Skip to content

সেইসব দিন - এইসব দিন (সানিসাইড)

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি


সাতানব্বই সালের মাঝামাঝি সময় দেশে গেলাম। তিন বছরের বেশি পরে দেশে যাচ্ছি। আবার কবে যেতে পারব জানি না। আগামি বছরই মাল্টিপল ভিসার মেয়াদ শেষ। তাই কষ্ট আর আনন্দ মিলিয়েই শেষবারের মত স্বদেশ ভ্রমন। যেজন্য আমেরিকা গিয়েছিলাম, এখন দেখি সেই মুরগি অন্যের বাড়িতে ডিম পাড়ে। আমি হাসব না কাঁদব বুঝতে পারার আগেই ফিরে এলাম। এতদিন স্বপ্ন ছিল আর্লি এষ্টাবলিষ্ট হব। সেই লক্ষ্যে যত বেশি পেরেছিলাম ক্লাস-লোড নিয়েছিলাম। এখন মনে হচ্ছে এত তাড়াহুড়ার কিছু নাই। আর্লি এষ্টাবলিষ্ট হতে না পারলে আর কিছুই হারাবার নাই। গ্রেট, এখন থেকে জীবনের মোড় অন্যদিকে ঘুরালাম।

সিনিয়র কলেজে ঢুকলাম। আপার নিউজার্সিতে মন্টক্লেয়ার ষ্টেইট ইউনিভার্সিটি। পাহাড়ের উপরে বিশাল ক্যাম্পাস। প্রায় শত বছরের কিছু পুরানো বিল্ডিং। ছাদগুলি অনেক উচুতে। ঐতিহ্যের মনে হল যেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মত। ক্যাম্পাস আমার খুবই পছন্দ হল। দ্বিতিয়বারের মত যাত্রা শুরু করলাম। স্পিচ ক্লাসে ডেমোনস্ট্রেট করতে গিয়ে বাজালাম বাঁশের বাঁশি (সামান্য পারতাম, এখন পারিনা)। ক্লাশ শেষে এক সাদা তরুনী ধরল তার ডর্মে গিয়ে সবাইকে বাঁশি শুনাতে হবে। হায় হায়, কয় কি! ক্লাসে সবাইকে কিছু না কিছু করতে হবে। আমি একটু আধটু জানতাম তাই ফাঁকি বাজের মত চালিয়ে নিতে চেয়েছিলাম। এখন দেখি আসলে ধরা খেতে হবে। আল্লাহ ভরসা। তের স্কেলের বাঁশি বাজানো খুবই সহজ কাজ। মনে মনে গুন গুন করে ফু দিলেই কাজ হয়ে যায়। দুপুরের পরে গেলাম ডর্ম হাউজের মাঠে। পাহাড়ের ঢালুতে সবুজ মাঠ। অনেক দূর পর্যন্ত্য দেখা যায়। ছেলেমেয়েরা হৈ চৈ করছে। সাথে নিয়ে গিয়েছিলাম পাঞ্জাবি মেয়ে, তেজাল'কে। সবাই মিলে হৈচৈ করে কাটিয়ে দিলাম সেই বিকাল। মনে হল জীবন খারাপ না।

