Skip to content

সোহাগ চাদবদনী সখী নাচো তো দেখি-একটি আইজুদ্দিনীয় বাল ছাল অবজার্বেশন

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাজারে একটা গুজব আছে যে আমি বলে নাস্তিক! সব রটনার পিছে একটা ঘটনা থাকে মাগার কেইস হইলো এ বিষয়ে কুনো ঘটনা নাই আমি বেফক ইশ্বর বিশ্বাসী মানুষ- সে বিশ্বাসে সালমান রুশদির সেটার্নিক ভার্সেসে কেচড়াও লাগেনা আবার গাছের পশ্চিম দিকে সিজদা দিলে বিশ্বাস বাইরা যায়না। এ বিশ্বাস পুরাই ব্যাক্তিগত। কিন্তু আমি সংখ্যা লঘু মানুষ, দুনিয়ার বেশীর ভাগ মানুষের বিশ্বাস হইলো গিয়া সংঘবদ্ধ। এখন এ সংঘবদ্ধ বিশ্বাস টিকা আছে একটা সোজা হিসাবের উপরে সেটা হইলো গিয়া


95:4 Verily, We created man in the best form.
95:5 Then We reduced him to the lowest of the low.
95:6 Save those who believe and do righteous deeds. Then they shall have a reward without end.
95:7 Then what causes you to deny after this the Recompense?
95:8 Is not Allah the best of judges?
সুরা ত্বীন আয়াত ৪-৮

সুরা ত্বীনের এ আয়াত ধইরা বলা যহয় মানুষ আশরাফুল মাখুলকাত- আল্লাহর বানানি সেরা জীব- এ আশরাফুল মাখুলকাতের জন্য দুনিয়া, এবং সর্বোপরি কেয়ামতের জন্ম। আল্লাহ এক এবং অদ্বিতীয়, মোহাম্মদ আল্লাহর রাসুল- লাই লাহা ইল্লালহ মোহাম্মদে রাসুল্লাহ- ইসলামে মুল মন্ত্র এইখানে- মানব জাতির পরিত্রাণের জন্য আল্লাহ যুগে যুগে নবী রাসুল পাঠাইসেন, দুনিয়া বানাইসেন, চাদ এবং সুর্য বানাইসেন- সব সৃষ্টিকার্যের নিমিত্ত মানব জাতি। এ ব্যাপারে আমাদের সংঘবদ্ধ বিশ্বাসীদের কোন আপত্তি নাই বইলা জানি।

আরো জানি যে এতদিন ধরে মানব জাতি জানত এ মহাবিশ্বে তারা এক এবং পৃথিবী অদ্বিতীয় আবিষ্কার। কিন্তু এ মুহুর্তে আবিষ্কার করা গ্রহের সংখ্যা হইল গিয়া ৭৬৩ টা। মিল্কি ওয়ে গ্যালাক্সির ১০০ বিলিয়ন ষ্টারের প্রতিটা গড়ে ১ দশমিক ৬ টা গ্রহ থাকতে পারে বইলা ধারনা করা হয়। আবিষ্কার করা ৭৬৩ টা গ্রহের মইদ্যে শতকরা ৪ দশমিক ১ ভাগ গ্রহে প্রান থাকতে পারে বইলা মনে করা হয়। পানি ওয়ালা গ্রহ কিংবা উপগ্রহ তো আমাদের সৌরজগতে আবিষ্কার করা হইসে। তাই এটা বলা অতিশোয় হবেনা যে অন্য গ্রহ বা সৌর জগতে প্রান আবিষ্কার করা এখন আর যদির প্রশ্ন না বরং পরিসংখ্যাগত বাস্তবতা। কিন্তু যদি বুদ্ধিমান প্রানী পাওয়া যায় তাহলে কি হবে? যদি সে বুদ্ধিমান প্রানী মানুষের চেয়ে বুদ্ধিতে সেরা হয়। এ ভিন গ্রহের প্রানীদের জাগতিক অর্জন যদি মানুষের চেয়ে বেশী হয় তখন কি কোরানের আয়াতের অসারতা প্রমান হবে?

