Skip to content

বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষে ধর্ম।গুরুজী।।এই নামাজের কারণেই নামাজিরা দোজখে যাইবে।।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সালাত একটি এবাদৎ।যাহা সৃষ্টিকে নির্লজ্জ ও যঘন্য কাজ হইতে বিরত রাখে।আর এই সালাত আদায়ের জন্য প্রত্যেক মহল্লায় মহল্লায় মসজিদ স্থাপন করা হয়েছে।এবং প্রত্যেক মসজিদেই নামাজ পড়ানোর জন্য ইমাম নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।তারা নির্দিষ্ট বেতনের মাধ্যমে নামাজের ইমামতি করে নিজেদের জীবিকা নির্বাহ করিতেছে।

কিন্তু,দুঃখের বিষয় হলো।যারা এত কষ্ট করে পূণ্যের আশায় নামাজ পড়ছে ও ইমামের বেতন পরিশোধ করছে তারা কি জানে যে,তারা যে নামাজ পড়ছে তাতে তাদের পূণ্য নয় বরং পাপ হচ্ছে।এবং তা হচ্ছে শুধুমাত্র তাদের ইমামের জন্য।যদি তারা ইমামের পিছনে নামাজ না পড়ে নিজেরা একা একা নামাজ পড়তো, তাহলে নামাজের বিনিময়ে আল্লাহ যদি কোন পূণ্য দেওয়ার প্রতিশ্রুতি করে থাকেন,তা তারা পেত।কিন্তু ইমামের পিছে নামাজ পড়ার জন্য তারা পূণ্যের পরিবর্তে পাপ অর্জণ করে চলেছে।তার অর্থ এই দাঁড়ায় যে,এত কষ্ট করে নামাজ পড়ার পরে।শুধু মাত্র ইমামের কারণে নামাজিরা দোজখে যাব।

আপনারা হয়তো চিন্তা করছেন,কি সব বাজে কথা বলে চলেছে।নামাজ পড়লে পাপ হবে কেনো?আসুন আমরা কোরানের সূরা বাকারা ১৭৪ নম্বর আয়াতটি পড়ে দেখি তাতে আল্লাহ কি বলেছেন।

নিঃসন্দেহে ,যাহারা আল্লাহর অবতারিত কিতাব গোপন করে ও তৎপরিবর্তে নগণ্য মূল্য গ্রহন করে ।তাহারা আর কিছুই নহে,শুধু নিজেদের পেটে অগ্নি পুরিতেছে।আর আল্লাহ কিয়ামতের দিন তাহাদের সহিত কথাও বলিবেন না এবং তাহাদিগকে পবিত্র ও করিবেন না।তাহাদের জন্য রহিয়াছে যন্ত্রণাময় শাস্তি। সূরা বাকারা ১৭৪ নম্বর আয়াত।

এই আয়াতে ষ্পষ্ট পরিলক্ষিত হয় যে,প্রথমত ইমামেরা ইমামতির জন্য কোন অর্থ বা সম্পদ নেওয়া যাবে না।একথা প্রকাশ না করে তারা ইমামতির বিনিময়ে অর্থ নিয়ে আল্লাহর অবতারিত কিতাবকে গোপন করিতেছে।এবং ইমামতির বিনিময়ে অর্থ সম্পদ নেওয়া নিষেধ থাকলেও ইমামরা অর্থ নিয়ে কোরান অমান্য করেছে।

আর অন্যায় যে করে আর অন্যায় যে সহে ,দুজনেই সম দোষি।কেন না কোরানে বলেছে তুমি অন্যায় কাজে সাহায্য করলে পাপের ভাগী হবে এবং ন্যায় কাজে সাহায্য করলে তুমি তার প্রতিদান পাবে।তাই নামাজিরা ইমামকে অন্যায় করতে সাহায্য হেতু ইমামতির বিনিময়ে অর্থ দিয়ে পাপের ভাগী হচ্ছে।যা তাকে জাহান্নামে যেতে সাহায্য করছে।

