Skip to content

৭৫ এর ঘাতকদের প্রতি অসভ্য আচরন ও কিছু প্রশ্ন

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বংগবন্ধু হত্যার ৫ বহুল আলোচিত সমালোচিত স্বঘোষিত খুনীর ফাসী সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে কার্যকর করা হয়েছে। জাতি ভারমুক্ত হয়েছে একটি কলংকের বোঝা থেকে। এটা প্রতিহিংসার ব্যাপার নয়। এটা ন্যায় ও অন্যায়ের দ্বন্দ্ব। যে সমাজে ন্যায়কে হঠিয়ে অন্যায়কে প্রাতিষ্ঠানিক মর্যাদা দেওয়া হয় সে সমাজের সভ্যতার মান নিয়ে বড় ধরনের প্রশ্ন তোলা যায়। আমি ফাসী হল নাকি জেল হল নাকি বেকসুর খালাস পেল তা নিয়ে তেমন মাথা ঘামাই না। যথাযথ আইনী প্রক্রিয়ায় বিচার হয়েছে সেটাই বড় করে দেখি। ন্যায়ের কাছে অন্যায় পরাজিত হয়েছে।



এরপর দন্ডিতদের মৃতদেহের প্রতি কিছু অশালীন ব্যাপার স্যাপার নিয়ে দৃষ্টিকটূ কিছু ঘটনা সারা দেশে ঘটছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। আমি ব্যাক্তিগতভাবে মৃতদেহ সে যারই হোক তার প্রতি একটি ন্যূনতম সম্মান দেখাবার পক্ষপাতি। সবকিছুর উপর আমরা সবাই মানুষ, মানবিকতা হওয়া উচিত সবচেয়ে বড় ধর্ম। এই আচরন মোটেও সমর্থনীয় না হলেও পুরোপুরি অনাংখিতও বলা যায় না। কেন অনাকাংখিত নয় সেটা নিয়ে কিছু কথা বলব।



যথারীতি এই বংগবন্ধু হত্যার বিচার ইস্যুর দায়ও বর্তেছে পুরোপুরি আওয়ামী লীগের উপর। মনে হয় যে ঘোর আওয়ামী লীগার ছাড়া দেশের বা জগতের আর কেউ এই হত্যাকান্ডের বিচার দাবী করতে পারে না। যার মনে ন্যূনতম মানবিকতার আলো আছে, সভ্য জগতের প্রতি সামান্য শ্রদ্ধা আছে তারই উচিত ছিল এই নির্মম হত্যাকান্ডের বিচার চাওয়া। এর বিচারকে বহু বছর এই স্বাধীন বাংলাদেশেই একটি চক্র রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা প্রয়োগ করে স্তব্ধ করে রেখেছিল যা আমরা সবাই জানি। পৃথিবীর আর কয়টা দেশের সংবিধান কাটাছেড়া করে নীরিহ প্রসূতি নারী বা দুধের শিশুদের হত্যার বিচার আইনসিদ্ধ করা হয়েছে তা আমার জানা নেই। তাতেও শান্তি হয়নি। কাটা ঘায়ে নুনের ছিটা দেবার মতই ১৫ই আগষ্ট জাল জন্মদিন বানিয়ে ঢাউষ সাইজের কেক কেটে হাস্যমুখর চ্যালাচামুন্ডা সহকারে দেশের একজন অন্যতম জনপ্রিয় নেত্রী তার জন্মদিন পালন করে যাচ্ছেন। এই কুখ্যাত কালো আইন ৯৬ সালে সংবিধান সংশোধন করে আবার বাদ দেবার সময় এই নেত্রী তার দলবল নিয়ে সংসদ থেকে বেরিয়ে গেছিলেন, যা ছিল এই নিষ্ঠুর খুনীদের প্রতি তাদের দলীয় সমর্থনের প্রকাশ।



এই অবস্থার মধ্য থেকে বেরিয়ে দীর্ঘ ৩৪ বছর পর অবেশেষে বিচার সম্পূর্ণ হয়েছে বলা যায়। বাংগালী চিরকালই অতি আবগময় জাতি। নাটকের বাকের ভাই এর ফাসী নিয়ে দেশময় যে হুলস্থূল হয়েছিল তা আশা করি অনেকের মনে আছে। নাট্যকার হুমায়ুন আহমেদকে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াতে হয়েছিল বেশ কিছুদিন। আমরা তো সেই জাতিরই লোক। দীর্ঘ বাধা বিঘ্ন পূর্ণ পথ বেরিয়ে বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ায় সে বাধ ভাঙ্গা আবেগ অনেক যায়গাতেই সীমা ছাড়িয়ে গেছে। তবে এর দায় নি:সন্দেহে এসব মানুষের পুরো নয়। আমি তো এই অতি আবেগ নির্মানে দায়ী করব তাদের যারা এত বছর চোখের সামনে খুনীচক্রকে সহায়তা করে গেছে তাদের। খুনীদের বিচার দেশের প্রচলিত আইনে সেসময়েই করা হলে মানুষের আবেগ এত চরমে পৌছাতো না। এটা বুঝতে খুব বেশী জ্ঞাণী হবার দরকার পড়ে না।