কোরান এবং বাইবেলে ধর্মীয় তালিমে মানবজাতির মোক্ষ লাভ হবে কেয়ামতের পরে। কেয়ামতের দিন কেউবা রোজ হাশরে পুল সিরাত পার হবেন, কেউবা যীশুর আলখাল্লায় সাথে ঝুলে আল্লাহ তালা অনুকম্পা আদায়ে ব্যস্ত থাকবেন। কেয়ামত দুনিয়া ধ্বংস হবে, মানবজাতির বেহেশত কিংবা দোজকে যাবে কিন্তু সেখানে অন্য গ্রহের কোন বুদ্ধিমান কোন প্রানী নাই- এখন সে বুদ্ধিমান প্রানীর গ্রহ যদি আবিষ্কার হয় তাহলে কি সংঘবদ্ধ ধর্মীয় বিশ্বাসের অস্তিত্বের সংকট দেকা দিবে?

তর্কের খাতিরে যদি মেনে নেই হজরত মুসা, হজরত ইব্রাহীম, হজরত ইসা এবং হজরত মোহাম্মদ সকলই আল্লাহর প্রেরিত পুরুষ মানব জাতির জন্য তাইলে ভিন্ন গ্রহের জন্য কি আল্লাহর আরো প্রেরিত পুরুষ আছে-তাদের অগ্রগণ্যতা কি মানব জাতির প্রেরিত পুরুষদের উপরে না নীচে- মানব জাতির বাইবেল কিংবা কোরান কি এ ভিন্ন গ্রহের বুদ্ধিমান প্রানীদের জন্য বলবত হবে না তাদের ধর্ম গ্রন্হের হিসাব অন্য।

পরিসংখ্যানগত ভাবে বলা যায় অপার্থিব জীব জগত আবিষ্কারের শুধু মাত্র সময়ের ব্যাপার। আমরা যে কোন সময়ে বৈজ্ঞানিক আবিষ্কার টি পেতে পারি। কিন্তু ভিন গ্রহের এ বুদ্ধিমান মানুষদের সাথে আমাদের সংঘবদ্ধ ধর্ম বিশ্বাসের কি হবে? আমাদের ধর্ম বিশ্বাসে তাদের অবস্হান কি? পবিত্র পুরুষদের সাথে এ বিজ্ঞানসম্মত বিশ্বাসের মুলধার কিভাবে রচিত হবে? ইশ্বর কিংবা আল্লাহর সাথে আমরা কিভাবে যোগ সুত্র এ নতুন বুদ্ধিমান কিংবা আশরাফুল মাখলুখাতের?

শেষ নবী হজরত মোহাম্মদ উদ্ধারের বার্তা নিয়ে আসছিলেন দুনিয়ার আশরাফুল মাখলুখাতের জন্য মাগার সে বার্তা কি ভিন গ্রহের প্রানীর জন্য একই থাকবে। কোরান যে সমাজ ব্যবস্হার কথা বলে - ভিন গ্রহের এ প্রানীদের জন্য কি একই সমাজ ব্যবস্হা প্রচলিত হবে? আল্লাহর কাছে মানুষ আশরাফুল মাখুলকাত বেশী আদরের হবে নাকি এ ভিন গ্রহের নতুন প্রানী বেশী আদরের হবে? পাপের মান কি হবে এ ভিন গ্রহে ? আমরা যাকে পাপ মনে করি সেটা কি পাপ হবে? রসুল্লাহ পুর্ব সমাজ ব্যবস্হা কি পাপ ধরা হবে? ব্যাক্তিগত সম্পর্কের মান কি হবে?