বাড়ি থেকে এসে সানিসাইডে নতুন রুমমেইটদের সাথে উঠেছি। এর মধ্যে রউফ ভাই ছিল ভক্তের মত। খুব সকালে ঘুম থেকে উঠে গাড়ি চালাতে চলে যেতেন। ঠিক আটটায় ফিরে আসতেন নাস্তা নিয়ে। সপ্তাহে একদিন বাইরে খাওয়া দাওয়া করতাম। আমি কতটা এফোর্ড করতে পারব সেটা ভাল করেই জানতেন। কখনোই সে আমাকে টাকা দিতে দিতেন না। হেসে হেসে বলতেন – ‘একদিন যখন ভাল কাজ পাবেন তখন কি বড় রেষ্ট্রুরেন্টে নিয়ে গিয়ে খাওয়াবেন '। আমার রুমমেইট ভাগ্য অনেক ভাল বলতে হবে। পাশের বাসার এক ছেলের সাথে পরিচয় হল। জানা গেল সে বিজ্ঞান কলেজের ইংরেজি শিক্ষিকা রোকেয়া আপার ছেলে তরুন। আমাদের এক ব্যাচ আগেই সে বিজ্ঞান কলেজ থেকে পাশ করেছে। বাবার প্রচুর আছে। ভিসা পেয়ে গেল এক দুই তিন। কিন্তু কলেজে যায় না। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব। শুরু হল এক মজার চরিত্রের উদঘাটন।

মাস গড়িয়ে বছর যায়, বছর গড়িয়ে যুগ। যুগের হাওয়ায় মিশে যায় আমাদের অন্যজীবন। কঁচুরী পানার মত ভেসে যাই এক নদী থেকে অন্য নদীতে। মাঝেমাঝে মনে হয়, আমার জন্ম যদি বাংলাদেশে না হয়ে জাপানে হত – তবে কি আমার দেশ ছাড়তে হত! হয়ত না। তাহলে এটা কেমন দেশ যেখানে নিজের মানুষরা থাকতে পারবে না; কেমন দেশ যেখানকার প্রধান মন্ত্রীকে অন্য দেশের দরজায় গিয়ে ভিক্ষা চাইতে হয় – দয়া করে যেন তারা আমাদের লোক নেয়া বন্ধ না করে। কেমন বাঙালি জীবন আমার? অনেক সময় ইচ্ছা করে তাছিল্যে করে বলি – ঠিক, ‘এমন দেশটি কোথাও খুজে পাবে নাকো তুমি’।



আগেরটা দেখতে চাইলে
(আরও অনেক দিন চলবে)

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পিনাটবাটার জেলি!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সেটাও কি এত সহজ?

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার জন্ম যদি বাংলাদেশে না হয়ে জাপানে হত – তবে কি আমার দেশ ছাড়তে হত!


Sad Sad Sad Sad Sad

___________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দরিদ্র দেশের জন্মার শাস্তি অনেক বেশি

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভাল লেগেছে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সাথেই থাকেন

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Sad Sad Sad Sad Sad Sad


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হুম - Sad

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Sad

----------------------------------
© সমান্তরাল ®


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমিও

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভাল হচ্ছে। চালিয়ে যান।
আসলে স্রম বাজারে অশ্রদ্ধার কিছু নেই। যে যা করছি। যতটুকু করছি। যেভাবেই করছি। যে দেশেই করছি। তাতেই নিজের সন্তুষ্টি থাকলে জীবনে আর কোন কিছু চাইনা।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
আমি ঘরে ফিরবো, কিন্তু ফিরতে গিয়ে দেখলাম আমি বাড়ি ফিরেছি। আমার ঘরে ফেরা আর হল না...(সংগৃহীত)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

তালিয়া smile :) :-)

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ইনহাস্ত ওয়াতানাম!

আপনার এ লেখাটা পড়ে শুধু একথাটাই মনে হল।


চালিয়ে যান। অনেক কিছু জানা হচ্ছে।

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
ন্যায়ের কথা বলতে আমায় কহ যে
যায় না বলা এমন কথা সহজে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শেখের পো

ইনহাস্ত ওয়াতানাম!


এর মানে কি?

..................................................................

বারান্দা জুড়ে হাসি অচেনা চোখের জল
বিকেলের শরীর ছুঁয়ে আমার কবিতা চঞ্চল
.. .. .. .. ..
শুধু কবিতাটুকু সত্যি আর সব মিথ্যে নামে আসে
ওই আকাশটাকে দেখো- সে কবিতাই ভালোবাসে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এর মানে বোধ হয় "এই তো আমার স্বদেশ।" এই কথাটা বাংলায় বললে কি ক্ষতি ছিলো কে জানে?