এমন একটা আবহও তৈরী করা হচ্ছে যে আওয়ামী ওয়ালাদের আগে এমন ঘটনা দেশে বা বিদেশে আর কোথাও ঘটেনি। এমন ঘটনা দেশে আগেও বহুবার ঘটেছে। ৮৯ সালের রীমা হত্যাকাণ্ডের আসামী মুনির হোসেনকে ৯৩ সালে ফাসী দেবার সময়ও এমনি ঘটনা ঘটেছিল। বেচারাদের বাড়ি পুলিশ ও ভাড়াটে গুন্ডাবাহিনী দিয়ে পাহারা দিয়ে জানাজা পড়াতে হয়েছিল। কবরে পুলিশ পাহারা ছিল বহুদিন। সেখানে কি বিনপি আওয়ামী এমন কোন ইস্যু ছিল? ক’বছর আগে এরশাদ শিকদারের ফাসীর পরেও একই ধরনের ব্যাপার ঘটেছিল। কাজেই এসব ব্যাপার অনাকাংখিত হলেও অভূতপূর্ব কিছু নয়। বংগবন্ধুর বিচার আরো অনেক বেশী আবেগ সৃষ্টি করেছে নানান সংগত কারনেই। এক, তিনি ছিলেন আমাদের দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রধান ব্যাক্তি; স্বাধীন বাংলায় তার শাসনের নানান সমালচনা হলেও এ সত্য অস্বীকার করা যায় না। দুই, এটা আরো গুরুত্ত্বপূর্ণ, তার বিচারকে নিষ্ঠুর ও অমানবিকভাবে রাষ্ট্র ক্ষমতা ব্যাবহার করে বার বার বাধাগ্রস্থ করা হয়েছিল।





পশ্চীমের সুসভ্য দেশের লোকেও এতটা না হলেও অনেক সময়ই কুখ্যাত খুনীদের দণ্ড কার্যকরের সময় জেলখানার বাইরে দাড়িয়ে উল্লাস করে। এখানে উদাহরন হিসেবে আমেরিকার কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার টেড বান্ডির উদাহরন দিচ্ছি। এই ভিডীওর শেষে দেখবেন তার মৃত্যু পরবর্তি কিছু উল্লাসের প্রকৃত দৃশ্য। এমন ঘটনা আরো বহু আছে। আমেরিকার যেসব ষ্টেটে মৃত্যুদন্ড আছে সেসব ষ্টেটে যাকে হত্যা করা হয়েছিল তার আত্মীয় স্বজনকে ঘাতকের মৃত্যুদৃশ্য দেখার আমন্ত্রনও জানানো হয়। সেখানে মানুষ ইচ্ছা করলে দেখতে পারে তাদের প্রিয়জনের হত্যাকারীকে কিভাবে হত্যা করা হচ্ছে।



আমি ৭৫ এর সেদিনের সেই ভয়াল দৃশ্য চিন্তা করার চেষ্টা করি। শিশু রাসেলকে তা মায়ের কাছে নেবার কথা বলে মাথার খুলি চোখ উড়িয়ে দেওয়া, প্রসূতি আরজু মণিকে, ৪ বছরের সুকান্ত বাবুকে কারা ঠাণ্ডা মাথায় হত্যা করতে পারে? এরা মানুষ কিনা তা আমি চিন্তা করতে চাই না।



আবার চিন্তা করি যাদের আজ ফাসীতে দেওয়া হল তাদের স্বজনদের কথাও। তারাও তো মানুষ। তাদেরও প্রিয়জন এই খুনীরাই। নিজের প্রিয়জনদের মৃত্যুতে লাখ লাখ মানুষ উল্লাস করছে, দেহ বহনকারী গাড়িতে জুতা থুথু মারছে সেটা চিন্তা করতেও খারাপ লাগে। সভ্য জগতে বাস করার এটাই সমস্যা। এরা সবাই হয়ত খুনের ঘটনায় সমর্থন দেননি। কিন্তু শুধুমাত্র আত্মীয়তার সুবাদে কি নিদারুন মানসিক যন্ত্রনা কলংক সারা জীবন বহন করতে হবে।



যারা আজ আওয়ামী অসভ্যতা নিয়ে কথা তুলছেন তাদের প্রতি কটা সভ্যতা সম্পর্কিত নির্দোষ প্রশ্ন (দয়া করে রাজনীতি বাদ দিয়ে শুধুমাত্র মনবিকতার দিক দিয়ে চিন্তা করবেন);

১। জিয়া সাহেবের ইন্ডেমননিটি পাশ করার সময় সভ্যতা মানবিকতা কোথায় ছিল? কয়জনে আপনারা সেদিন বা আজ তার প্রতিবাদ করেন?

