Skip to content

সুরা মমতাময়ী

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

[০১]
শুরু করছি পরমকরুনাময়ী সেই মায়ের নামে, যিনি গর্ভে ধারন করেছেন।
[০১: ০১]
আমাদের পরম করুনাময়ী মা।
[০১: ০২]
যিনি শিক্ষা দিয়েছেন প্রিয় বাঙলা বর্নমালা,
[০১: ০৩]
জন্ম দিয়েছেন মানুষকে,
[০১: ০৪]
তাকে শিখিয়েছেন পথচলা।
[০১: ০৫]
নাড়ির গতি তার হিসাবমত চলে।

[০১: ০৬]
এবং সন্তানের মস্তক যার প্রতি সেজদারত থাকে সর্বদা।
[০১: ০৭]
তিনি নিজ গর্ভকে করেছেন জান্নাতের মত এবং প্রেরন করেছেন খাদ্য।
[০১: ০৮]
যাতে তোমরা মাতৃজঠরে মৃত্যুবরন না কর।
[০১: ০৯]
বলেছেন তোমরা ন্যায়ের পথে চল এবং মানুষের ক্ষতি করো না-ইহাই মানবধর্ম।
[০১: ১০]
তিনি ধরিত্রীর বুকে হয়ে উঠেছেন ধরিত্রী।
[০১: ১১]
খাইয়েছেন নিজে ক্ষুধার্ত থেকে, পীপাসার্ত থেকে।
[০১: ১২]
রক্ষা করেছেন সমস্ত ঈশ্বর এবং সমস্ত অপদেবতার হাত থেকে।
[০১: ১৩]
অতএব, তোমরা তোমাদের মমতাময়ী মায়ের কোন অনুগ্রহকে অস্বীকার করবে?
[০১: ১৪]
তিনি মানুষকে সৃষ্টি করেছেন নিজের রক্তমাংশের শরীরের অংশ থেকে।
[০১: ১৫]
দশ মাস অক্সিজেন দিয়েছেন নিজের ফুসফুস থেকে-খাদ্য দিয়েছেন নিজে অভুক্ত থেকে।
[০১: ১৬]
অতএব, তোমরা তোমাদের মমতাময়ী মায়ের কোন কোন অনুগ্রহ অস্বীকার করবে?
[০১: ১৭]
তিনি পৃথিবীর বুকে অনাদীকালের নির্যাতিত, নিপীড়িত-পুরুষশাসিত সমাজ দ্বারা।
[০১: ১৮]
অতএব, তোমরা সেই মমতাময়ী মায়ের কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?
[০১: ১৯]
তিনি ভালবাসার উষ্ণ ঝর্নাধারা প্রবাহিত করেছেন।
[০১: ২০]
বুকের দুধ দ্বারা পুষ্টি যুগিয়েছেন, যার ঋণ শোধ করা যায় না।
[০১: ২১]
অতএব, তোমরা তোমাদের মমতাময়ী মায়ের কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?
[০১: ২২]
উভয় স্তন থেকে উৎপন্ন হওয়া দুধের প্রবাহ, যা গঠন করে মস্তিষ্ক, হাত পা এবং শরীর।
[০১: ২৩]
অতএব, তোমরা তোমাদের মমতাময়ী মায়ের কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?
[০১: ২৪]
অতএব তুমি বল, মমতাময়ী মা'ই সর্বশ্রেষ্ট ঈশ্বর।
[০১: ২৫]
পরম করুনাময়ী, দেবী তিনি, স্রষ্টা সমগ্র মানবজাতির।
[০১: ২৬]
আর তোমরা তোমাদের মমতাময়ী মায়ের কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?
[০১: ২৭]
এবং আরাধনা কর তোমাদের নিজ নিজ মাতৃকুলের
[০১: ২৮]
নিশ্চয়ই সেই আরাধনাই শ্রেষ্ট আরাধনা
[০১: ২৯]
এবং তোমরা ন্যায়ের পথে চল, সত্যের পথে চল।
[০১: ৩০]
নিশ্চয়ই তাতেই মানবজাতির মঙ্গল
[০১: ৩১]
আর ভালবাসো মানুষকে, ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ নির্বিশেষে।
[০১: ৩২]
তিনি যেমন ভালবেসেছেন তোমাকে।
[০১: ৩৩]
যে ভালবাসা ভয় বা লোভের মাধ্যমে অর্জিত নয়।
[০১: ৩৪]
অতএব, তোমরা সেই মমতাময়ী মায়ের কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?
[০১: ৩৫]
অতএব, তোমরা তোমাদের মমতাময়ী মায়ের কোন কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?