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শেখের পো মনে হয় উত্তর দিবেন

"I am the way, the truth, the life" - Horus ~


সিগনেচারটা বাঙলায় দিলে কি ক্ষতি হতো কে জানে?

..................................................................

বারান্দা জুড়ে হাসি অচেনা চোখের জল
বিকেলের শরীর ছুঁয়ে আমার কবিতা চঞ্চল
.. .. .. .. ..
শুধু কবিতাটুকু সত্যি আর সব মিথ্যে নামে আসে
ওই আকাশটাকে দেখো- সে কবিতাই ভালোবাসে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Laughing out loud

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংলায় এটার মূল্ভাব প্রকাশ করা আমার কম্ম না। আপনার সাহায্য প্রার্থনা করছি।

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার সাহায্য কামনা করছেন তো মরছেন- আমি অহন নিজেই নিজেরে সাহায্য করতে পারতেছি না।

..................................................................

বারান্দা জুড়ে হাসি অচেনা চোখের জল
বিকেলের শরীর ছুঁয়ে আমার কবিতা চঞ্চল
.. .. .. .. ..
শুধু কবিতাটুকু সত্যি আর সব মিথ্যে নামে আসে
ওই আকাশটাকে দেখো- সে কবিতাই ভালোবাসে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মনটা খারাপ করে দিলেন। Sad Sad

..................................................................

বারান্দা জুড়ে হাসি অচেনা চোখের জল
বিকেলের শরীর ছুঁয়ে আমার কবিতা চঞ্চল
.. .. .. .. ..
শুধু কবিতাটুকু সত্যি আর সব মিথ্যে নামে আসে
ওই আকাশটাকে দেখো- সে কবিতাই ভালোবাসে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আরে দুর, ব্যাপার না - মারুফ কেমন আছ?

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আছি কোনো রকম।

..................................................................

বারান্দা জুড়ে হাসি অচেনা চোখের জল
বিকেলের শরীর ছুঁয়ে আমার কবিতা চঞ্চল
.. .. .. .. ..
শুধু কবিতাটুকু সত্যি আর সব মিথ্যে নামে আসে
ওই আকাশটাকে দেখো- সে কবিতাই ভালোবাসে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@শেখের পো,

'ইনহাস্ত ওয়াতানাম'! - কি সুন্দর কথা - এইত আমার স্বদেশ।

ইউ আর ইন্ডিজিয়াস।

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এক সময় আমারো মনে হইত আহা রে আমি অন্তত জাপান বা হয়ত ভারতীয় হইলেও দেশ ছাড়তে হইত না। এখন উলটা মনে হয় ভাগ্যিশ বাংলাদেশেই জন্ম হইছিল না হইলে দেশ ছাড়তে এতটা উন্মাদ হইতাম না আর কাফের নাছারার দেশের মজা টেরই পাইতাম না।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংলাদেশেই জন্ম হইছিল না হইলে দেশ ছাড়তে এতটা উন্মাদ হইতাম না আর কাফের নাছারার দেশের মজা টেরই পাইতাম না।
বিশেষ করে সামারে Wink

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

তিন-চার দিন আগে নিউ ইয়র্ক টাইমসের ফ্রন্ট পেজে একটা আর্টিকেল পড়েছিলাম, যে ভারতীয় আমেরিকান সেকেন্ড জেনারেশনের ছেলেমেয়েরা বিপুল পরিমানে ভারতে চলে যাচ্ছে আমেরিকার চেয়ে ভালো চাকরী, ভাল ব্যবসা শুরু করার সু্যোগের জন্যে। এতোদিন এটা ছিলো কেবল পরিচিতদের মধ্যে শোনাকথার ব্যপার। কিন্তু এখন এটা স্ট্যাটিসটিক্যালি সিগনিফিক্যান্ট রিভার্স মাইগ্রেশন। বছরে এখন প্রায় ১ লাখ অভিবাসী দেশে ফিরছে।