২। খুনীদের বিচার প্রক্রিয়াকে রাষ্ট্রীয়ভাবে আইনসিদ্ধ করা কোন সভ্য কালাকানুনের মাঝে পড়ে?

৩। খুনীদের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের লোভনীয় চাকরিতে পুরষ্কৃত করা কোন সভ্য সমাজের রীতি?

৪। ১৫ই আগষ্ট জাল জন্মদিন দাবী করে ঢাউশ কেক কেটে ফূর্তি করা কোন সভ্যতার সংজ্ঞায় পড়ে? এর প্রতিবাদ কয়জনে করেছেন?



আপাতত এই কয়টি থাক। আমি মনে করি যারা এর একটিরও প্রতিবাদ করতে কোন কারনে আগে ব্যার্থ হয়েছেন তাদের আজ খুনীদের লাশের প্রতি অসম্মান জানানোকে বর্বর রায় দেবার কোন অধিকার নেই। আজ মৃতদেহ অসম্মানকারীদের অসভ্য বলার অধিকার শুধু তাদেরই আছে যারা এর সব কটি পয়েন্টে অন্তত মুখে হলেও প্রতিবাদ করেছিলেন।



আমার এই লেখা নিঃসন্দেহে খুব বেশী মানুষে পড়বেন না, তবে আমি সবাইকে আহবান জানাবো মৃত ব্যাক্তিকে কেউ অসম্মান করবেন না। যে চলে গেছে তার কফিনে জুতা থুথু নিক্ষেপে কোন মহত্ব প্রাপ্তি হয় না। শেখ সাদীর সেই বিখ্যাত কবিতা (কুকুরের কাজ কুকুরে করেছে…) মনে করে নিজেকে বিরত রাখবেন।

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আসল ব্যপার হল ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় কেউ কেউ দু:খে কষ্টে পাথর হয়ে গেছেন। তারা সরাসরি বলতে পারছেন না আবার সইতেও পারছেন না, তাই নানা ধানাই পানাই শুরু করেছেন। অতি বাম আর অতি ডানের মধ্যে মাঝে মাঝে পার্থক্য করা খুবই কষ্টকর হয়ে যায়।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচারের পরে এটা আমার দেখা সেরা পোষ্ট। সর্বাংশে সহমত প্রকাশ করছি। (Y)

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল,

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচারের পরে এটা আমার দেখা সেরা পোষ্ট। সর্বাংশে সহমত প্রকাশ করছি।


সহমত. আসলেই নিয়ন্ত্রিত আবেগে লেখা যুক্তিসঙ্গত পোস্ট.

(Y)

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
নাস্তিকদের দাঁত ভেঙ্গে দেয়া হোক, যেন তারা ঈদের সেমাই না খেতে পারে। ( রাইট টু কপিঃ ডঃ আইজুদ্দিন)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল,



ধণ্যবাদ। তবে এতবড় সার্টিফিকেট মনে হয় প্রাপ্য ছিল না।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@যুদ্ধদেব,



ধণ্যবাদ পড়া ও আপনার সুন্দর কমেন্টের জন্য।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনার মতো বুদ্ধিমান আরো দরকার।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@সপ্তলোক,



উফফফফ!!!!!

ব্যথা পাইলা? যাও, একটা প্যারাসিটামল খায়া ঘুম দাও!

------------------------০০০০---------------------------------
ও গানওয়ালা, আর একটা গান গাও...
আমার আর কোথাও যাবার নেই, কিচ্ছু করার নেই...!
_______________০০০০_____________________


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@সপ্তলোক,



একমত।



আমারো তাই মনে হয়। আমার মত বুদ্ধিমান আরো দরকার।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@সপ্তলোক, জ্বলে, তাইনা?

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল,ক্ষিকজ


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@পথভ্রষ্ট, সাপো বেটার অ্যান্ড এফিসিয়েন্ট Laughing out loud


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মাটিতে গড়া মানুষের আবেগকে নিয়ন্ত্রন করা কঠিন। সেদিন যা হয়েছে তা অনুচিৎ কিন্তু অনাকাংখিত নয়। জীবিত কে ঘৃণা প্রকাশের সুযোগ ছিল না,তাই মৃতের উপরই ঘৃণা প্রকাশ করেছে। দক্ষিনাঞ্চলে সর্বহারাদের মৃত্যুতে কিন্তু থু থু ছিটানোর ঘটনা আছে,তখন তো কেউ কথা বলে না।

___________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আদিল মাহমুদ, মনের কথাগুলো সবই এত সুন্দর করে বলে দিলেন, এরকম কিছু একটা লেখার জন্য ছটফট করছিলাম কিন্তু নিজের লেখার অক্ষমতার জন্য এগুইনি -আপনার এই

লেখা সেই না পারার যন্ত্রনা ঘুছিয়ে দিল । আপনাকে ধন্যবাদ । (*) (*) (*) (*) (*) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@ওয়েস্ট উইন্ড/পরবাস,