আশরাফুল মাখুলকাতের এ সংঘবদ্ধ ধর্ম বিশ্বাস গত ২,০০০ বছর ধইরা টিকা আছে- এবং এ সংঘবদ্ধ ধর্ম বিশ্বাসের মুলে আছে আমি সৃষ্টির সেরা জীব এবং আমার মোক্ষ লাভের জন্য আল্লাহ দুনিয়া বানাইসেন। কিন্তু যেদিন দেখা যাবে এ মহাবিশ্বে তথাকথিত আশরাফুল মাখুলকাতের উপরে মাস্তান আছে- তারা আমাদের চেয়ে বুদ্ধিতে বড়- তাদের প্রাপ্তি আমদের চেয়ে বেশী সেদিন সংগঠিত ধর্ম বিশ্বাসের পতন ঘটবে কেননা সেদিন আর আমি আল্লাহর একমাত্র পিয়ারা না-আল্লাহ বিশ্বাস আমারে ঘিরা আর আবর্তিত হবেনা। সেদিন সংগঠিত ধর্ম বিশ্বাসের শেষ দিন।

তবে সংগঠিত ধর্ম বিশ্বাসের দিন শেষ হলেও, ব্যাক্তিগত ধর্ম বিশ্বাস টিকে থাকবে। কারন ব্যাক্তিগত ধর্ম বিশ্বাসের জন্য আমাকে আশরাফুল মাখলুকতা হতে হবেনা- প্রেরিত পুরুষদের ধ্বজ্জাধারী হতে হবেনা। ব্যাক্তি ইশ্বর বিশ্বাসের সাথে যে কেয়ামতের বিচারের দিনের সম্পর্ক নাই। যে সংগঠিত ধর্ম বিশ্বাস গত ২০০০ হাজার বছর ধরে মানবজাতির ইতিহাসের অংশ হয়ে রয়েছে তার পতন ঘটবে কারন ধর্ম আর কাউকে শেষ বিচারের দিনের কষ্টি পাথরে যাচাই করতে পারবেনা বলতে পারবেনা তুমি আশরাফুল মাখলুকতা তাই তোমার পাপ পুন্যের জন্যই এ পার্থিব দুনিয়া।

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ব্যাক্তিগত বিশ্বাস না ব্যাক্তিগত ফিলিংস?

ব্যাক্তিগত বিশ্বাস আবার ধর্ম হয় কিভাবে? ধর্ম মানেই সংগঠিত বিশ্বাস।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, সংঘবদ্ধই হউক আর ব্যক্তিগতই হউক, ধর্ম বাদ দিয়ে আমাদের সামনে তাকানো উচিত (তবে ব্যক্তিগত ব্যাপার, ব্যক্তিগত ব্যাপারই)।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মানুষের সবচেয়ে বড় সৃস্টি ধর্ম।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ডাক্তার সাব, আপনি কি বিবর্তন তত্বকে বৈজ্ঞানীক তত্ব হিসাবে স্বীকার করেন? যদি করেন তবে ভিনগ্রহে বুদ্ধিমান প্রানী আবিস্কার করা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে কেন?

বিজ্ঞানের আলোকে মানুষ কি আশরাফুল মাখলুকাত? সংঘবদ্ধ ধর্মের অবস্থাই বা কি দাড়ায়? আপনার উত্তরাটা জানতে আগ্রহী।

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ডাক্তার সাব, আপনি কি বিবর্তন তত্বকে বৈজ্ঞানীক তত্ব হিসাবে স্বীকার করেন? যদি করেন তবে ভিনগ্রহে বুদ্ধিমান প্রানী আবিস্কার করা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে কেন?

বিজ্ঞানের আলোকে মানুষ কি আশরাফুল মাখলুকাত? সংঘবদ্ধ ধর্মের অবস্থাই বা কি দাড়ায়?


প্রশ্নের মধ্যেই উত্তর নিহিত। ধন্যবাদ প্রিয় ব্লগার।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এইসব বা×ছা× পোস্ট আরো চলুক। শাবাশ ডাক্তারের প্রেস (ক্রিপশন) রিলিজ! Wink


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এ ভিন গ্রহের প্রানীদের জাগতিক অর্জন যদি মানুষের চেয়ে বেশী হয় তখন কি কোরানের আয়াতের অসারতা প্রমান হবে?