বাংলাদেশের ক্ষেত্রে এই হিসাবটা কি? আমার তো মনে হয় মানুষ আরো পাগলপারা হয়ে যাচ্ছে দেশ ছাড়ার জন্যে। ইয়ং জেনারেশনের অভিবাসী বাংলাদেশী ছেলেমেয়েদের কাউকে দেখেছেন দেশে ফেরার কথা ভাবছে?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@লেলিন,

ভারতিয়দের নিয়ে যা বললেন - ১০০ ভাগ সত্য।

বাংলাদেশ সেই পরিমানে আগায় নাই। সময় লাগবে। অনেক সময় - হাসিনা খালেদা বিদাই, পরের জয়, জিয়ার বিদাই, পরেও আরও একশ বছর হাতে ধরে রাখেন। ততদিনে দুনিয়া থাকে কিনা!

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভারতীয়দের ফেরত যাবার হার সব সময়ই বেশ ভাল। কম হলেও কিছু পাকিস্তানীও কাফের নাছারার দেশ হজম করতে না পেরে ফেরত যায়। বাংগলাদেশীদের মধ্যেই মনে হয় ফেরত যাবার হার সবচেয়ে কম। ভারতীয়দের চাকরি হারিয়ে দেশে ফেরত যেতে হলে আমাদের মত সর্বহারা কান্না করতে কোনদিন দেখিনি। বাংগালী কান্না দিলে দোষও দেওয়া যায় না, আমি নিজেও দেব।

ভারতীয়দের নিজ দেশ কালচার নিয়ে গর্ব অনেক বেশী, মেকি নয়; শ্রদ্ধাও বেশ বেশী যেটা সফল ভাবে পরবর্তি জেনারেশনে ছড়িয়েও দিতে পারে; বাংগালী এখানেও বেশ ব্যার্থ। প্রবাসীরা কালচার বলতে ছেলেমেয়েকে যা শেখায় তা হল মূলত ধর্মীয় কালচার যেটা দিয়ে দেশপ্রেম হয় না।

সাম্প্রতিক সময়ের অর্থনীতির ডিগবাজিতে চাকরি হচ্ছে ভারতে/চীনে, তারা আরো বেশী করে যাবে এটাই স্বাভাবিক।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আসলে ভারত শুধু অর্থনৈতিক উন্নতিই করছে না নাগরিকদের জীবনের মানেরও উন্নতি ঘটাচ্ছে। চিকিৎসা, শিক্ষা, আইন-কানুন, চাকুরী, ব্যবসা, বিনোদন সবকিছুতেই শিক্ষিত ভারতীয় মধ্যবিত্ত দেখছে যে তাদের জীবন প্রতি বছর আরো ভালো হচ্ছে। এদিকে বাংলাদেশের খবর কি? টাকা পয়সা উপার্জনের অনেক সু্যোগ বাড়লেও, জীবনের মান ক্রমেই অনবতি ঘটছে। বিশেষ করে বিদেশে থাকার পরে ঢাকায় ফিরে যাবার মতো সাহস পাওয়া খুবই রেয়ার।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেশ নাকি বিদেশ এই বিতর্কে বেশীরভাগ লোকেই এই ভুল করে, মোটামুটি এটাই সনাতন ধারনা যে বিদেশে মানুষে টাকার জন্য থাকে। আসলে যে আপত চোখে টাকা মনে হলেও শুধু টাকা নয় সোশাল সিকিউরিটি বড় ব্যাপার এটা অনেকেই বোঝে না, যা আমাদের দেশে টাকা থাকলেও পাওয়া যায় না। দেশে এখন অনেকেই এমন ইনকাম করে যা প্রায় ট্যাক্স কাটার পরে আমি হাতে যা পাই তার কাছাকাছি। মানুষের ইনকাম অনেক বেড়েছে, জীবন যাত্রায় শান শওকতও অনেক বেড়েছে। এক সময় গাড়ি মানে ছিল বড়লোকের ব্যাপার, এখন মধ্যবিত্তও বলতে গেলে গাড়ি ছাড়া কেউ নেই বলে মনে হয়। অন্যদিকে সোশাল সিকিউরিটি দিন দিনই কমছে। ফলে যে দেশে যে উচ্চ বেতনে কাজ করে বলে যে দেশেই খুব ভাল আছি সেও বিদেশের ইম্মিগ্রেশন নিয়ে রাখে। কেউ কেঊ আবার পারলে বিদেশে এসে সন্তান জন্ম দেওয়ায় যাতে তার বড় হয়ে ওয়ে আউট থাকে।