আরো অনেক কথা বলার ছিল, বড় হয়ে যাচ্ছি দেখে লিখিনি। বংগবন্ধুর লাশ বজলুল হুদার এক সিপাহী সেদিন মুখে লাথি দিয়ে দেখেছিল, কারন সে বংগবন্ধুকে কোনদিন কাছ থেকে দেখেনি।



ক্রশফায়ারে খুন হলে আনন্দ মিছিল, মিষ্টি বিতরন করা, এমননি মৃতদেহে লাথি মারার ঘটনাও ঘটে। তখন সভ্যতার কোন সমস্যা হয় না। ক্রশফায়ারের বিরোধীতা করলে উলটা গায়ের দিকে অনেকে তেড়ে আসেন।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনি আমার মনে রাখা কথাগুলিই বলেছেন।

ধন্যবাদ এইরকম একটি পোষ্ট গুছিয়ে দেয়ার জন্য।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আমার-মত,



আপনাকে আমার পোষ্ট বা যেকোন কিছুতেই মন্তব্য না করতে বহুবার কাতর অনুরোধ করা হয়েছে। আমি কারো মন্তব্য মুছি না, তবে আপনারটা এরপর থেকে মুছে দেব।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আদিল মাহমুদ,

মুছবেন না। "আমার মত" হইল রাজাকারের দর্পন।

তার কথা বার্তায় অন্তত বোঝা যায় দেশের আর সব রাজাকার রা কি চিন্তা ভাবনা করতাছে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আনমোনা,



এই পার্ভার্ট রে কিছু বলতেও মায়া লাগে। মানসিক রোগীকে কি কেউ তেমন কড়া কথা বলতে পারে?



তবে মানসীক রোগীর গায়ের থেকে বিষ্ঠার গন্ধ বের হলে তখন তাকে আমাদেরই পরিষ্কার করতে হয়। সে নিজে তো আর পরিষ্কার হবে না। আল্লাহপাক তাকে সেই বুদ্ধি বিবেচণা দেননি, কি আর করা।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কোন মহান ব্যক্তির মৃতদেহের প্রতি সম্মান দেখাতে পারলে একজন পাপী ব্যক্তির মৃতদেহের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করা যাবেনা কেনো? আজকে বঙ্গবন্ধুর খুনির সন্তানেরা ব্রিটেনের রানী ঘরে জন্ম নিলে ঠিকই সব ধরনের সুযোগ সুবিধা নিত,তখন একবারও বলত না যে আমরা রানী না কেন আমরা এসব সুযোগ সুবিধা নিবো!মানুষের জন্ম নেওয়াটাও একটা গুরুত্বপুর্ন বিষয়।পিতার সম্পদের ভাগ নিতে পারলে পাপের ভাগ নিবেনা কেন? তাই বঙ্গবন্ধু'র খুনির আত্মিদের প্রতি আমার কোন সহানুভতি নাই।পাবলিক যদি জুতা ছুরে থাকে তাহলে আন্যায় কিছু করেনি....... Tongue


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নেতা, কোন মহান ব্যক্তির মৃতদেহের প্রতি সম্মান দেখাতে পারলে একজন পাপী ব্যক্তির মৃতদেহের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করা যাবেনা কেনো?



পিতার সম্পদের ভাগ নিতে পারলে পাপের ভাগ নিবেনা কেন? তাই বঙ্গবন্ধু'র খুনির আত্মিদের প্রতি আমার কোন সহানুভতি নাই।পাবলিক যদি জুতা ছুরে থাকে তাহলে আন্যায় কিছু করেনি....... (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নেতা,



আমারো সহানুভূতি নেই, তবে মৃতদেহে জুতা মারা সমর্থন করি না। যদিও এই কালচার আমাদের দেশে নুতন কিছু নয়।



আরো অনেইক কথা বলার ছিল, বড় হয়ে যাচ্ছি দেখে লিখিনি।



ক্রশফায়ারে খুন হলে আনন্দ মিছিল, মিষ্টি বিতরন করা, এমননি মৃতদেহে লাথি মারার ঘটনাও ঘটে। তখন সভ্যতার কোন সমস্যা হয় না। ক্রশফায়ারের বিরোধীতা করলে উলটা গায়ের দিকে অনেকে তেড়ে আসেন।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভাল বলেছেন। আমরা দিনে দিনে সভ্য নামধারী অসভ্য জন্তুতে পরিণত হচ্ছি। পোষ্টে পাঁচতারা।

--

হতাশায় নিমজ্জিত মন
খুঁজে ফিরে আশার আলো ।।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

(Y)

শুধু একটি জিজ্ঞাসা। আপনি বলেছেনঃ



জিয়া সাহেবের ইন্ডেমননিটি পাশ করার সময় সভ্যতা মানবিকতা কোথায় ছিল?




