Skip to content

তাত্ত্বিক অনুসন্ধান: সৌদি নাগরিক খুনের আড়ালে জামায়াত!

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি


ঘটনার পর সাদা রঙের একটি গাড়ি দ্রুতবেগে পশ্চিম দিকে চলে যেতে দেখা গেছে। তার মানে খালাফ আল আলী আগে থেকেই একটি গোষ্ঠীর ল্যবস্তুতে পরিণত হয়েছিলেন! প্রশ্ন হলো- এই গোষ্ঠীটা কারা? কীসের স্বার্থে সৌদি নাগরিককেই বেছে নেওয়া হলো?

বাংলাদেশ এখন কোন অবস্থায় আছে এর চুলচেরা বিশ্লেষণ করার বোধ, বুদ্ধি বা ক্ষমতা কোনোটাই আমার নেই। থাকারও কথা নয়! এ ক্ষমতা থাকবে শুধু আমাদের রাজনীতিবিদদের! তবে সর্বশেষ ‘আততায়ীর’ গুলিতে সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তার মৃত্যুর বিষয়টি যেভাবে দেখা হচ্ছে, তা নিয়ে আমার মতো তথাকথিত ‘দেশপ্রেমিক’ অনেকটাই উদ্বিগ্ন। উদ্বিগ্ন, কারণ এটি বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা বলে আমার মনে হয়নি। এটাকে মনে হয়েছে ‘পরিকল্পিত’ ‘রাজনৈতিক’ উদ্দেশ্য হাসিলের হত্যাকাণ্ড।

কেন মনে হয়েছে এবং হচ্ছে তা বিশ্লেষণ করার আগে একটু মূল ঘটনা দেখে আসি।

সোমবার রাত ১টার দিকে গুলশানের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯/বি নম্বর বাসার সামনে গুলিবিদ্ধ হন খালাফ আল আলী। পুলিশ তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।

ময়না তদন্তে জানা যায়, একটি মাত্র গুলিতেই খালাফ আল আলীর মৃত্যু হয়েছে। গুলিটি তার বুকের বাম পাশ দিয়ে ঢুকে কিডনিতে লেগেছিলো। তার মানে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়েছে এই দূতবাস কর্মকর্তাকে। তাছাড়া কনস্যুলেট অব পর্তুগাল প্রধানের বাসভবনের নিরাপত্তাকর্মী জুলফিকার যদি মিথ্যা না বলে থাকেন, তাহলে আমরা এটিও বলতে পারি এটি পূর্ব পরিকল্পিত। কারণ জুলফিকার ঘটনার পর সাদা রঙের একটি গাড়ি দ্রুতবেগে পশ্চিম দিকে চলে যেতে দেখেছেন।

তার মানে খালাফ আল আলী আগে থেকেই একটি গোষ্ঠীর ল্যবস্তুতে পরিণত হয়েছিলেন! প্রশ্ন হলো- এই গোষ্ঠীটা কারা? কীসের স্বার্থে সৌদি নাগরিককেই বেছে নেওয়া হলো?

আমাদের সবার জানা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিরোধী হিসেবে প্রথম যে দেশকে বিবেচনা করা হয়- সেটি সৌদি আরব। বিএনপি এবং জামায়াতে ইসলামী সব সময়ই এই দেশটির আশির্বাদপুষ্ট।

অন্যদিকে জামায়াতের শীর্ষ নেতারা যুদ্ধাপরাধের দায়ে কারাগারে বন্দি। ক্ষমতার লোভেই হোক, বা অন্যকোনো কারণে- বিএনপিও চায় না এই বিচার হোক।

সবচেয়ে বড় কথা ক্ষমতার তিন বছরের মধ্যে অনেক বিষয়কে একসঙ্গে জোড়াতালি দিতে গিয়ে নানামুখী চাপে রয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার। শুরুতে রাজনীতির চালে চারদলীয় জোট পিছিয়ে থাকলেও একের পর এক কর্মসূচি দিয়ে বর্তমানে সরকারের সঙ্গে তারা দিব্যি খেলছে ইঁদুর-বিড়াল খেলা। এসব কর্মসূচি মোকাবেলা করতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে অপরিপক্ক মন্ত্রিপরিষদ নিয়ে গঠিত বর্তমান সরকারকে।