-নাস্তিক পয়গম্বর আসিফ মহিউদ্দীনের উপরে নাজিলকৃত
নাজিলের সময়ঃ ২৫ জুন, ২০১০।

মন্তব্য


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হইলোনা তো


পরম মমতাময়ী মা যিনি শিক্ষা দিয়েছেন প্রিয় বাঙলা বর্নমালা
মুনাফেক আসিফ মহিউদ্দিন দিয়াছেন তা ছুড়িয়া
মুনাফেকরা শ্রবন করে হিন্দি গান
শ্রবন করিয়া শিখিয়াছেন হিন্দিতে সবই দস্তুর



আমার ব্লগে পুনঃ স্বাগতম।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার সম্পর্কে দুষ্টলোকে কয়, আমি কোনখানে গেলে অন্যরা টিকতে পারে না। আপাতত সময় ভাই, তয় সময় থাকলে দেখতাম এই অঞ্চলে কেডা কেডা আছে বাপের বেটা।

ধইন্যাপাতা।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সাবাস, সামু'র ভাড় আইসা পড়ছে আমার ব্লগে... বিনোদনের আর অভাব হবে না... পৃথিবীতে আজ বিশুদ্ধ বিনোদনের বড়ই অভাব।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ছি ছি গায়ে গন্ধ নাকি তোমার? গোসল করবা দুই বেলা সময় মতো।

একদিন সময় কইরা আইসো। তোমার সাথে আলাপের বড় শখ। ফেসবুকে গুতাইয়া মজা নাই। ব্লগে গুতানো মজাই অন্যরকম।

অফটপীক: আচ্ছা আমার যে এ গুতানো রোগ এ বিষয়ে ফ্রয়েড কি কয়?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবদমিত কামনার প্রকাশ।

আপনে সমকামী কিনা পরীক্ষা কইরা দেইখেন। আমার সন্দেহ আপনে সমকামী, তবে নিশ্চিতভাবে কইতে পারুম না। বেশি কইরা গে পর্ণ দেইখা তাকাইয়া দেখবেন নড়াচড়া করে কিনা।

অবশ্য সমকামীদের আমি ঘৃণার চোখে দেখি না। তাদের মানবিক অধিকারের পক্ষে সামুতে পোস্টাইছিলাম। দেইখেন সময় কইরা। Wink


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবদমিত কামনা বাসনা থাকলে তো তোমার থিওরী অনুযায়ী আর বেশী ক্রিয়েটিভ লিটারেচর বাইর হইতো।সেটা না হইয়া শুধু তোমার গুতানোর কারুন কি?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হে পয়গম্বর বায়াত করতে চাই।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপাতত একটা বই পড়তাছি, হাতে একদম সময় নাই। কালকা আয়া আপনের লগে কথা কমু নে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পোলা বানদর পোলা বানদররে করলে হে সমকামি(!!!) । পোলা বানদর পোলা নবীরে করলে বা করতে চাইলে কি হইবো?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এ্যা চিপ মহিউদ্দিন, মা নিয়া বেশী বাড়াবাড়ি করন ঠিক না। মুসলমানগরে খুচানির উদ্দ্যেশ্যে মা শব্দটার এমুন বেভার খুবই খারাপ মানসিকতার পরিচয় দিছে। বোলগের লেখক হওনের আশায় মা জাতির সন্মান নিয়া খেলা করা ঠিক না।



এই বেদ্দপগুলাই কিন্তু সাধারন পাপী-তাপী মাইনষের কাছে বোলগের বদনাম করায়। অর উদ্দেশ্য ভালা হৈলে মা নিয়া লেখতে মন চাইলে নয়া পোস্ট লেখুক। কিন্তু এয় কামডা কি করছে!

---------------------------

বহুবার পতিত হয়ে
শক্ত হয়েছি বেশ,
কারন আমি জেনে গেছি
পতনেরও আছে শেষ!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেশী পাঁঠা, ভুইলা গেছ নাকি? মনে নাই থাবরের কথা? গালে তো এখনও দাগ থাকনের কথা। সামুতে যেমনে থাবরাইছি, তোমার পরবর্তী প্রজন্মের গালেও তো দাগ থাকনের কথা।

তয় তোমারে নিয়া লোকজনে সময় নষ্ট করতে না করছে। তোমারে থাবরাইলে নাকি নিজেরই ইজ্জত যায়। কি মুসবতের কথা কও দেখি!!!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হায়রে আবাল, বিবর্তনে কত মাছের থন পক্ষি হৈয়া গেল আর তুমি হালায় অহনতুরী আবাল থন মানুষ হৈলা না।

বাল্যকালে লগেরটিরে কৈতাম, তোরে ১০টা গোল দিমু।
উত্তর দিত, আমি তরে ২০টা দিমু।
আবর কৈতাম, ১০০ টা গোল দিমু।
ওই কৈতম, ২০০ টা দিমু।
পরে কৈলাম, তুই যতগিলা দিবি আমি তার চেয়ে সবসময় ১টা বেশী দিমু।

পরে আমি ওরে দেখলেই কৈতাম, হারু পাট্টি! কিন্তু দেখো তোমার মত আবালেও নিশ্চয়ই বুঝছো যে "খেলা কোনদিন অহেই নাই" হার-জিত হৈল কৈ থন?