উইকিতে পেলামঃ

The Indemnity Act of Bangladesh was formulated to give immunity from legal action to the persons involved in the assassination of president Sheikh Mujibur Rahman. The assassination took place on August 15, 1975[1] As the parliament was not in session, the Act was promulgated on September 26, 1975, in the form of an Ordinance by president Khondaker Mostaq Ahmad, a close political associate of Sheikh Mujib and a cabinet Minister, who was made the president of the country following the killing of Sheikh Mujib. It was titled Indemnity Ordinance 1975, being Ordinance No. 50 of 1975. Later it was ratified by the Bangladesh Parliament in due course, when the parliament was constituted in 1979, and became an Act, that is, a formal statute, following the ratification


(সুত্র)



এখন আমার প্রশ্ন কুখ্যাত ইনডেমনিটি আইনটির সুত্রাকার হিসাবে কার নামটি প্রধানত আসা উচিত?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@শামীম-বেলজিয়াম,



মোশতাকের কথা বলে দুর্গন্ধ বাড়াতে চাইনি।



ইন্ডেমনিটি জিয়া সাহেবই সংসদে আইন হিসেবে ১৯৭৯ সালে পাশ করান। মোশতাক নয়। আমার হিসেবে প্রধানত জিয়া সাহেবের নামই আসা উচিত। জিয়া সাহেব সংবিধান কাটাছেড়া না করলে মোশতাকের সেই ৭৫ এর অর্ডিন্যান্স যেকেউই আদালতে চ্যালেঞ্জ করতে পারত।



জিয়া সাহেব দারুনভাবে সেই পথ বন্ধ করে দিয়েছেন।



বিশেষ অধ্যাদেশ জারি করা এমন কিছু নয়, তবে সংবিধানে আইন পাশ করা অনেক বড় ব্যাপার।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আদিল মাহমুদ,



হুমম, আপনার কথা মেনে নিলাম। কিন্তু সেই সময় (মোশতাকের সময়) যদি সংসদ থাকত তবে হয়তো ইতিহাস ভিন্ন রকম হতে পারত। খেয়াল করুন উপোরোক্ত সুত্রে এই উদৃতিটুকুঃ





As the parliament was not in session, the Act was promulgated on September 26, 1975, in the form of an Ordinance by president Khondaker Mostaq Ahmad


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@শামীম-বেলজিয়াম,



ধণ্যবাদ।



কি হলে কি হতে পারত না হলে কি হতে পারত তেমন এনালাইসিসের কোন সীমা নেই। তাই যা হয়নি তা নিয়ে সময় নষ্ট করার মানে দেখি না। যা হয়েছে তাই চিন্তা করি।



আমি ৭৫ এর ব্যাপার এভাবে দেখি; দেশের প্রেসিডেন্ট নির্মমভাবে খুন হয়েছেন। দূঃখজনক, তবে অনেক দেশেই হয়েছে, হয়। স্বাভাবিক প্রক্রিয়া হত খুনীদের বিচারের আওতায় আনা। সেই স্বাভাবিক প্রক্রিয়া অনুসরন করা হলে আজ আমার বলার কিছু থাকত না। দূঃখ থাকত, তবে ক্ষোভ থাকত না। জিয়া সাহেব যত খুশী দেশ শাসন করতেন, আমার কোন আপত্তিই অন্তত এ ইস্যুতে তার বিরুদ্ধে থাকত না।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হক কথা, তারাইয়া শেষ করতে পারুম না। (Y) (Y)

**************************************************************************
কি জানি কি মঞ্চায়.........


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার ব্যক্তিগত অনুভূতি আপনার সাথে মিলে যায়। তবে ৩৪ বছে ধরে দেশের লোক সুষ্ঠু বিচার দেখার আশায় ছিলো। এত দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরে কেউ কেউ উল্লাস প্রকাশ করলে আমি সেটাতে খুব একটা দোষ দেখি না। আরেকটু আগে বাড়িয়ে বলি যদি যুদ্ধাপরাধের অপরাধে গোআ বা নিজামীর ফাঁসী হয় তাইলে আমি নিজেও একটু উল্লাস প্রকাশ করব হয়ত। বাকিদের কি হবে বুঝতেই পারছেন।

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্, সুপার্ব! (Y)

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্, গোআ আর নিজামীর ফাঁসি হইলে আমি মিলাদ পরামু. Laughing out loud

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
নাস্তিকদের দাঁত ভেঙ্গে দেয়া হোক, যেন তারা ঈদের সেমাই না খেতে পারে। ( রাইট টু কপিঃ ডঃ আইজুদ্দিন)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্,



সেটাই কথা। উল্লাসে সমস্যা নেই, তবে কুরুচিপূর্ন হলে ভাল লাগে না। তবে এই অতি উল্লাসের জন্য মূলত আমি দায়ী করব তাদেরই যারা এই বিচারের প্রক্রিয়াকে দীর্ঘদিন ধামাচাপা দিয়ে রেখেছিল তাদের।