আমাদের এখানে বহু পরিবার আছে যাদের পরিবার থাকে এখানে, কর্তা দেশে। উচ্চ বেতনে চাকুরি করে এভাবেই দোটানার মাঝে চালিয়ে যাচ্ছেন।

ভারতীয়দের জীবন যাত্রার মান অনেক ভাল, লিভিং কষ্ট ইনকামের সাথে বেশ সামঞ্জস্যপূর্ন ফলে মধ্যবিত্তেরও চাকচিক্য না থাকলেও সমস্যা হয় না। চিকিতসা, শিক্ষা সব কিছুই আন্তর্জাতিক মানের, আমেরিকা ইংল্যান্ড থেকে লোকে যায় কম খরচে চিকিতসা করাতে। আইন শৃংখলার অবস্থাও আমাদের থেকে বহুগুনে ভাল।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বিশেষ করে টরেন্টো তো মনে হয় ভরে গেছে এরকম ডুয়াল পরিবারে। আমার কাছের একজন আত্মীয় বাংলাদেশের সবচেয়ে বড়ো ৫ জন গার্মেন্টস ব্যবসায়ীর একজন হবেন। তার স্ত্রী একমাত্র হাইস্কুল পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে টরেন্টোতে থাকছেন। তিনি বলেন তার বন্ধু ব্যবসায়ীদের সবাই কানাডায় ইমিগ্রেশন নিয়ে রেখেছেন। বাংলাদেশে এখন কোটি কোটি টাকা খরচ করেও উন্নত জীবন কেনা সম্ভব হয় না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অসংখ্য পরিবার আছে এমন। কানাডা সরকারও এসব উন্নয়নশীল দেশের লোকের ইমিগ্রেশনের লালচ ব্যাবহার করে দারুন এক খেলা খেলে আসছে। ইমিগ্র্যান্টরা তাদের সারা জীবনের সম্পদ নিয়ে আসে সোজা হিসেব, এরা এসে মার্কেট সয়লাব করলে লেবার মার্কেটেও চিপ লেবার কোন সমস্যা নেই। বেহুদা বেহুদা বহু লোককে ইমিগ্রেশন দিয়ে এনেছে, সম্প্রতি যদিও বেশ কড়াকড়ি করেছে অবশেষে। এর ফলাফল হল রিয়েল ষ্টেট মার্কেট সর্বদা উর্ধমুখি যার সাথে ইনকাম লেভেলের কোন সম্পর্ক নেই, জব মার্কেট বা ইকনোমিরও সম্পর্ক নেই; কারন হংকং বা মিডল ঈষ্ট থেকে আসা লোকে ক্যাশে বাড়ি কিনতে পারে।

লোকে আধা বুড়া বুড়া বয়সে এসে কিছু করতে পারে না, পরিবার দেখে নিজেরা চলে যায়। টরন্টোর কয়েকটি এলাকা আছে পুরো এই শ্রেনীর পরিবারে ভর্তি, নীচে একটা দেখেন বেগমপুরা নামে যেটা পাকিস্তানীদের পরিবার।
http://www.thestar.com/news/article/998962--colony-of-wives-thrives-in-mississauga?bn=1