আগামীতে বাচ্চা পোলাপানগো লাহান, এই জাগায় এর বাল চাইছা দিছি, মেজাজ খারাপ কৈরা উই জাগায় এর সোনাডা পোন্দে নিছি, আরেক জাগায় জিদ্দে হেরে ধৈরা ব্লো জব দিছি এইত্তা কওনের আগে ভাওয়াল রাজার নাম স্বরন কৈর। তড়পানি কমবো।

তোমারে কিচ্ছু কৈলাম না খালি একটু ইশারা দিলাম।

---------------------------

বহুবার পতিত হয়ে
শক্ত হয়েছি বেশ,
কারন আমি জেনে গেছি
পতনেরও আছে শেষ!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শুধুই হাসলাম । হা হা হা । হিংসা বিদ্রুপ করা ঠিক নয় ! এই নীতি বাক্য কি আলতুর ছেলে ফালতু কে তার মা শিখাই নাই ।

¥€$


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শুধুই হাসলাম । হা হা হা । হিংসা বিদ্রুপ করা ঠিক নয় ! এই নীতি বাক্য কি আলতুর ছেলে ফালতু কে তার মা শিখাই নাই ।

¥€$


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভালই! গুতা গুতি করতে আয়া পড়ছেন। তবে জান্তাম আসবেন। আপ্নার লেখা পড়তে ভাল লাগে।
পুনঃ স্বাগতম।

--------------------------------------------------------------------------------
আবার আসিব ফিরে, ধানসিঁড়ি নদিটির তীরে এই বাংলায়


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ব্যাপুক আতলামী, আতলামী করা কি আজকাল একটা আর্ট হলো নাকি ? Shock Shock

________________________________________________________________________

একটা হাতিয়ার দাও
আমি সূর্য্যটাকে লুট করবো,
অতবড় ছায়াদানব, আজ প্রকাশ্যে
হাতিয়ার নেই আজ হাতের কাছে...........।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সুরা ভালৈছে

___________________
------------------------------
শ্লোগান আমার কন্ঠের গান, প্রতিবাদ মুখের বোল
বিদ্রোহ আজ ধমনীতে উষ্ণ রক্তের তান্ডব নৃত্য।।
দূর্জয় গেরিলার বাহুর প্রতাপে হবে অস্থির চঞ্চল প্রলয়
একজন সূর্যসেনের রক্তস্রোতে হবে সহস্র নবীন সূর্যোদয়।।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সুরা ভালো হইছে।

[০১: ৩১]
আর ভালবাসো মানুষকে, ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ নির্বিশেষে।

আপনার সুরা যতটুকু উদারতা দেখাইছে কোরাণের সুরাও তা দেখায় নাই।

কোরাণ হাদিসে আছে মসজিদ নির্মাণে পুরুস্কারের কথা; আর তাই পৃথিবীতে মুসলমানেরা মসজিদ বানাইয়া ভরে ফেলছে। আজ যদি কোরাণ হাদিসে মসজিদের বদলে গ্রন্থাগার নির্মাণের নির্দেশ থাকতো তাইলে আমাদের পৃথিবীটাই অনেক এগিয়ে যেতো।

>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>
Only constant is change


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

#প্রত্যেক নর নারীর জন্য বিদ্যার্জনকে ফরজ করা হয়েছে।
#কোরআনে জ্ঞ্যান অর্জনের জন্য বহিবার বলা হয়েছে।
#মসজিদ শুধু নামাজের জন্য নয়। এটা শিক্ষার একটি পবিত্র স্থানও বটে। ইসলামের শুরুতে মসজিদই ছিলো সকল কিছুর কেন্দ্রবিন্দু। আজকে মুসলিমরা যদি সেই শিক্ষা থেকে দূরে সরে যায়, তার জন্য ইসলামকে কেন দায়ী করবেন?