আসুন বেতন ভুক্ত নয় বেতন মুক্ত ইমাম এর পিছনে নামাজ পড়ার অঙ্গিকার করি।

সত্য সহায়।গুরুজী।।

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মনে হয় না, এট বড় দোযখ বানানোর মত আল্লাহের বাজেট ও ইনজিনিয়ার আছে!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কি কারণে মনে হয় না,তার বিবরণ দিলে অধম কৃতজ্ঞ হইত।

সত্য সহায়।গুরুজী।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দোযখ বানাতে অনেক কিছু দরকার: অফুরন্ত গ্যাস, অনেক লোহা, জনবল, জল্লাদ ইত্যাদি। উনার এত কিছু থাকার কথা নয়!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ফারমারকে-

দোযখ বানাতে অনেক কিছু দরকার: অফুরন্ত গ্যাস, অনেক লোহা, জনবল, জল্লাদ ইত্যাদি। উনার এত কিছু থাকার কথা নয়!

কেনো? আপনার কাছ থেকে সাহায্য নিবে।

সত্য সহায়।গুরুজী।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি সাহায্য করলেও উনি দোযখ বানাতে পারবেন না; কারণ, দোযখের আর্কিটেক্ট আপনার মতো অনেক ইডিয়ট; সে আর্কিটেকচার বুঝার মত ক্ষমতা আল্লাহকে দেয়া হয় নাই।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি সাহায্য করলেও উনি দোযখ বানাতে পারবেন না; কারণ, দোযখের আর্কিটেক্ট আপনার মতো অনেক ইডিয়ট; সে আর্কিটেকচার বুঝার মত ক্ষমতা আল্লাহকে দেয়া হয় নাই।

হ্যাঁ! মানছি আপনি আল্লাহ হতে অনেক জ্ঞানী।কেন না আল্লাহ কি পারবে না পারবে সে বিষয়ে আপনি অভিজ্ঞ।আমি এত বুঝি না।আমাকে ক্ষমা করুন।

সত্য সহায়।গুরুজী।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভুল ব্যাখ্যা করবেন না। যারা নামাজ/ছালাত পড়ে/কায়েম করে তারা যে টাকা ইমামকে দেয় তা কুরআনের আয়াতের বিনিময়ে দেয় না আর ইমাম ও যে টাকা নেয় তা কুরআনের আয়াতের বিনিময়ে নেয় না ( অল্প কয়েক জন ব্যাতিত, যেমন সায়িদি)।আপনার ব্যাখ্যার ধরন বদল করেন।
এই পোস্টে আপনি মন্তব্য করেছেন

আল্লাহ যে এক তা আপনাকে কে বললো?পবিত্র কোরানে (প্রচলিত)৩১টি আয়াতে আল্লাহ নিজেই নিজের পরিচয় দিয়েছেন আমরা বলে।অর্থাৎ আল্লাহ এক নায় আল্লাহ একের অধিকে।এ বিষয়ে আপনি কিছু জানেন কি?

আমাদের প্রেসিডেন্ট অথবা প্রধান মন্ত্রি যখন বলেন "আমরা দেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাচ্ছি" তখন কি এটা বুজায় যে আমাদের প্রধান মন্ত্রি ২জন বা অনেক ?
এই সুরাটি কি আপনি পড়েছেন ?
بِسْمِ اللّهِ الرَّحْمـَنِ الرَّحِيمِ
শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু।
Ayahs: | 1-4 |

قُلْ هُوَ اللَّهُ أَحَدٌ (1
বলুন, তিনি আল্লাহ, এক,
Say (O Muhammad (Peace be upon him)): ”He is Allâh, (the) One.

اللَّهُ الصَّمَدُ (2
আল্লাহ অমুখাপেক্ষী,
Allâh-us-Samad. (The Self-Sufficient Master, Whom all creatures need, He neither eats nor drinks).