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমাদের দূরবস্থার জন্য আমরাই দায়ী।

দেশে চলছে রাজনৈতিক খেলা। হরিলুটের দল হানাহানি করছে শাসন করতে অথবা শোষন করতে। কেউ চেষ্টা করছে না দেশের ভাল কিংবা উন্নয়ন করতে।

পাছার মত দেশ এখন দুই ভাগে বিভক্ত। হয় আমিলীগ না হয় বিম্পি। এই দুই দল আবার চালায় লুটতরাজেরা কিংবা সন্ত্রাস মদদ দানকারিরা। দুই একজন ভাল মানুষ শো হিসাবে রাখা হয়।

এই সন্ত্রাসী কিংবা সন্ত্রাসীদের লালন পালন কারিদের ছাড়া আবার দলও চলবে না। দুটি কারন - এক প্রতিপক্ষ দলে পেশিশক্তিতে বড় হয়ে যাবার ভয়। দুই, এই আজাইরা লাফালাফি ঝাপাঝাপি আরে কে করবে? অর্থাৎ মাঠে থাকবে কে?

এইসব নানা জটিলতায় দেশ দিনদিন রসাতলে যাচ্ছে। আরও যাবে। পাচ বছরে একদল সরকারে থেকে পেট পুরে নিচ্ছে। খিদায় অন্যদলের পেট জ্বলে যাচ্ছে। ভুভুক্ষ দলকে আবার ক্ষমতায় আনা হবে। তারা খেতে খেতে শুয়রের মত চর্বি জমাবে। বিরুধীদের ততদিনে ক্ষিদা পেয়ে যাবে। তারা আবার শুরু করবে রাজপথে হানাহানি। বর্তমান বাঙালির ভাগ্য বলতে এটাই ধ্রুব।

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মৌলিক সমস্যাটা কোথায়? বিদেশের কথা মানে বিলাত আমেরিকার কথা বাদ থাক। ভারতেও তো রাজনৈতিক দলগুলির হাড্ডাহাড্ডি লড়াই ভালই চলে। তারা আমাদের বিএনপি আওয়ামী লীগের মত এত নীচে কেন নামে না?

সমস্যা কি আসলে শুধু দুই মহিলা বা দুই রাজনৈতিক দলের নাকি আরো গভীরে?

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আরও গভীরে। অনেক গভীরে। কিন্তু দিন দিনও আরো ডিপে চলে যাচ্ছি। এত গভীরে যাচ্ছি যে শ্বাস ফেলার জায়গা পাব না। Sad

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেশ যতদিন শেখ ও জিয়া নামক দুই কুপরিবারের রাহুমুক্ত না হতে পারবে, ততদিন এ দেশে কোন স্বাভাবিকজীবন ধারা ফিরে আসবে না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

তবুও মন কাঁদে দেশের জন্য, চোখ ভিজে যায় দেশের জন্য। এত বেশী কেন ভালবাসি দেশটাকে!!

‍‍‌‍‍‍‍**********
স্বপ্নের কারিগর


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কারন এই মাটি

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ইনহাস্ত ওয়াতানাম!

শেখের পোর সাথে একমত আর কিচ্ছু বলার নাই।
পাভেল ভাই লেখা ভাল হইতাসে

................................................................................................
আমার ঈশ্বর জানেন- আমার মৃত্যু হবে তোমার জন্য।
তারপর অনেকদিন পর একদিন তুমিও জানবে,
আমি জন্মেছিলাম তোমার জন্য। শুধু তোমার জন্য।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মানে শিখেছি

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সাথে আছি।

_____________________

ক্ষুদ্র স্বার্থ ভুলে মুক্তির দাঁড় টান।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

smile :) :-) smile :) :-)

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেশ ছাড়ার অনুভূতি ভাল বা খারাপ দুইটাই হতে পারে কিন্তু ছাড়তে বাধ্য হবার অনুভূতি শুধুই কষ্টের।
ভাল হোক আপনার।

__________________________________
শোনহে অর্বাচিন, জীবন অর্থহীন.............


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মন্তব্য ভাল লাগল

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আগের পোস্টের লিঙ্ক না থাকলে কী কইরা বুঝতাম যে কোনটা পড়িনাই?