ইসলাম বাদে অন্য কোন ধর্মের এমন একটি নির্দেশনার উদাহরণ দিন, যেটা দেখে মানুষ বুঝবে যে সেই ধর্মটিও শিক্ষাকে এভাবে গুরুত্ব দিয়েছে। অপেক্ষায় থাকলাম @ খা. মা

~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
বহতা নদীর মতো বয়ে চলে সময়, সাথে চলে জীবন নামের তরী, কখন ডুবে যাবে, কে জানে!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এইখানে কিন্তু আপনার কম্পিটিশন আছে। মাটি বাবা আছে উনিও ওহী পান। তবে আম জনতার জন্যে ভাল হবে। যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

.
~ ‎"বিদ্যা স্তব্ধস্য নিস্ফলা" ~


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমাদের ধর্ম অনেক বেশী আধুনিক ও বিজ্ঞান সম্মত। এ নিয়ে দয়া করে হাসি ঠাট্টা করবেন না।

আমাদের প্রথম অহিই এসেছে মাগুর মাছ খাওয়া নিষিদ্ধ করে।


আধুনিক বিজ্ঞানও গবেষনা করে একই রায়ই দিয়েছে। বিশ্বাস না হলে নীচে দেখেন।
http://www.sciencedaily.com/releases/2009/12/091203222139.htm

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হে নবীগণ !আপনাদের উপর নাযিল হয়া অহি কত দিন পর উম্মতগনের নিকট বিতরণ করেন? অদ্যবদি উইকিলিক্স কি বিতরনের আগে কোন অহি ফাস করতে পেরেছে?
জানিতে যথেষ্ঠ পরিমানে আগ্রহ জন্ম নিয়েছে।

------------------------------------------------------------------------------------------------
তপস্যা নমিত্ত-
হাস্য/লাস্য/তৃষ্য/ঈর্ষা/শৈশ্য/শিষ্য/শ্লািঘ্য/হাস্তি/স্ব্যস্ত্যয়ণ/বৈশ্য
চৈতণ্য চ্যাবণ প্রাস-
নৈবচ নৈবচ


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ও হে ধমাধম বিশ্বাসী,

সকল দিন তো দমে টান দেই নাই, তাই অহিও আসে না।

উইকিলিক্স হরলিক্স কারোই বাপের ক্ষমতা নাই আমাদের ওহি ফাঁস করার।

------------------------------------------------
পৃথিবী আজ দুই ভাগে বিভক্ত। আস্তিক এবং নাস্তিক; আমি অবশ্যই আস্তিকের দলে। যে কম্পিউটরে ব্লগিং করছেন সেও কিন্তু হতে পারে এক ভয়াবহ ঘৃন্য নাস্তিক, আজই পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়ে নিন।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার ব্লগে আপনার নিক ৩ বছর আগে রেজি করা ছিল এইটা জানা ছিল না ! যাই হোক আমার ব্লগে আপনাকে স্বাগতম ।

____________________________________
একটা টাইম মেশিন দরকার ছিল, কেউ কি ধার দিবেন ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সামুতে আপনার লেখা সবসময় পরি। আশা করি এখানেও নিয়মিত লিখবেন। ধন্যবাদ।

------------------------------------
উপদেশের চেয়ে দৃষ্টান্ত বেশী শিক্ষণীয়


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মায়ের জন্য আপনার অনুভূতি ঠিক আছে, কিন্তু উস্কানি দেওয়ার জন্য মাকে ব্যবহার করলেন কেন?

