরকম যে,,, কোন মোড়ে এমনকি তিন রাস্তার মোড়ে হর্ন দিতে ভুলে গেলেও রাস্তায় সমবয়সী কলেজ পড়ুয়া তরুণী দেখলেই হর্ন বাজাতে তার ভুল হয় না ।একবার না কয়েকবার। আর জোহান ভাবে আজকাল মেয়েগুলো কেমন জানি নিষ্ঠুর হয়ে গেছে সহজে পিছন দিকে ফিরে তাকায় না। আবার বিরক্ত হয় বললেও ভুল হবে,,, কেন আবার? ওই যে আড়াল করে মুচকি হাসি হাসে।‌মে‌য়ে‌দের ভাবখানা এমন মুচকি হাসি আর যাই করি,,,, কিন্তু পিছন দিকে ফিরে তাকা‌বো না। তবে বিরক্ত হয় রাস্তায় থাকা কা‌লো-হলুদ কুকুরগুলো তারা ঠিকই পিছনে ফিরে তাকায়,,, দাঁতগুলো কিড়মিড় করে বুঝাতে চায়,,, এত হর্ন বাজাও ক্যা? পুরা রাস্তাতো ছেড়ে দিয়েছি,,, আর কত? তবে আজ জোহানের কি হলো,,,, যে ছেলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে 40 এর উপরে বাইকে টান(Speed) থাকে,,,।অাজ 40 এর নিচে বাইক চালাচ্ছে,,,,,। রাস্তায় সুন্দরী মেয়ে গুলোকে দেখেও হর্ন বাজাচ্ছে না । জোহানের আজ এমনকি হ‌লো,,,, এমন ভদ্র ইসটাইল!!! ঘটনা আসলে কি? ঘটনায় একটায়,,, ‌জোহা‌নের বাইকের পিছ‌নে যে ,,,অাজ নীল শাড়ি পরিহিতা,,, নীলা মানে,,, জোহানের নিলু বসে আছে। "সকল প্রেমিক পুরুষই তার প্রেমিকার কাছে,,, প্রিয়তমার কা‌ছে ভদ্র থাকার চেষ্টা করে,,,,। জোহান ও যে,,, তার ব্যতিক্রম নয় ।"জোহান খুব ভালো করেই জানে এখন তার সাথে নিলু আছে। প্রত্যেকটি বিষয়ক খুব সতর্কতার সাথে বাজা‌তে হবে,,,,, এমনকি গাড়ির হর্ন পর্যন্তও। এখন উল্টা পাল্টা অসম‌য়ে হর্ন বাজালে,,, তার প্রেমের বারোটা বে‌জে যা‌বে। মেয়েরা অনেক কিছু সহ্য করতে পারলেও তার প্রেমিকের মুখ হতে তার সমবয়সী অন্য মেয়ের প্রশংসা একদম সহ্য করতে অভ্যস্ত নয় ।
নীলু : আমরা কোথায় যাচ্ছি?
জোহান: দুচোখ যেদিকে যায়?
নীলু : ও তাই বুঝি। নিলু আকাশের দিকে তাকিয়ে বলল আচ্ছা আমার দুচোখ তো আকাশের দিকে যেতে চায় তো?
জোহান: তবে তোমাকে আজ আকাশেই নিয়ে যাব
নিলু : পারবা নিতে?
জোহান : ঐ আকাশে নিতে না পার‌লেও,,, তবে অাজ আমার মনের আকাশে তোমাকে ঠিকই নিয়ে যাব
নিলু :‌হুম তা দেখা-যাবে,,, ? আচ্ছা তুমি নতুন বাইক চালক নাকি? নীলুর খোঁচা মারা কথা টা জোহানের আত্মসম্মা‌নে বেজে গেছে ।তাই জোহান দ্রুত বাইকের টান(Speed) 60এর উপরে তুলে ফেললো। গাড়ির গতি বাড়ার কারণে নীলার এখন তার শাড়ি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে,,,,। আরে জোহান কি করছো,,,, আস্তে চালাও,,, আস্তে চালাও,,,। জোহান খানিকটা মুচকি হেসে মনে মনে ভাবে,,,, "তোমরা হল,,, নারীর জাত গাড়ি আস্তে চালালেও দোষ,,,, জোরে চালালেও দোষ,,,,"। জোহান গাড়ির গতি নামিয়ে আনতে আনতে নিউটাল মা‌নে একেবারে জিরো ‌তে নামিয়ে আনলো ।
নিলু : গাড়ির গ‌তি কমাতে বলছি বলে,,,, তা একদম থেমে গেলে কেন?
জোহান : সামনে মামা,,,,
নিলু : মামা মানে,,,!!! কার মামা,,,???
জোহান : সবার মামা,,,!!!
নিলু: মানে,,,??
জোহান : মানে পুলিশ মামা,,,,।
নিলু : তো কি হয়েছে,,,??
জোহান : আমার নাম্বার নাই,,?? (মুখ ফসকে বলে ফেলে‌ছে)
নিলু :ব‌লো কি,,,!! মানু‌ষের আবার নাম্বার আছে,,,,?? আগে তো জানতাম না,,,,!!!
জোহান : না,,,, মানে আমার গাড়ির নাম্বার নেই।
নিলু : তাই বল বা সেন। তা এটা হলো,,, এটা কোন কাজ হলো,,,,,
জোহান : কি হলো,,, আবার??
নিলু : আমাকে নাম্বার ছাড়া গাড়িতে তুলছো যে,,,,
জোহান : গাড়ির নাম্বার নাই তো কি হইছে,,,,। চেয়ে দেখনা,,,, কি নতুন কড়কড়া,,,। কি তার স্পিড,,,,!!!
একথা শুনে নিলু খুশি হয়ে‌ছে না বেজার হ‌লো,,,, তা দেখার জন্য মোটরসাইকেলের গ্লাসে তাকিয়ে দেখতে পেল,,,,, নিলু প্রথমে আলতোভাবে মুখ ভেংচি কাটলো,,,,,। অতঃপর খানিকটা মুচকি হাসলো,,, বিষয়টা জোহানের বোধগম্য হলো না,,,,। তবে এ দৃশ্য দেখে জোহানের অন্তরটা যেন জুরিয়ে গেল এবং মনে মনে ভাবলো যাক আমার নীলা মা‌নে নিলু শুধু যে শাড়ি পড়তে জানে তা নয়,,,, সময়মতো জায়গামতো মুখ ভেংচি কাটতেও জানে দেখি,,,,,!!!!!,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,, অাপা‌ততো এ পর্যন্তই,,,, সময় সু‌যোগ হ‌লে,,,, বাকী অংশটুকু,,,,,,,,,,,, ।

সাদামাঠা এক সাধারণ লেখক_________ জাহাঙ্গীর হোসাইন।
,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

glqxz9283 sfy39587p07