তবে সবচেয়ে বড় কথা, সামনে চারদলীয় জোটের মহাসমাবেশ। ১২ মার্চ। বিএনপির সময় জলিল যেমন ‘ট্রামকার্ডের’ কথা বলে ভয় দেখাতে চেয়েছিলেন, তেমনি বিএনপিও এই মার্চের মহাসমাবেশকে ‘টার্গেট’ আখ্যায়িত করে রাজনীতির মাঠ গরম করতে চাইছেন। তবে পরিণতি জলিলের ট্রামকার্ডের মতোই হবে সেটি বিএনপি-জামায়াত ভালো করেই জানে। আর সে কারণেই ভিন্ন পথে এগোচ্ছে দুটি দল। এই সংখ্যা হতে পারে একটিও।

লক্ষ্য করে দেখবেন, সৌদি দূতাবাস কর্মকর্তার এই হত্যাকাণ্ডের পর বিএনপির চেয়ারপার্সন কি বলেছেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা বলেছেন, “দেশের অবস্থা অত্যন্ত খারাপ। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নেই। বিদেশিদেরও নিরাপত্তা নেই এদেশে।”

সত্যি কথাই বলেছেন। একেবারে খাটি কথা। কিছুদিন আগে সাংবাদিক দম্পতি হত্যাকাণ্ডের পর তিনি বলেছিলেন- “সাংবাদিকদের নিরাপত্তা এদেশে নেই।” ওইটাও সত্যি কথা ছিলো। এরপর আইনজীবী খুন হলে বলবেন, আইনজীবীদের নিরাপত্তা নেই, ব্যবসায়ী খুন হলে- ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা নেই। এভাবেই চলতে থাকবে। আর ক্ষোভ সঞ্চার হবে এসব পেশাজীবীর মধ্যে। যেমনটি হয়েছে সৌদি নাগরিক হত্যার পর সৌদি সরকারের মধ্যে।


বিএনপি যতোটা সহজে সমীকরণ দাড়া করাতে চাচ্ছে, জামায়াত ততোটা সহজ পথে ভাবতে পারছে না। কারণ নির্মূল হওয়ার ভয় রয়েছে দলটির। তাই তারা এগোচ্ছে অন্যপথে। এক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে চাপ সৃষ্টির কৌশলটাকেই তারা বেছে নিয়েছে। সেক্ষেত্রে সৌদি আরবের মতো দেশকে যদি কোনোভাবে কনভিন্স করা যায়, সেটি হবে তাদের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার।

লক্ষ্য করলে দেখবেন জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে কোনো ঘটনারই আনুষ্ঠানিক কোনো প্রতিবাদ বা বক্তব্য পাওয়া যায়নি। অন্তত আমি দেখিনি। ওদের দলীয় ওয়েবসাইট থেকে শুরু করে কোথাও এসব হত্যাকাণ্ড নিয়ে তেমন কোনো কথা তারা বলেননি।

তাহলে কী এসব কিছুর পেছনে জামায়াতের হাত রয়েছে?

উত্তরটা এক হলে 'হ্যাঁ' অথবা 'না'। তবে এতটুকু বুঝি এক এক করে আরো অনেকগুলো অঘটন ঘটবে আগামী দুই বছরের মধ্যে। যেগুলোর সঙ্গে রাজনৈতিক যোগসূত্র থাকাটাই প্রাসঙ্গিক।

(মাফ করবেন। খুব কম সময়ে লেখায় অগোছালো হয়ে গেছে)

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গুড অবসারভেশন!

-
একবার রাজাকার মানে চিরকাল রাজাকার; কিন্তু একবার মুক্তিযোদ্ধা মানে চিরকাল মুক্তিযোদ্ধা নয়। -হুমায়ুন আজাদ


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ধন্যবাদ দাদা। তবে লেখাটা সম্পূর্ণ অগোছালো মনে হয়েছে আমার কাছে। অনেক বিষয় মাথায় এলেও সন্নিবেশ ঘটাতে পারিনি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

তাহলে আমরা এটিও বলতে পারি এটি পূর্ব পরিকল্পিত। কারণ জুলফিকার ঘটনার পর সাদা রঙের একটি গাড়ি দ্রুতবেগে পশ্চিম দিকে চলে যেতে দেখেছেন।


পরিকল্পনা ছাড়া হত্যাকাণ্ড হয় নাকি? হত্যাকারী দ্রুত স্থান ত্যাগ করবে এটাই স্বাভাবিক।

...........................................
শুধু চেয়ে চেয়ে দেখি............।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পরিকল্পনা ছাড়াও হত্যা হতে পারে। যেমন ছিনতাই এর মাঝে খুন হয়ে যেতে পারে যা হয়ত ছিনতাইকারিদেরও মূল পরিকল্পনায় ছিল না। আবার কখনো কখনো সন্ত্রাসীদের ক্রশ ফায়ারে পড়েও নিরীহ লোকের জান যায় এমন বহু উদাহরন আছে......

