Skip to content

অর্থনীতি রাজনীতি নিয়ে এক ছত্র

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কয়েকদিন আগে সিএনএনে রিপাবলিকান পার্টি হতে যারা সাপোর্ট নিয়ে আগামীতে ইলেকশন করতে আগ্রহী সেই সব রাজনীতিবিদদের মধ্যেকার বিতর্ক অনুষ্ঠান দেখছিলাম , প্রার্থীরা একই দলের রাজনীতিবিদ হলেও অর্থনীতি নিয়ে চিন্তাভাবনার ক্ষেত্রে সবারই নিজস্ব প্ল্যান ছিল এবং প্রত্যেকেই চেষ্টা করছিলেন মিডিয়ার মাধ্যমে নিজেদের ভাবনাকে বেশি সংখ্যক লোকদের গিলাবার ।

উদাহরন একজন প্রার্থী রন পল নিজেকে অর্থনীতিতে লিবাটারিয়ান আদর্শে বিশ্বাসি বলে অভিহিত করলেন এবং তিনি আমেরিকার বর্তমান অর্থনীতিক দুরবস্থার জন্য ফেডারেল সরকারের আমলাতন্ত্রকেই দায়ি করলেন এছাড়া অতিরিক্ত সামরিক ব্যয়কেও বাজেট ঘাটতির কারন হিসাবে তথ্য উপাত্ত দিয়ে প্রমান করতে চাইলেন মোট কথা তিনি ছোট সরকার ব্যবস্থাকে অর্থনীতিক মন্দা ব্যবস্থা হতে উত্তরনের কার্যকর পদক্ষেপ হিসাবে দেখছেন ।

অপরদিকে আরেকজন প্রার্থী কর ব্যবস্থার আমূল সংস্কারকেই গুরুত্ব দিলেন অর্থনীতি ছাড়াও সামাজিক ধর্মীয় ইস্যুতেও প্রার্থীদের মধ্যে আলোচনা তর্ক বিতর্ক হয়েছে , মডারেটরাও ফেসবুক, টুইটার ও নানা সামাজিক মাধ্যম হতে প্রাপ্ত ফিডব্যাক নিয়ে অনুষ্ঠানে প্রত্যেক প্রার্থীকে প্রশ্নবানে ঝাঁজরা করতে কার্পণ্য করেননি।

আমেরিকার রাজনীতিতে অর্থনীতি ইস্যু সব সময়েই সেন্টারে থাকে এবং এই ইস্যুতে স্রেফ ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট কিংবা পদ প্রত্যাশীগণই সরব থাকেন তা কিন্তু না সাবেক প্রেসিডেন্টদেরকেও দেখা যায় অর্থনীতি ইস্যুতে নিজেদের মত দিতে উদাহরন সাবেক প্রেসিডেন্ট ক্লিনটন Back to Work: Why We Need Smart Government for a Strong Economy নামে একটা বই লিখেছেন সেখানে এই অভিজ্ঞ সাবেক রাষ্ট্রনায়ক অর্থনীতিক দুরবস্থা কাটিয়ে উঠার ক্ষেত্রে কিছু কর্মপন্থা পেশ করেছেন ।

গ্রেট বৃটেন যাদের সরকার ব্যবস্থা আমেরিকা হতে ভিন্ন এবং আমাদের মতো সংসদভিত্তিক হলেও অর্থনীতিক নানা ইস্যু নিয়েই রাজনীতিক দলগুলা পরস্পর প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে জনগণের সমর্থন নিজেদের দিকে টানার জন্য ।
বাংলাদেশের যে কয়টা ইলেকশন হয়েছে সেই কয়টার ইতিহাস ঘাটলে কিন্তু পুরাই উল্টা চিত্র পাওয়া যায় বাংলাদেশে ইলেকশনের সময়ে আওয়ামীলীগ বিএনপির অর্থনীতিক নীতিমালা চেয়ে অর্থাৎ কর ব্যবস্থা কিরূপ হবে, বাজেট ঘাটতি এবং মূল্যস্ফতি কিভাবে সরকার মোকাবেলা করবে এই সব নিয়ে মিডিয়াতে হালকা পাতলাই আলোচনা হয়

বড় দলগুলাও অর্থনীতি নিয়ে ইলেকশনের আগে কিছু সস্তা স্লোগান দিয়ে ( দাম কমানো কিংবা সবকিছুতেই সাবসিডি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ) নিজেদের দায় সারে অর্থনীতি ইস্যুগুলা ভোটের সময় কেন জানি সর্বদাই সেকেণ্ডারি ফোকাসে থাকে দুইটা মূল দলই ইমোশনাল ইস্যুগুলা নিয়েই ফোকাস করে ভোট টানার জন্য দেশের মিডিয়াও এই সংস্কৃতি পরিবর্তন করার অপেক্ষা রাজনীতিদল গুলার সাথেই গা ভাসিয়ে চলে ।

অর্থনীতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী পদ প্রত্যাশীদের মধ্যেকার লাইভ টিভি ডিবেট আয়োজনের সম্ভাবনা আমি ভবিষ্যৎতেও দেখি না । কিন্তু বড় দুই দলের সম্ভাব্য অর্থমন্ত্রী পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে দেশের নানা অর্থনীতিক সমস্যাগুলি নিয়ে প্রান্তবন্ত আলোচনার উদ্যোগ মিডিয়া কিন্তু ইচ্ছা করলেই আয়োজন করতে পারে ।