এবং শেষটায় সত্যিই মন খারাপ হইলো

---------------------------------
লাইগ্যা থাকিস, ছাড়িস না!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নাইচ ফিডব্যাক - এডিট মারলাম

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পড়লাম । জানলাম তবু ,,,,,,,,,,,,,,,,,

****************
????????????
--------------------


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ঠিক তবুও বাংলা ভালবাসি

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

(আরও অনেক দিন চলবে)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Laughing out loud Tongue Tongue Wink

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পাভেল ভাই আমি আপনার উপর ১০০ তে ২০০ রেগে আছি, অ্যামেরিকার জঘন্য বিষয় গুলা কেন যে আপনি লেখায় বলেন না সেটা আমি বুঝলাম না।
আপনার কখনও ইঁদুর, তেলাপোকা, ছারপোকা এবং কুকুর বেড়ালের হাকুর যন্ত্রণা পোহান নাই। এমনিতেই আমার মনে হয় আমি আমেরিকা না ছুঁচার গর্তে ঢুকে বসে আছি। তার উপর এই চার বস্তুর যন্ত্রণায় জান যায় যায়।

""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""
স্বেচ্ছায় নেওয়া দুঃখকে ঐশ্বর্যের মতই ভোগ করা যায় ........................


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নিউ ইয়র্কে আমি একবারই গেছিলাম, এক বন্ধুর বাসায় ছিলাম। তার বাসার হাল দেখে বলতে বাধ্য হয়েছিলাম, তুই দেশেই অনেক ভাল ছিলি, বিদেশ এসে তোর লিভিং ষ্ট্যান্ডার্ড অনেক নেমে গেছে। আমি তেমন বিলাসী বা খুতখুতা লোক নই, তার বাসার অবস্থা দেখে আমারও রীতিমত ঘিন্না লেগেছিল, আমাদের দেশের চতুর্থ শ্রেনীর কর্মচারীদের বাসার কথাই মনে পড়েছিল।

পাভেল ব্রাদার রাগ করলে করেন গিয়া। আমি সত্যের সেনানী...

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কি যে জঘন্য অবস্থা বলে বোঝানো যাবে না। ইঁদুর তেলাপোকার হাকু পরিষ্কার করে বমি করতে করতে যান শেষ।

""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""
স্বেচ্ছায় নেওয়া দুঃখকে ঐশ্বর্যের মতই ভোগ করা যায় ........................


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংলাদেশীরা কেনো যে কামড়ে কুইনস-জ্যামাইকা ধরে থাকে বুঝি না। ভারতীয়রা অনেক আগেই তাদের এই ঘেটো-বস্তিতে থাকার অভ্যাস ত্যাগ করে বিভিন্ন স্টেটে ছড়িয়ে পড়েছে। জ্যামাইকাতে গেলে বাংলাদেশী, আফ্রিকান আর হিস্পানিক ছাড়া আর কোনো রকম লোক দেখি না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হুম
একদম সত্যি----
আমি ধান্দায় আছি অন্য স্টেটে যাওয়ার---

""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""
স্বেচ্ছায় নেওয়া দুঃখকে ঐশ্বর্যের মতই ভোগ করা যায় ........................