__
দুই ধরন ধরণীর অধিবাসীর--
যাদের বুদ্ধি আছে, নাই ধর্ম,
আর যাদের ধর্ম আছে, অভাব বুদ্ধির।
--একাদশ শতকের অন্ধ আরব কবি আবুল 'আলা আল-মা'আররি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আচিফ মহিউদ্দিন, আপনে যকন সামুতে প্রথম প্রথম লেখতেন তখন বিশাল গিয়ানী ভাব ধইরা থাকতেন, প্রশ্ন করলে টেমপ্লেট আকারে কিছু অমিয়বানী প্রত্যুত্তর করতেন। ভাব ধরতেন যে, আপনি আলোকবর্তিকা হাতে মহামতি প্লেটো, এরিষ্টটলের পূনর্ভাবিত মহাপুরুষ। ধীরে ধীরে আপনারে মানুস চিইন্যা ফালাইলো। আপনারা বলা হইতো লাগলো আবাল চীফ, নাস্তিক শূ**। হার্ডডিস্ক, অপটিক্যাল ড্রাইভার অকোজে হওয় হওয়া রিড অনলী(নট রিরাইটেবল) নাস্তিক।যাই হোক, এগুলা কোন ব্যপার না। আপনে খালি বই পড়েন, বই পইড়্যা জ্ঞানী কম্যূনিষ্ট হোন। কিন্তুক আপনেগো কম্যুনিষ্ট,নাস্তিক ভাইগো পড়ালেখার বহর দেইখ্যা আমি আইজকা টাস্কিত হয়ে গেলাম। আমার এই সাতাশ বছরের জীবনে কতো কতো অক্ষরজ্ঞানসম্পন্ন হওয়ার পর থেকে কত কত বই পড়লাম। শিশুতোষ,সেবা প্রকাশনী,হুমায়ূন আহমেদের মতো জনপ্রিয় সাহিত্য হতে শুরু করে কলেজ জীবনে 'মুজিব হত্যার সেই রাত' এর লেখক, সাংবাদিক(অনেক বছর ধরে জাপানপ্রবাসী) ভাইয়ের লাইব্রেরীতে হুমায়ূন আজাদ, তসলিমা সহ কত কত লেখকের বই, বিদ্যালয়ের জীবনে রাশিয়া সাহায্যপুষ্ট চমৎকার বাঁধাইয়ের হোয়াইট প্রিন্ট সংস্করনের কতো বিশ্ববিখ্যাত সমাজতান্ত্রিক লেখকের বই আর সুনীল, শীর্ষেন্দু, সমরেশসহ এই জীবনে স্বাভাবিকভাবেই নিজের আনন্দের জন্য এত এত বই পড়েছিযে, অনেক বইয়ের নাম মনে নেই। আপনাগো 'নাগরিক ব্লগ' এ রামানুজ পুরোহিত নিকধারী জনৈক ব্যক্তি লক্ষীকান্তপুর লোকাল নামে আজকে একট গল্পের পোষ্ট দিলো। গল্পটি শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের ঘূনপোকা(স্মৃতি প্রতারনা না করলে বইয়ের নাম ঘূনপোকা) নামক সমাজে অপাঙ্কেতয় এক প্রাক্তন নক্সালের জীবনকাহিনীভিত্তিক উপন্যাস হতে নেয়া হয়েছে। আপনাদের এত এত প্রিয় নাস্তিক কম্যুনিষ্ট ভাই কাওছার আহমেদ, ধুমকেতু ৭১ ,ধ্রুব তারা বর্ষার মেঘমালা ,নুর নবী দুলাল , ডাঃ আতিক ,নাগরিক বায়স কেউ ব্যপারটা ধরতে পারলোনা! সবাই মনে করলো ঐটা রামানুজ পুরোহিতের নিজের লেখা!!
দেখেন কিছু কমেন্ট:

কমেন্টাইছেন: কাওছার আহমেদ » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ১৩:৫৯ শেষভাগ
কাওছার আহমেদ -এর ছবি

অর্ধেক পড়লাম, কারণ আগ্রহ চলে গেছে, কারণ অর্ধেক পড়েই বুঝলাম, আপনি কাহিনীর চেয়ে ভাষার দিকেই বেশি কনসার্নড ছিলেন, তারা যে খিস্তি দেয় কথা বলার সময় সেটা আপনি বোঝাতে গিয়ে আপনি খাজনার চেয়ে বাজনা বেশি বাজিয়েছেন। যে কারণে স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় ৫, ৬ গুন বেশি খিস্তি চলে এসেছে ভাষায়, যে সমাজের অথবা যে শ্রেনীর কাহিনী বলেছেন তা যে বাংলাদেশে শুধু আপনি একা'ই দেখেছেন তা নয়, এই শ্রেনীর গল্প, ভাষা, নাটক, সিনেমা, উপন্যাস এরআগেও পড়েছি, বাস্তবেও যে একেবারে চোখে পড়েনি তা নয়, তাই বলছিলাম, ধূমায়া মসলা দিলেই রান্না মজা হয় না, বরং সেটা কুৎসিত একটা জিনিসে পরিনত হয়।

আপনার গল্পটাও আমার কাছে ডিস্টার্বিং মনে হয়েছে।
কমেন্টাইছেন: ধুমকেতু ৭১ » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ২১:৫৩ শেষভাগ
ধুমকেতু ৭১ -এর ছবি

ধূমায়া মসলা দিলেই রান্না মজা হয় না, বরং সেটা কুৎসিত একটা জিনিসে পরিনত হয়।

থাম্বস আপ থাম্বস আপ থাম্বস আপ


কমেন্টাইছেন: ধ্রুব তারা » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ২১:৫৯ শেষভাগ
ধ্রুব তারা -এর ছবি

যে সমাজের অথবা যে শ্রেনীর কাহিনী বলেছেন তা যে বাংলাদেশে শুধু আপনি একা'ই দেখেছেন তা নয়

চশমা দিয়া দেইখ্যা লই চশমা দিয়া দেইখ্যা লই চশমা দিয়া দেইখ্যা লই

গল্পটি কোলকাতার ঘটনাপ্রবাহে ল্যাখা বাংলাদেশের নয়

কমেন্টাইছেন: কাওছার আহমেদ » ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১১, বুধবার, ১২:০৯ শেষভাগ
কাওছার আহমেদ -এর ছবি

বাংলাদেশে শুধু আপনি বাংলাদেশের দর্শক বোঝানো হইসে!! চশমুদ্দিন
কমেন্টাইছেন: বর্ষার মেঘমালা » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ১৫:২৫ শেষভাগ
বর্ষার মেঘমালা -এর ছবি