তবে এই হত্যাকান্ডে কোন ব্যাপার আছে। ছিনতাই মোটিভ ছিল না, আল টপকা গুলি এসেছে তাও না...

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ধন্যবাদ ভাইজান।
পরিকল্পনা ছাড়া হত্যাকাণ্ড হতে পারে না তা কে বললো! ধরেন আপনি ছিনতাইকারীর কবলে পড়লেন। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ছিনতাইকারী আপনাকে গুলি করলো। এটাতো পরিকল্পিত না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হয় না আফনেরে কে বলছে?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবশ্যই সব হত্যাকান্ড পরিকল্পনা অনুযায়ী ঘটে না। পরিকল্পনার বাইরেও অনেক কিছু ঘততে পারে।


-----------------------------------------------------

আমি পথ চেয়ে আছি মুক্তির আশায়...


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ব্যাপারটা আসলেই প্যাচ খেয়ে গেল। সরকারের উচিত সম্ভাব্য সব রিসির্স ব্যাব হার করে এই হত্যারহস্য মীমাংসা করা।

.....................................
মায়ের লাঞ্ছিত বুকে শকুন নখের দাগ... কে পেরেছে ভুলে যেতে কবে? ধর্ষিতা বোনটির বিভীষিকা মাখা চোখ আমায় জাগিয়ে রাখে, ডেকে বলে,
মনে রেখো এদিনের শোধ নিতে হবে!! , যদি বল ঘৃনাবাদী, দ্বিধাহীন মেনে নেব তাও


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ঠিক কথা কইছেন। সহমত।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

১২ মার্চের কথা ইক্যুয়েশনে নিলে একটা দিকেই সন্দেহের তীর যায়, সরকারকে চাপের মুখে রাখতে... ...

___________________
------------------------------
শ্লোগান আমার কন্ঠের গান, প্রতিবাদ মুখের বোল
বিদ্রোহ আজ ধমনীতে উষ্ণ রক্তের তান্ডব নৃত্য।।
দূর্জয় গেরিলার বাহুর প্রতাপে হবে অস্থির চঞ্চল প্রলয়
একজন সূর্যসেনের রক্তস্রোতে হবে সহস্র নবীন সূর্যোদয়।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

যাক একজনকে পাইলাম যে সায় দিলো। ধন্যবাদ। লজ্জায় পইড়া গেছিলাম। হা হা হা.


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

'একলা চলো রে' নীতি গ্রহণ করেন ভাই

___________________
------------------------------
শ্লোগান আমার কন্ঠের গান, প্রতিবাদ মুখের বোল
বিদ্রোহ আজ ধমনীতে উষ্ণ রক্তের তান্ডব নৃত্য।।
দূর্জয় গেরিলার বাহুর প্রতাপে হবে অস্থির চঞ্চল প্রলয়
একজন সূর্যসেনের রক্তস্রোতে হবে সহস্র নবীন সূর্যোদয়।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনার ওপর দই পাহারার দায়িত্ব দেয়া হল আর সুযোগ বুঝে বিড়ালে তা সাবাড় করে দিল। এখন আপনি কী বলবেন?

সামনে বড়ই দুঃসময় মনেইতাছে...সরকার যদি যথাযথ ব্যবস্থা না নেয়....তাইলে হেরা ত ডুববই... লগে আমগো সাইজ অইতৈব.. Sad

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
ন্যায়ের কথা বলতে আমায় কহ যে
যায় না বলা এমন কথা সহজে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি নিশ্চই দই খেয়ে ফেলবো না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@ শেখের পো,

আমি দই খাইতে চাই, খাস বগুড়ার খাঁটি দই

___________________
------------------------------
শ্লোগান আমার কন্ঠের গান, প্রতিবাদ মুখের বোল
বিদ্রোহ আজ ধমনীতে উষ্ণ রক্তের তান্ডব নৃত্য।।
দূর্জয় গেরিলার বাহুর প্রতাপে হবে অস্থির চঞ্চল প্রলয়
একজন সূর্যসেনের রক্তস্রোতে হবে সহস্র নবীন সূর্যোদয়।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গুড অবজারবেশন । জামায়ত আল্লাহরে বিক্রি করে, আর-----------------