আমি নিশ্চিত ৭৫ সালে এই বিচার হলে ঘাতকদের প্রতি মানুষের ঘৃণা এত চরমে পৌছাতো না। আর এই ঘৃণা প্রকাশকারি সবাইকে গণহারে আওয়ামী বানানোতেও আমার আপত্তি আছে।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@যুদ্ধদেব, আমিও । smile :) :-)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল, থ্যান্কু .... (F)

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আদিল মাহমুদ,



আর এই ঘৃণা প্রকাশকারি সবাইকে গণহারে আওয়ামী বানানোতেও আমার আপত্তি আছে।
স্বাভাবিক। সবাইতো আর আওয়ামী লীগ করে না। কিছু লোক এটা প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে সফল হবে না।

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@যুদ্ধদেব, মিলা্দে মিষ্টি হইলে খেলুম না,গরু খামু

___________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@যুদ্ধদেব, আলহামদুলিল্লাহ। তবারক কিন্তু সেই রকম হওয়া চাই। Laughing out loud

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্,



একই ব্যাপার দেখা যায় রাজাকারদের বিচারের দাবীর ক্ষেত্রেও। চমতকারভাবে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করা হয় যে রাজাকারদের বিচারের দাবী শুধুমাত্র হার্ডকোর আওয়ামী লীগারদের। এমন একটা ভাব যে নন-আওয়ামীদের রাজাকারের প্রতি অসীম ভালবাসা। বিচারে কোন উতসাহ নেই।



শহীদ আমিনুদ্দিনের ছেলে আয়ন ছিল আমাদের কলেজের বন্ধু। তার বাবার হত্যাকারীদের বিচার আজ সে দাবী করলে তাকে আওয়ামী লেবেল লাগিয়ে দিতে হবে, কারন হত্যাকারীরা জামাতি ছিল বলে? এটা কোন ধরনের যুক্তিবোধ?



স্বাধীন বাংলাদেশ ও মানবতায় বিশ্বাসী যেকারোই রাজাকারদের বিচার দাবী করা উচিত।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্,

সেই মিলাদে কিছু জামাতি ভুল কইরা আইয়া পড়তে পারে. তাগো লাইগা খাঁটি ছাগ লাদী এর সু ব্যবস্থা থাকবে. >:)

আর বাকি আম জনতার জন্য কি দেয়া যায়, আসেন মেনু ঠিক করি. Laughing out loud

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
নাস্তিকদের দাঁত ভেঙ্গে দেয়া হোক, যেন তারা ঈদের সেমাই না খেতে পারে। ( রাইট টু কপিঃ ডঃ আইজুদ্দিন)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আদিল মাহমুদ, একমত । যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাওয়া কি করে

আওয়ামী লীগের একার বিষয় হয় বুঝতে পারিনা । গাধামীর একটা সীমা থাকা উচিত !

এই দাবী আপামর জনগণের প্রাণের দাবী (অবশ্যই রাজাকার আর তাদের কিছু সহযোগী ছাড়া)

কিন্তু ট্যাগ করার একটা জোর প্রচেষ্টা আছে এটাকে আওয়ামী ইস্যু হিসেবে দেখানোর !


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আদিল মাহমুদ,



স্বাধীন বাংলাদেশ ও মানবতায় বিশ্বাসী যেকারোই রাজাকারদের বিচার দাবী করা উচিত।
এর উপরে আর কথা নাই। (Y)

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@যুদ্ধদেব, মেনুর ভার আপনার উপরেই ছেড়ে দিলাম। smile :) :-)

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@যুদ্ধদেব,



সাথে দূর্গন্ধময় ঘোড়ার মুত সস হিসেবে দেওয়া যেতে পারে।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@ওয়েস্ট উইন্ড,



এটা গাধামী কোনভাবেই নয়। এটা হল রাজাকারের দালালি।



জামাতের সরাসরি সমর্থকদের নিয়ে সমস্যা নেই। মুশকিল হল এক শ্রেনীর ছদ্ম মুক্তিযুদ্ধ প্রেমিক আছে যারা যেকোন কারনেই হোক জামাতের প্রতি দুর্ব্ল তারা এসব খোড়া যুক্তি বের করে।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্,ছাগুর কাচ্চি থাকতেই হবে মেনুতে >:)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আদিল মাহমুদ, হ্যা, ঠিকই বলেছেন । এটা গাধামী কোনভাবেই নয়, এটা

হচ্ছে জেনে বুঝে জনগণের সাথে চালাকি করা ।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নরকের প্রহরী, আমি একখান ছাগু দিতাম চাই কাচ্চি বিরানীর লাগি।

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নরকের প্রহরী, হা হা ... মনের কথা বলছেন। আশা রাখি, বেঁচে থাকলে এগলগে কাচ্চি

খামু। Laughing out loud

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাউলদা আর হোরাস, ব্লগে ভাল কোয়ালিটির ছাগু নাই আর এখন Sad


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নরকের প্রহরী, গত দুয়েকদিনের মধ্যে একটা নাকি সামু থেকে হিজরত করছে। ওয়েট করেন, টের পাইবেন। >:)

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নরকের প্রহরী, ওরে নারে! হাট থেইক্যা কিন্যা আনুম, ব্লগের ছাগু খাওয়া হারাম

ঐ গুলান পুন্দানীর জন্য জায়েজ। Tongue

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউলদা,


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্, লালসালু?