ভাই গালির ভীড়ে গল্প বের করাটা একটু কষ্টসাধ্য হয়ে গিয়েছিল..... খেয়াল কইরা ।

কমেন্টাইছেন: মাটির মানুষ » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ১৮:৩২ শেষভাগ

ফালতু
কমেন্টাইছেন: নুর নবী দুলাল » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ২০:৩৮ শেষভাগ
নুর নবী দুলাল -এর ছবি

কোন রকমে কষ্ট করে অর্ধেক পড়লাম। বাকিটা পরে একসময় পড়ে মন্তব্য করব। খিস্তির ভারে মাথাটা ভোঁ-ভোঁ করছে। আগে থিতু হয়ে নিই। খাইছে!

---------------------------------------
বিপন্ন বিস্ময়ের অন্তর্গত খেলায় ক্লান্ত।
---------------------------------------

মন্তব্য লিখতে চাইলে লগিন অথবা নিবন্ধন করতে হবে।

কমেন্টাইছেন: ধ্রুব তারা » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ২১:৪২ শেষভাগ
ধ্রুব তারা -এর ছবি

মাঝপথের পর গল্পটা জমে উঠেছিল। গল্পের শুরুতে যে সমস্যা ছিল তা হচ্ছে অধিকাংশ লাইন-ই চরিত্রদের উক্তি। তাই একটু থতমত খেয়ে উঠতে হয় তাদের নিরন্তন খিস্তিতে। হয়তো যদি বর্ণনা নির্ভর হতো তবে পাঠকের সুবিধা হতো। আর একটি নির্দিষ্ট খিস্তির বারবার ব্যাবহার ব্যাপারটিকে বোরিং করে তোলে।

গল্পের থিমটা ভাল লাগল। থাম্বস আপ থাম্বস আপ


কমেন্টাইছেন: ডাঃ আতিক » ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১১, মঙ্গলবার, ২১:৪৯ শেষভাগ
ডাঃ আতিক -এর ছবি

আমার কাছে তো ভালই লাগল। যদিও ধ্রুবতারার সাথে একমত। একটা নির্দিষ্ট খিস্তির ব্যবহার একটু বেশী হয়ে গেছে, পড়ার সময় যেটা একটু চোখে লাগে। এছাড়া বাকীটা ঠিক আছে।

..

কমেন্টাইছেন: নাগরিক বায়স » ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১১, বুধবার, ০০:৪৬ প্রথমভাগ
নাগরিক বায়স -এর ছবি

গল্পের সাইজ আসলে মেগা না, গিগা সাইজ হইছে দাদা... একটু এডিট করে সাইজ করে যদি পোষ্টাইতেন চিন্তায় আছি চিন্তায় আছি চিন্তায় আছি

এই প্রসঙ্গে হুমায়ূন আহমেদের একটা সাক্ষাৎকারের বই(কোন এক প্রত্রিকায় শাহরিয়ার কবির সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন, পরে সেটাই বই আকারে বের হয়) এর মনে পড়লো। সেখানে হুমায়ূন আহমেদ মনের দু:খে বলেছিলেন, হুমায়ূন আহমেদ যে বইই লেখেননা কেন বাংলাদেশের বেঁচে থাকা মহা মহা সাহিত্যিকেরা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তাঁর সহকর্মীরা সেই লেখাকে অতি হালকা লেখা বলে উড়িয়ে দেন। হুমায়ূন আহমেদ একদিন পরীক্ষা করে দেখতে চাইলেন, আসলেই তাঁরা সাহিত্য মান মূল্যায়ন করতে পারেন কিনা। এজন্য একদিন তিনি যথাসম্ভব তারাশংকর বা অন্য কারো শৈলজা গল্পটি শুধুমাত্র পাত্রপাত্রীর নাম বদল করে নিজের লেখা হিসেবে অনেককে পড়তে দিলেন। এবারও যথারীতি সবাই লেখাটিকে হালকা লেখা হিসেবে রায় দিয়ে দিলো!! এই হলো অবস্থা! অন্তত: দুলাল ভাই, ডা: আতিকের মতো আঁতেলদের পড়াশোনার বহর দেখে হতাশ হলাম!! নিজে যারে বড় বলে বড় সেই হয়, তাই নাকি????????????????????????????????


