Skip to content

মাতাল সরকার কি মদ খাওয়া বন্ধ করল ?

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেশটা চলছিল এতদিন মাতালদের নিয়ে । দেশের অনেক মন্ত্রীগুলো দিন রাতে মদ খায় । খেয়ে যে মাতলামি করে তার কোন হিসাব রাখত না সরকার প্রধান । হয়তবা হঠাৎ করে সেই মাতালদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে শুরু করল আমাদের দেশ প্রধান । এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত এবং সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ওবায়দুল কাদের মন্ত্রী হিসেবে এবং বন প্রতিমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন।
মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর বঙ্গভবনে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত সাংবাদিকদের বলেন, সাংবিধানিকভাবে তাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তা তিনি আন্তরিকতা, দেশপ্রেম ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করবেন। পাশাপাশি তার সকল কাজকর্মে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করবেন।
পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, তাকে এর আগে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আন্তরিকতার সঙ্গে তিনি পালন করেছেন । নতুন দায়িত্বও আন্তরিকতার সঙ্গে পালন করবেন।

কপাল পুড়তে পারে : মুহিত(শেয়ার বাজার বুঝিনা) , আবুল হোসেন(আবুইল্যা ওরফে আবুল বিড়ি), ড: দীপু মণি(অনভিজ্ঞ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওরফে ১০০ বারের ওপর বিদেশ শফর)


যারা বাদ পড়তে পারেন: অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, পরিকল্পনামন্ত্রী এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) এ কে খন্দকার বীরউত্তম, ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু, ভূমিমন্ত্রী রেজাউল করিম হীরা, সমাজকল্যাণমন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ, পানিসম্পদমন্ত্রী রমেশ চন্দ্র সেন, যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হক, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোতাহার হোসেন। অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার অভিযোগ রয়েছে। তার বিকল্প হিসেবে জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. আবুল বারকাত ও পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদকে ভাবনায় রাখা হয়েছে। পরিকল্পনামন্ত্রী এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) এ কে খন্দকার বীরউত্তম ঝুঁকিতে থাকলেও শেষতক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সংক্রান্ত কার্যক্রমের কারণে উতরে যেতে পারেন। ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাজিউদ্দিন
আহমেদ রাজুর কর্মদক্ষতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন না থাকলেও নরসিংদীর মেয়র আলহাজ লোকমান হোসেন হত্যাকাণ্ডের কারণে তিনি বেশ বিপাকে পড়েছেন। এ কারণে তিনি ঝুঁকিতে রয়েছেন। ভূমিমন্ত্রী রেজাউল করিম হীরা, সমাজকল্যাণমন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ ও পানিসম্পদমন্ত্রী রমেশ চন্দ্র সেনের কর্মদক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের মন্ত্রণালয় পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

শেখ হাসিনার বক্তব্য “সময় আসলে আরও দেখতে পারবেন”

স্বাধীনতার ৪০ বছর পেরিয়ে গেছে । তবুও দেশটা অনেক পিছিয়ে রয়েছে । আওয়ামীলীগ সরকার বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন । হয়তবা জনপ্রিয়তার বলেই শেখ হাসিনা বিশ্বের সেরা দশ ক্ষমতাধর নারীর মধ্যে রয়েছেন । আমরা চাই দেশটাকে অনেক সুন্দর করে দেখতে । ব্যবসায়ীরা কখনই রাজনীতি বোঝেন না । তারা শুধু চাই অর্থ আর অর্থ । আমাদের দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদ্মা সেতুর কাজ বন্ধ হয়ে গেল । আমরা আরও আশা করব রাজনীতিকরা যেন দেশ চালাই, কোন ব্যবসায়ী সমাজ নয়

মন্তব্য

glqxz9283 sfy39587p07