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল, হা হা হা ... হাসতেই আছি। Laughing out loud

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল, লিঙ্কের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর কমেন্ট দেখেন।



http://www.somewhereinblog.net/blog/MAMUNBillah/29086941

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল, সামুতে অনেকেরই অভিযোগ আছে তার নাকি কেপি টেস্টে পজেটিভ।

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@হোরাস্, হা হা হা! দেখলাম, এইটাতে বাউলের কমেন্ট দেইখেন, জবাব পাই নাই এখনো। Laughing out loud

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@বাউল,জবাব দিব কেমনে, জবাব থাকতে হবে না!! কালকে আপনাকে দেখে যেমনে খুশী হইল তাই আমি নিজেও একটু সন্দেহে পরে গেছিলাম। এই যা। Tongue

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার অনুভূতিও অনেকটা আপনারই মত। খুনিদের বিচার হওয়ায় শুধু দলীয় লোক না, সাধারন মানুষের বড় অংশই খুশি। খুশির বহিঃপ্রকাশ ঘটবে, এটাও অস্বাভাবিক না, তবে সেটা অমানবিক পর্যায়ে না চলে যাওয়াই ভাল।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নরকের প্রহরী, (Y) (Y) (Y)

----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------
ন্যায় আর অন্যায়ের মাঝখানে নিরপেক্ষ অবস্থান মানে অন্যায়কে সমর্থন করা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@নরকের প্রহরী, (Y)

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

২। খুনীদের বিচার প্রক্রিয়াকে রাষ্ট্রীয়ভাবে আইনসিদ্ধ করা কোন সভ্য কালাকানুনের মাঝে পড়ে?

---------------------------------
লাইগ্যা থাকিস, ছাড়িস না!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@জুলিয়ান সিদ্দিকী,



আমি কিছুতেই বুঝি না যে বিএনপি সমর্থন করলেই মানবতার এত বড় অপমানকে কি করে মেনে নিয়ে তার পক্ষে গলা ফুলিয়ে তর্ক করা যায়।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শুরু ও শেষের কথা ঠিক। মধ্যাংশের যুক্তিটা কী? অমুক ‘অসভ্য’ ছিল তাই আমার কাজ justified? অথবা অমুক অতীতে অসভ্য কাজ করেছে, নজির দেখুন, তাই আমার অসভ্যতার জন্য আমি দায়ী নই? তাছাড়া পূর্ব-পশ্চিমে অসভ্য আচরনের উদারহণ আছে, আমারটা বিবেচনার চোখে দেখতে হবে? এর সবগুলি ‘অসভ্য’, -এখানে justification -এর প্রয়াস বৃথা, waste of time. এ ধরনের প্রয়াসের পথই অপ্রীতিকর।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@এম_আহমদ,



ধণ্যবাদ আপনার কমেন্টের জন্য।



আমি কারো অসভ্যতাই জাষ্টিফাই করার কোন চেষ্টা করিনি। আমাদের দেশে এ ধরনের অতি আবেগবশতঃ আচরন নুতন কিছু নয় সেটাই বলেছি। তার মানেই একে সমর্থন বা জাষ্টিফাই বলে না।



আরে যারা শুধু এক অসভ্যতাকে কোনদিন অসভ্যতা বলে মানেননি বা মানেন না তাদের আজ হঠাত অসভ্যতার প্রশ্ন তোলার নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠাই স্বাভাবিক।



আমার প্রশ্নগুলি আশা করি পড়েছেন।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সুচিন্তিত,লেখাটি পড়ে ভালো লাগলো।মৃতদেহের প্রতি অসম্মান আমিও পছন্দ করি না।তবে সবার আবেগ তো আর সমান ভাবে কাজ করে না।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@প্রজন্মের পরিভ্রমণ, রাইট ।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

যারা আজ আওয়ামী অসভ্যতা নিয়ে কথা তুলছেন তাদের প্রতি কটা সভ্যতা সম্পর্কিত নির্দোষ প্রশ্ন (দয়া করে রাজনীতি বাদ দিয়ে শুধুমাত্র মনবিকতার দিক দিয়ে চিন্তা করবেন);

১। জিয়া সাহেবের ইন্ডেমননিটি পাশ করার সময় সভ্যতা মানবিকতা কোথায় ছিল? কয়জনে আপনারা সেদিন বা আজ তার প্রতিবাদ করেন?