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কাওছার আহমেদ, ধুমকেতু ৭১ ,ধ্রুব তারা বর্ষার মেঘমালা ,নুর নবী দুলাল , ডাঃ আতিক ,নাগরিক বায়স এর মন্তব্যের দায়ভার কিভাবে আসিফ মহিউদ্দীনের উপরে বর্তায় ঠিক বোধগম্য হইলো না। এই দায় আসিফের উপরে এতটাই বর্তায় যে আসিফকে গালিও দেয়া যায়। খুবই উত্তম প্রস্তাব।

কোন বিশেষ উপন্যাস কারো না পড়া থাকতেই পারে, এটা নিয়ে এত তীব্র সমালোচনারও কিছু নাই। এই ধরণের ঘটনা ইতিহাসের পাতায় পাতায় দেখা যায়।

চার্লী চ্যাপলিন একবার এক অখ্যাত শহরে গিয়ে দেখলো সেখানে চার্লী চ্যাপলিনের অনুকরন করার প্রতিযোগীতা হচ্ছে। সকলেই চার্লী চ্যাপলীন সেজে প্রতিযোগীতায় অংশ নিচ্ছে, কে কত নিঁখুত চার্লী চ্যাপলিন হতে পারে। চার্লী চ্যাপলিনের মাথায় দুষ্টু বুদ্ধি চাপলো, সেও প্রতিযোগীতায় নাম লেখালো।

ফলাফলঃ আসল চার্লী চ্যাপলিন প্রতিযোগীতায় ১৭ তম স্থান অধিকার করলো।

এখন কি বলবেন?

আর আপনাকে আমি চিনি না। অচেনা একজনকে এভাবে গালাগালি দিয়ে গ্রহণ করাটা কি আমারব্লগের কালচার নাকি আপনার অভ্যাস?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মায়ের প্রতি মমতায় আসিফের মন যেমন আদ্র হয় , তেমনি কারো লিঙ্গ মায়ের প্রতি দৈহিক কামনায় উত্থিত্ত এবং স্খলিত হলেও আসিফ তাকে সমর্থন জানায় | দুইজন রাজি থাকলেই হইলো | মা-বোন এর সাথে সেক্স এর বিষয়ে একটা সুরা লিখেন আসিফ সাহেব | আপনার মুক্তমনের পরিচয় সবাইরে দেন |


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এ সুরায় কি কি বৈগগানিক আয়াত আচে সেগুলা উললেখ করনের দরকার। কে জানে কখন দরকার হইয়া পড়ে।
একটা পাইচি--

দশ মাস অক্সিজেন দিয়েছেন নিজের ফুসফুস থেকে-খাদ্য দিয়েছেন নিজে অভুক্ত থেকে।


-- দেখচ কি বৈগগানিক?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমার ভালো লাগলো আসিফ
আপনার লেখা পড়তে ভালো লাগে।
লিখুন এখানে ভালো লাগবে।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কুকুরের সাথে লাগতে যাব না, তবে একটা কথা সত্য যে ধর্ম না থাকলে সংসার থাকত না, আর আসিফ যদি কোন সংসারে না জন্মাত ওর মা ওকে জন্ম দিয়ে ডাস্টবিনে ফেলে যেত,এই বালছাল পোস্ট করার গাট তার থাকত না।

অফটপিক: গালু দেখি সবার গেলমান, বিএসএফরও গেলমান, আসিফেরও গেলমান। ওর হোগার কাছে ব্ল্যাকহোল ফেইল!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ঘোটক অবতার ,
আবার নিজের লেজ দেখিয়ে ফেললে বাবাজি
কৃপান আর লিঙ্গ সামলে ,কত বলেছি ওই দুটো ই তোমার নিজের দোষে পিছনে ঢুকে যেতে পারে তাও তুমি শোন না !
তোমার আর সত্যকথন এর স্বভাব গেল না
বাবার কত রূপ তা মুকুট / পাগড়ি দিয়ে কি অর্ধেক ও ঢাকলো
তুমি বাবা লিচু গাছ না কচু গাছ খোজ !
পাগড়ি দিয়ে কতো আড়াল করবে ? তোমার ভুবন মোহন রূপ ফেটে পরছে ! তবে বাবা এবার কিন্তু পেছন ফেটে বেরোচ্ছে
না তোমার পারফর্মেন্স খারাপ হচ্ছে,পুরো কি সিকি ও দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।
পরে এসো কেমন?
আর মুত কালচার শেষ হলে বলো বিষ্ঠা নিয়ে প্রজেক্ট টা করতে দেব।এবার কাজ দেখে মজুরি আর আগের মতো অর্ধেক না তা তুমি ঘোড়ায় চড়ে ,পাগড়ি পরে হাতে তলওয়ার বা নিজের লিঙ্গ যাই নিয়ে আস না কেন।
মান সম্পন্ন বিনোদন দিতে হবে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অহি-নাজিল

ওহি, ওয়াহউন= ইশারা, গোপন (ভাষাহীণ) বার্তা, গোপনে কারো অন-রে কোন বিষয় সৃষ্টি করে দেয়া, কারো নিকট প্রেরীত পয়গাম। [ আল-কাওসার, আরবী-বাংলা অভিধান] অর্থাৎ প্রেরণা।

অহি= Inspire, to give an idea, give an inspiration.