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মাথা খারাপ! আমাদের দেশে এ ধরনের ডিবেট হবার প্রশ্নই উঠে না। দেখেন না টিভি'র পর্দায়। যে কোন রাজনৈতিক ডিবেট হলে সেখানে দুজনে কিভাবে গালা গালি করেন।

আমাদের দেশে রাজনৈতিক পাবলিক ডিবেট হবার আশা করা একধরনের দিবাস্বপ্ন। আমাদের রাজনৈতিক নেতারা কথা বলার আর্টই জানেন না। ডিবেট করতে হলে আর্টিকুলেট হতে হয় যেটা আমাদের নেতাদের বুঝে নাই, তারা করবে ডিবেট। তারা সব জায়গায় মনে করে ময়দানে ভাষন দিতে বসেছে।

ব্লগেই দেখুন না, কিভাবে আমরা মন্তব্য করতে গিয়ে পরস্পরে গালাগালি করি।

-------------------------------------------------------------------------------------------------

মানুষের দোষে ধর্ম দোষী
রাজা'র দোষে রাজ্য দোষী।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এই ক্ষেত্রে টক শো হোষ্টেরও কিছুটা দায় আছে বলা যায় আমার ধারনা দুই একজনকে বাদ দিলে বেশিরভাগই পূর্ব প্রস্তুতি না নিয়ে অনুষ্ঠানে চলে আসেন অর্থনীতি নিয়ে প্রশ্ন করে রাজনীতিবিদদের প্রশ্নবানে জর্জরিত করতে চাইলে
প্রস্তুতিমূলক কিছু পড়াশুনা করবার দরকার আছে তা বেশির ভাগ হোষ্টই করেন না ।

অনেক টক শোতে স্রেফ মাইক অন করে দিয়েই হোষ্ট তার দায় ছাড়েন আলোচ্য বিষয় পূর্বেই নির্ধারন করে দেওয়া হয় না ফলে যাওয়া হওয়ার তাই হয় ফলদায়ক আলোচনার বদলে চলে খিস্তিখেঊর

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

উলুবনে মুক্তো জন্মে গল্পে আর বাস্তবে সেখানে আগাছাই জন্মে দাদা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পড়লাম। আমি আশাবাদী, হয়তো আরো বেশ কিছুটা সময় লাগবে। এখন কিন্তু সাধারন টকশো গুলোতেও বড়সড় মন্ত্রীদের হর হামেশা দেখা যায়। তাদের কে অনেকে সরাসরি ফোন করে প্রশ্নবানে জর্জরিত ও করেন। এই ব্যাপারগুলো ও কি একসময় ভাবা যেতো ? এভাবেই ধীরে ধীরে হবে।

*************************************************************************************
আমি অতো তাড়াতাড়ি কোথাও যেতে চাই না;
আমার জীবন যা চায় সেখানে হেঁটে হেঁটে পৌঁছুবার সময় আছে,
পৌঁছে অনেকক্ষণ বসে অপেক্ষা করবার অবসর আছে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

লাস্ট নারায়নগঞ্জ পৌর মেয়র নির্বাচনের ডিবেট ফরম্যাট আমার পছন্দ হয়েছে এই রকম আয়োজন আরোও ব্যাপক হারে করা জরুরী ।

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এদেশে রাজনৈতিক সংস্কৃতি পাল্টানোর আশা করা ভুল বোধহয়।

------------------------------------------------------------------------------------------------
এই ব্লগটারে ভালোবাসি... আসি বা না আসি,থাকি বা না থাকি... নেটে এইটাই আমার নিজের ঘরবাড়ি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আনটিল নেতৃত্ত্ব প্রাপ্তির ক্ষেত্রে উত্তরাধিকার প্রথার বিলুপ্তি না ঘটছে।

__________________________________
শোনহে অর্বাচিন, জীবন অর্থহীন.............


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

না সেই সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ যদিও না কোন মিরক্যাল না ঘটে ।

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দ্বৈতসত্তা রেডিক্যাল কিছু প্রত্যাশা করি না তবে আমাদের প্রচেষ্টা চালিয়েও যাওয়ার মধ্যেও দোষের কিছু নাই ।

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হুম 'গেনী' নেতাদের হাত থেইক্কা দেশ বাঁচাইবো কিডা?

_____________________

ক্ষুদ্র স্বার্থ ভুলে মুক্তির দাঁড় টান।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কেন দেশপ্রেমিক জলপাই তবে সমস্যা হচ্ছে ক্ষমতায় যাওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই তারাও পলিটিসিয়ানে রূপান্তরিত হয়ে যান

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কেন দেশপ্রেমিক জলপাই তবে সমস্যা হচ্ছে ক্ষমতায় যাওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই তারাও পলিটিসিয়ানে রূপান্তরিত হয়ে যান


আমি লিখতেছিলাম এই কথা গুলোই 'ভাবনার সফেদ ঘোড়া' নাম দিয়ে। যাইহোক সময় নেইক্কা। শিল্প বিপ্লবের সবচেয়ে জঘন্য 'বাই প্রোডাক্ট' হচ্ছে আসমান থেইক্কা জীবনযাপনের রসদপ্রাপ্ত রাজনীতিবিদগন।

_____________________

ক্ষুদ্র স্বার্থ ভুলে মুক্তির দাঁড় টান।

glqxz9283 sfy39587p07