২। খুনীদের বিচার প্রক্রিয়াকে রাষ্ট্রীয়ভাবে আইনসিদ্ধ করা কোন সভ্য কালাকানুনের মাঝে পড়ে?

৩। খুনীদের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের লোভনীয় চাকরিতে পুরষ্কৃত করা কোন সভ্য সমাজের রীতি?

৪। ১৫ই আগষ্ট জাল জন্মদিন দাবী করে ঢাউশ কেক কেটে ফূর্তি করা কোন সভ্যতার সংজ্ঞায় পড়ে? এর প্রতিবাদ কয়জনে করেছেন?




(Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (Y) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F) (F)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এ ব্যাপারে যারা আমার পূর্ব মন্তব্য দেখেননি তারা তা এখানে দেখতে পারেন। [ক্লিক মন্তব্য/সেকশন]


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কোন জাতির সব কাজই সভ্য হয় না, আবার অসভ্যও হয় না। সভ্যতা কোন জাতির একক, ‘মৌলিক’ বিষয় নয়। সভ্যতার বিষয়গুলিও শংকর -এর উপকরণগুলি বিভিন্নসূত্র থেকে পাওয়া। আমরা সভ্যতা খোঁজি সব স্থানে, সব জাগায়। আমার কোন লিখায় পূর্ব-পশ্চিমের ক্ষেত্রে generalised opinion নেই। শেষোক্ত কথাটি তাদের বেলায়ই প্রযোয্য যারা চোখ বুজে পশ্চিমা সভ্যতার অন্ধ অনুসারি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

চিন্তার কথা।

----------------------------------------------------------
"সওয়ারীদের দৌড়ানোর মাঝে কোন কল্যান নেই। "


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কোন মহান ব্যক্তির মৃতদেহের প্রতি সম্মান দেখাতে পারলে একজন পাপী ব্যক্তির মৃতদেহের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করা যাবেনা কেনো? পিতার সম্পদের ভাগ নিতে পারলে পাপের ভাগ নিবেনা কেন? তাই বঙ্গবন্ধু'র খুনির আত্মিদের প্রতি আমার কোন সহানুভতি নাই।পাবলিক যদি জুতা ছুরে থাকে তাহলে আন্যায় কিছু করেনি.....ফিনারে জাহান্নামা খালেদিনা ফিহা


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জনাব আদিল মাহমুদ,

আপনার লেখা সর্বাংশে সুন্দর।

সবচেয়ে বড় কথা হলো আপনি এমন একটি মাপকাঠিতে দাড়িয়ে লিখেছেন যেই খানে দাড়ানো কঠিন দাড়িয়ে থাকাও কঠিন। কোন না কোন পক্ষে ঢলে পরার সম্ভাবনা থাকে।

একজন সুস্থ্য বুদ্ধির মানুষই একমাত্র সঠিক অবস্থানে থাকতে পারে।



আপনি আমারো কিছু ভূল ধরিয়ে দিয়েছেন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@আনমোনা,



আপনার চমতকার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।



আসলেই আমাদের জাতীয় সমস্যা হল আমরা নিরপেক্ষ চোখে কিছুই বিচার করতে পারি না। সবকিছুতেই অতি আবগের ফলে অন্ধভাবে পক্ষ নিয়ে ফেলি।



বিচার হয়েছে যথাযথ আইনী প্রক্রিয়ায়, আসামী পক্ষ দেশের প্রচলিত আইনে সব সুবিধাই পেয়েছে, বরং বলা যায় বেশীই পেয়েছে। শাস্তি হয়েছে। খুবই ভাল খবর। এর সাথেই এই প্রক্রিয়া শেষ। লাশের গায়ে জুতা থুথু মারার থেকে যারা পালিয়ে বেড়াচ্ছে তাদের ফেরত আনাটা অনেক বেশী জরুরী।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনার মুক্তমনার ই-মেইলে আমি একটি মেইল করেছি। একটুকু দেখবেন কি? ভাল না লাগলে অথবা পড়ার পড় ডিলিট করে দিয়েন, আর প্লিজ আমাকে একুটুকু জানাইয়েন। আপনাকে ধন্যবাদ। জবাবের অপেক্ষায় রইলাম।

::::::Freedom is the right of all sentient beings, Remember this: You may lose your faith in us, but never in yourselves..-Optimus Prime:::


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হ্যা, আমি উত্তর পেয়েছি। কষ্ঠ করে জবাব দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। প্লিজ, ই-মেইলটি ডিলিট করে দিয়েন। আপনাকে ধন্যবাদ।

::::::Freedom is the right of all sentient beings, Remember this: You may lose your faith in us, but never in yourselves..-Optimus Prime:::


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

টপিকটার উপর আমার বলার তেমন কিছু নাই।



আপনার টেড বান্ডির ভিডিও দেখে একটা জিনিস জানলাম। আমেরিকার জল্লাদরাও আসামীর মত যমটুপি পড়ে। smile :) :-)

glqxz9283 sfy39587p07