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার কাছেও বিরাট রহস্য মনে হয়। নিউ ইয়র্কের লিভিং ষ্ট্যান্ডার্ড আর অন্য যায়গাগুলির ষ্ট্যান্ডার্ড আক্ষরিক অর্থেই আকাশ পাতাল তফাত। আমি টেক্সাস ফ্লোরিডা কলোরাডোতে থেকেছি, আমার কাছে তূলনারও যোগ্য মনে হয় না নিউ ইয়র্ক। তবে কথিত আছে নিউ ইয়র্কের মাটি খুব নরম, বাংগালীরা খুব সহজেই গেড়ে যায়।

আমার সেই বন্ধুকে কড়া ঝাড়ি দিছিলাম এখান থেকে বের হয় না কেন। তার কথা ছিল এখানে সে রাত দশটায় বাংগালী দোকানে চা নিয়ে আড্ডা দিতে পারে। মজার ব্যাপার হল নিউ ইয়র্কবাসি বাংগালীদের নিউ ইয়র্কের বাইরের লিভিং ষ্ট্যান্ডার্ড নিয়ে ধারনা অনেকটা ঢাকাবাসির ছাগলনাইয়া সম্পর্কে যেমন ধারনা তেমনই।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংগালিরা কুইন্স, ব্রঙ্কস, জামাইকা আর ব্রুকলীনে থাকে কারন এইসব এলাকা থেকে সিটি এক্সেস করা সহজ। পাবলিক সার্ভিস ট্রান্সপোর্টেশন ভাল সস্তা ও সহজ লভ্য।

ভারতীয় যারা নন প্রফেশনাল, তারাও এইসব অঞ্চলে থাকে। আমি থাকি কারন ঘর থেকে বেরুলেই বাংগালি দেখতে পাই, মনে হয় দেশেই আছি। smile :) :-)

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পাভেল ব্রাদার রাগ করলে করেন গিয়া। আমি সত্যের সেনানী...


রাগের প্রশ্নই আসে না। যা সত্য তার সামনা সামনি হতে পারলে লিখে কি হবে?

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নিউ ইয়র্কে বাসিদের আবার ইগো সমস্যাও দেখছি মারাত্মক Laughing out loud , তাই ডরাইছিলাম।

নিউ ইয়র্ক আমার লিষ্টের এক নম্বরে যেইসব যায়গায় আমি কোনদিন থাকতে যামু না। টরন্টোও যে খুব প্রিয় তা অবশ্য না, তবে চলে।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

৪ বছর আগে টরান্টো গেছিলাম। খুব অল্প সময় নিয়ে। তখন রচেষ্টারে থাকতাম।

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বেশী সময় নিয়া আসেন, আপনের বিগত যৌবন আবার ফিরা আসবে, এখন সুদিন, সামার আইতাছে Tongue

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

Laughing out loud

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বিদেশে চতুর্থ শ্রেনীর নাগরিকের জীবনযাপন করতে হলেও মানুষ এখন সেটাই বেছে নিতে চাইবে। আর কিছু না হোক নিজের ও সন্তানের জীবনের নিরাপত্তাটাতো আছে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বিদেশে চতুর্থ শ্রেনীর নাগরিকের জীবনযাপন করতে হলেও মানুষ এখন সেটাই বেছে নিতে চাইবে। আর কিছু না হোক নিজের ও সন্তানের জীবনের নিরাপত্তাটাতো আছে।

আমার অবস্থা অতটা খারাপ না। তবু আমি আমার ঘরে ফিরতে চাই। যতই নিজের ও সন্তানের জীবনের নিরাপত্তাটাতো থাক।

""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""""
স্বেচ্ছায় নেওয়া দুঃখকে ঐশ্বর্যের মতই ভোগ করা যায় ........................


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ডিবি বন্ধ হয়ে গেছেত তাই।

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভাবনাটা অনেকটা "আমার যদি বড়লোকের ঘরে জন্ম হত" ধরনের হল।
আমি গরিব ঘরে জন্ম নিয়েছি, তাতে আমার আক্ষেপ নেই।

~-^
উদ্ভ্রান্ত বসে থাকি হাজারদুয়ারে!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এক না

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'

glqxz9283 sfy39587p07