আর কি হবে এমন জনম


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবজারভেশন কেমন জানি না। মাগার অগোছালো হইয়া গেছে এইটা নিজেই বুঝেছি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার কাছে তো লেখাটি অগোছালো মনে হচ্ছে না। ভাল লিখেছেন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পোষ্ট ভাল লাগল। যুক্তি আছে কথায়

****************************
ঘৃণার চাষাবাদ জারি থাকুক প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে।মানবতা মানুষের জন্যই সংরক্ষিত থাক।পশুদের জন্য বরাদ্দ থাক শুধুই উগ্র ঘৃণার দাবানল।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

যুক্তি থাকলেও লাভ নাই। পাবলিকতো আমারে আওয়ামী লীগার ভাবতাছে। আমি ভাই আমজনতা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

যুক্তি থাকার পরও যারা কেউ কাওরেও টেগ করে হেরা আবাল

****************************
ঘৃণার চাষাবাদ জারি থাকুক প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে।মানবতা মানুষের জন্যই সংরক্ষিত থাক।পশুদের জন্য বরাদ্দ থাক শুধুই উগ্র ঘৃণার দাবানল।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি অবাক হইলাম এখন পর্যন্ত্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বিএনপি-জামাত কে দোষ দিয়া কোন বিবৃতি দেয় নাই। এর মানে এইডা জামাত করছে। বাংলাদেশের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি তারা আমেরিকার সমান সমান করতে চায় হয়তো!

লেখক নই, পাঠক।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি অবাক হইলাম এখন পর্যন্ত্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বিএনপি-জামাত কে দোষ দিয়া কোন বিবৃতি দেয় নাই। এর মানে এইডা জামাত করছে। বাংলাদেশের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি তারা আমেরিকার সমান সমান করতে চায় হয়তো!
বালের কথা কন মিয়া

****************************
ঘৃণার চাষাবাদ জারি থাকুক প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে।মানবতা মানুষের জন্যই সংরক্ষিত থাক।পশুদের জন্য বরাদ্দ থাক শুধুই উগ্র ঘৃণার দাবানল।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বুঝি নাই বড় ভাই। আমার লেখার মতোই আপনার কমেন্ট তালগোল পাকিয়ে গেছে। হা হা হা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এই সমস্যা অনেক পুরান। কম কথায় সব কথা বুঝানোর বৃথা চেষ্টা। প্রতি মন্ত্রী সউদী থেইকা আসার পর এই ঘটনা ঘটলো এই ব্যাপারটা নিয়া একটু বিশ্লেষন করবেন?

লেখক নই, পাঠক।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সামনে ১২ই মার্চ। সন্দেহ ছিল ১২ ই মার্চ আগমুহুর্তে আভ্যন্তরীন ও আর্ন্তঃজাতিক ষড়যন্ত্র শুরু করবে রাজাকারদের মুক্ত করতে। আপনার পোস্ট সেই ইঙ্গিতই করে।

___________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আসলে আসল কারণ আমার কাছে ওইটাই মনে হইছে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবজারবেশন সুন্দর
সউদি বাংলা সম্পর্ক নস্ট হোক ,এটা অনেকেই চায় কারন সউদি আরব এর শ্রম বাজার বিশাল
আর এটা নিয়ে বাংলাদেশের সরকারের আরো গভীরে গিয়া ভাবতে হবে
এই শ্রমবাজার হাতছাড়া হইলে ২০ লাখের উপর বাংগালীর কি হবে?

''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''''""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""

কষ্ট পোড়াতে চাই বলে অশ্রু খুঁজি........


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আসলে আরো অনেক তথ্য দেওয়া উচিত ছিলো। যেমন সৌদি আরবে বাংলাদেশের শ্রমিকের সংখ্যা, বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের বর্তমান সম্পর্ক, সম্পর্ক খারাপ হলে কারা লাভবান হবে এবং কীভাবে-- এসব বিষয়। পাশাপাশি সৌদি আরবের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের বিষয়টিও তুলে ধরা উচিত ছিলো।

আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। সামনের লেখাগুলো আরো গুছিয়ে লেখার চেষ্টা করবো।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সবি ঠিক আছে! অব্জার্ভেশন ভালো।
সরকার কি আঙ্গুল চুষতাছে?