لَمْ يَلِدْ وَلَمْ يُولَدْ (3
তিনি কাউকে জন্ম দেননি এবং কেউ তাকে জন্ম দেয়নি
”He begets not, nor was He begotten;

وَلَمْ يَكُن لَّهُ كُفُوًا أَحَدٌ (4
এবং তার সমতুল্য কেউ নেই।
”And there is none co-equal or comparable unto Him.”

আপনাকে আমার আর কিই বা বলার আছে ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

রোবটকে-

যারা নামাজ/ছালাত পড়ে/কায়েম করে তারা যে টাকা ইমামকে দেয় তা কুরআনের আয়াতের বিনিময়ে দেয় না আর ইমাম ও যে টাকা নেয় তা কুরআনের আয়াতের বিনিময়ে নেয় না

কেন? ইমাম যে নামাজ পড়ায় তাকি আল্লাহর কুরআনের আয়াত দিয়ে নয়?ইমাম কুরআনের আয়াত দিয়ে নামাজ পড়িয়ে অর্থ নেয়।তাহলে আমার ভুল হলো কিভাবে?

আমাদের প্রেসিডেন্ট অথবা প্রধান মন্ত্রি যখন বলেন "আমরা দেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাচ্ছি" তখন কি এটা বুজায় যে আমাদের প্রধান মন্ত্রি ২জন বা অনেক ?

তারা এজন্য আমরা বলে যে,তাদের নিজস্ব একটি কমিটি আছে এবং তাতে অনেক সদস্য আছে।সম্মিলিত সদস্যের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তারা তাজ করে।তাই তারা আমি না বলে আমরা বলে।

আল্লাহ যে আমরা বললো,তাতে আল্লাহর সাথে কি সম্মিলিত সদস্যের কোন কমিটি ছিলো?

সত্য সহায়।গুরুজী।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আল্লাহ যে আমরা বললো,তাতে আল্লাহর সাথে কি সম্মিলিত সদস্যের কোন কমিটি ছিলো?


قُلْ هُوَ اللَّهُ أَحَدٌ (1
বলুন, তিনি আল্লাহ, এক,
Say (O Muhammad (Peace be upon him)): ”He is Allâh, (the) One.

এর মানে কি ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

রোবট কে-

তিনি আল্লাহ, এক,

আপনি বলেন,আল্লাহ আমরা বললেন কাদেরকে নিয়ে।

সত্য সহায়।গুরুজী।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গোলাম দস্তগীর লিসানিকে-

ইমামকে বেঁধে বেতন দেয়া একটা সম্পূর্ণ বিদআত।

শুধু বেঁধে বেতন নয়,নামাজ পড়ায়, মিলাদ পড়ায়,বা ওযাজ করে হেতু তাকে এক টাকা দিলেও।সেটা নেয়া এবং দেয়া দুটিই কোরানের দৃষ্টিতে আল্লাহর কাছে শাস্তি যোগ্য অপরাধ।

সত্য সহায়।গুরুজী।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আসলেই,
ইমামকে বেঁধে বেতন দেয়া একটা সম্পূর্ণ বিদআত।

আগে ইমাম হতেন রাষ্ট্রীয় নেতা, রাজকর্মচারী, ধর্মীয় বিশাল নেতারা।

তাঁরা তো মসজিদে ওয়াক্তে ওয়াক্তে নামাজ পড়বেনই, তাঁদের পিছনে অন্যরা পড়বে।
পরে চলে এল স্বল্পশিক্ষিত কিছু মানুষকে, 'ইমাম' এর মত মহান একটা নাম দিয়ে মসজিদে বেতনভুক্ত করে রাখার প্রচলন।

এই ঘটনাও আমাদের সমাজের প্রকৃত ইসলাম অনুসারীরর অভাব ও অবক্ষয়কে নির্দেশ করে।

-- -- --

glqxz9283 sfy39587p07