না হবেনা। তখন জাকির নায়েক ব্যক্ষা দিবেন, আসলে সেই ভিনগ্রহের প্রানীরাই সেই মানুষ, যার কথা কুরানে বলা হইছিল।
দেখেন না, যাই আবিষ্কার হয়, তাই নাকি কুরানে অনেক আগেই লিখা ছিল বইলা চারিদিকে কোটি কন্ঠের সুবহান্নালাহ উচ্চারন?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আনুমানিক তথ্য নিয়ে কি আর প্রমানিত হবে ?

" মুক্তি এখনো আসে নি, বিপ্লব অপেক্ষমাণ "


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পুরাই ছক্কা পোষ্ট!!

_____________________

ক্ষুদ্র স্বার্থ ভুলে মুক্তির দাঁড় টান।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পোস্ট ভালা পাইলাম।

*************************************************************************************
আমি অতো তাড়াতাড়ি কোথাও যেতে চাই না;
আমার জীবন যা চায় সেখানে হেঁটে হেঁটে পৌঁছুবার সময় আছে,
পৌঁছে অনেকক্ষণ বসে অপেক্ষা করবার অবসর আছে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অনেক ভাবার উপাদান।

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

যে সব মুমিনেরা পুরানের কলকি দেবতারে মুহাম্মদ বানায়ে ফেলতে পারে তাগো কাছে এলিয়েনরে আশরাফুল মাখুলকাত বানায়ে ফেলটা দু মিনিটের খেইল মাত্র ।

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পুরাই পাঙ্খা।

..................................................................

বারান্দা জুড়ে হাসি অচেনা চোখের জল
বিকেলের শরীর ছুঁয়ে আমার কবিতা চঞ্চল
.. .. .. .. ..
শুধু কবিতাটুকু সত্যি আর সব মিথ্যে নামে আসে
ওই আকাশটাকে দেখো- সে কবিতাই ভালোবাসে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দুর্দান্ত পোষ্ট! স্যালুট!! শুধু একটা ব্যাপার ঠিকমতো বুঝলাম না, ছাগলসমৃদ্ধ প্রদত্ত ছবিটার মহাত্ম কি?

_____________
কবে কোন প্রদোষকালে
এসেছিলে হেথা হে প্রাকৃতজন
এ বিলের জেলেদের জালে
পেয়েছিলে কবে সে রুপকাঞ্চন


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছবিটা বেশ তাৎপর্য মন্ডিত। সৃষ্টির সেরা জীব থাকে নিকৃষ্ট জীবের সাথে নিকৃষ্ট জীবন যাপনে।

------------
অকিঞ্চন
banglaydebu.blogspot.com


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

উয়েল, ভিনগ্রহের পেরানী যদি মানুষের চেয়ে বুদ্ধিমান হয় তয় মানুষ তাগো টর্চ মাইরা আসমান থেনে বাইর করব না। বরং বুদ্ধিমানেরই আমাগো খুইজ্যা বাইর করনের কথা! বাকী সব ইসলাম বিরুধী চক্রান্ত! খেক খেক খেক

আর মানুষ সৃষ্টির সেরা না! প্রথমত মানুষ ফুড চেইনের সর্বোচ্য অবস্থানে নাই, তারপর ধরেন গিয়া মানুষের বডিস্ট্রাকচারে অনেক ত্রুটি আছে। মানুষের বডি স্ট্রাকচারের থেনে বান্দরের বডিস্ট্রাকচারের সুবিধা বেশী! তারা জলে স্থলে গাছে সমান পারদর্শী Sad


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ধুর আপনেই আইছেন এলিয়েনের কোরানীক প্রমান নিয়া Tongue

___________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু

glqxz9283 sfy39587p07