_____________________

ক্ষুদ্র স্বার্থ ভুলে মুক্তির দাঁড় টান।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হয়তো কিছুই চুষতাছে না। চুষলে অবস্থা আরো ভালো হতো।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সরকার এই কাজে ভালো পারদর্শি।

===================================================================
যেখানে পাইবে ছাগু আর বাদাম

চলিবে নিশ্চিত উপর্যপরি গদাম...............


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংলাদেশ-এ গোরিন্দা নামক কোন বাহিনী কি আছে?
এরা কি করে!!! আর গুলশানের মত এমন জায়গায় যেখানে প্রায় সব বাসায় নামি দামি প্রাইভেট কোম্পানির গার্ড থাকে। সেখানে কিভাবে এই ঘটনা ঘটে! আর রাতে খুন হলো সকাল পর্যন্ত পুলিশ কোন পরিচয় পেলো না এটা কিভাবে সম্ভব!! ঠিক এই জিনিসটা বুঝতে পারছিনা।
তবে হালকা মাথায় চিন্তা করলেই মনে হয় ভাষা সৈনিক আর স্বাধিনতার স্বপ্নদ্রষ্টা গু আযমের দেশ প্রেমিক দল ছাড়া কারো কথা মনে আসে না।

===================================================================
যেখানে পাইবে ছাগু আর বাদাম

চলিবে নিশ্চিত উপর্যপরি গদাম...............


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনার কথায় শতভাগ যুক্তি আছে।

সৌদি নাগরিক নিহত হওয়ার ১০ ঘণ্টা পর তার পরিচয় নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। আর সিআইডির ক্রাইমসিন টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছতে সময় লেগেছে আরো দুই ঘণ্টা।

আমার কথা হলো- এ ধরনের একটি ঘটনার পরও আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এতো নির্লিপ্ত থাকলো কীভাবে। তাদের আচরণও রহস্যজনক।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেখা যাক এইবার হয়ত এই হত্যাকান্ডের একটা সুরাহা হবে। আফটারঅল বিদেশী বলে কথা। তাদের বেডরুম থেকে শুরু করে রাস্তাঘাট পর্যন্ত নিরাপত্তা বিধান করা সরকারের দ্বায়িত্ব।নাইলে খবর আছে।তারাতো আর আমাদের মতন কুকুর বিড়াল না যে, তাদের জান মালের পাহারা দেয়া সরকারের পক্ষে সম্ভব না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি প্রতিদিনই ভাবি বাংলাদেশে আমাদের মতো আমজনতার কী মূল্য আছে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গাজার দাম কি কমে গেছে নাকি ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ক্যান খাইতে মঞ্চাইসে?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জামাতীদের বললে আপনার পুটু এত জ্বলে কেন??


-----------------------------------------------------

আমি পথ চেয়ে আছি মুক্তির আশায়...


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এরকমটা হলেও হতে পারে। আর এরকমটা ঘটে থাকলেও এখানে আমি সরকারের ব্যর্থতাকেই বড় করে দেখবো। ষড়যন্ত্রকারীরা এরকম করবার চেষ্টা অবশ্যই করবে। কিন্তু দেশে যে ধরণেরই অরাজকতা ঘতুক না কেন তা যদি ঠিকভাবে সামাল না দেওয়া যায় তবে সেই ব্যররথতার দায় অবশ্যই সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের।


-----------------------------------------------------

আমি পথ চেয়ে আছি মুক্তির আশায়...


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবশ্যই রাষ্ট্রের ব্যর্থতা। আর এই ব্যর্থতার দায় সবার আগে নিতে হবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। বিভিন্ন দেশেই ব্যর্থতার জন্য পদত্যাগ দেখি। আফসোস বাংলাদেশের রাজনৈতিক সরকারগুলোর মন্ত্রীদের এ ধরনের সাহসের পরিচয় দিতে দেখলাম না। এক হলে এরা নিজেরা ভোদাই। আর না হলে আমাদেরকে ভোদাই ভাবে।

ধন্যবাদ দেবা ভাই।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জামায়াত কি কাজ করে।

রাজাকারদের বিচার চাই

glqxz9283 sfy39587p07