উহিয়া ইলাইয়া= it occurred to me, the idea suggested itself, I came to think, I was inspired, be guided by thought.

ওয়াহি= inspiration, revelation. [Arabic-English Dictionary; J M Cowan] অর্থাৎ প্রেরণা।

নাযালুন= বৃষ্টি, আধিক্য, বরকত, সুদৃতে আক্রান- হওয়া।

নাযলাতুন= সর্দি উর্বরভূমি, একবার অবতরণ করা।

নুযুলুন=অবতরণ করা, দাবী পরিত্যাগ করা,

নাযহুন= পরহেজগারী, পরিচ্ছন্নতা। (আরবি বাংলা অভিধান);

ইংরাজি অভিধানে অগুণতি অর্থ আছে তম্মধ্যে অবরোহণ, প্রজ্জলিত, উদ্ভসিত, অদৃশ্য থেকে অবতরণ (উদ্ভাসিত) ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য [ জে এম কাউয়ান)

‘হাওয়ারীদের প্রেরণা (অহি) দিলাম ( ৫: মায়েদা-১১১), -মৌমাছিকে প্রেরণা (অহি) দিলাম (১৬: নাহল-৬৮,৬৯)। মৌমাছির প্রাপ্ত অহির সঙ্গে মানুষের প্রাপ্ত অহির ভাষার পার্থক্য ছাড়া আর কোন পার্থক্য নেই।

পূর্বেই আলোচিত হয়েছে যে, স্রষ্টা-সৃষ্টের অনবরত প্রেম সংঘর্ষের ফলে যে প্রেরণা বাণী হৃদয় থেকে উত্থিত হয় বা বেজে উঠে তা স্ব স্ব মূখের ভাষায় স্বতঃফূর্তভাবে প্রকাশিত হয় উহাই অহি- নাজিল; দুধ থেকে যেমন মাখন বের করা হয়।

সপ্তম আসমানের উর্দ্ধে মটকীর মত বরই বাগানের পাশে (ছেদ্রাতুল মোন্তাহার) আল্লাহর বসতবাড়ী থেকে জিব্রাইল সাহেব আরবি ভাষায় অহি বা খবরা-খবর মোহাম্মদের কানে পৌঁছায়নি; বরং পেঁছৈিয়েছে তার হৃদয়ে! হৃদয়ের বর্ণহীণ প্রেরণা মূখের বর্ণ-ভাষা আরবিতে প্রকাশ হয়েছে।

১. বল! যে কেহ জিব্রাইলের শত্রু এজন্য যে, সে আল্লাহর নির্দেশে তোমার হৃদয়ে কোরান পৌঁছিয়ে দিয়েছেন, যা উহার পূর্ববর্তী কিতাবের সমর্থক এবং যা মুমিনদের জন্য পথপ্রদর্শক ও শুভ সংবাদ। [২: বাকারা-৯৭]

২. আল কোরান জগতসমূহের প্রতিপালক থেকে অবতীর্ণ। জিব্রাইল ইহা নিয়ে অবতরণ করেছে তোমার হৃদয়ে, যাতে তুমি সতর্ককারী হতে পার; অবতীর্ণ করা হয়েছে সুস্পষ্ট আরবি ভাষায়। [২৬: শুয়ারা- ১৯২-১৯৫]

আয়াতদ্বয়ে ‘কোরান’ শব্দটি নেই; সহজবোধ্যের জন্য সর্বনাম ‘হু’ অর্থে ‘কোরান’ অনুবাদ করা হয়েছে। ২ নং আয়াতে ‘জিব্রাইল’ শব্দটি নেই, আরবি ‘রহুল আমিন’ এর অনুবাদ আরবি ‘জিব্রাইল’ করা হয়েছে, যা কোন মতেই অনুবাদ নয় এবং আল্লাহ উপর এমন কর্তৃত্ব সঙ্গত নয়।

‘রুহ্‌‌’ অর্থ জীবন বা আত্মা; আমিন অর্থ বিশ্বস্ত’, ট্রাষ্টি, সেক্রেটারী; ( দ্র: আল-কাওসার, আধুনিক আরবি-বাংলা অভিধান; মা. মুহিউদ্দীন খান)। সুতরাং ‘জিব্রাইল বা রূহুল আমিন’ অর্থ সমর্পিত, বিক্রিত বা পবিত্র আত্মা। স্ব স্ব পবিত্র আত্মা বা স্ব জ্যোতিদেহ স্বতন্ত্রভাবে পবিত্র দেহের সামনে অপরূপে সাকারে প্রকাশ হয় বা হতে পারে এবং তিনিই জিব্রাইল এবং সৃষ্টির সামগ্রিক বা একাকার জ্যোতিদেহই আল্লাহ। সীমিত দেহ ভান্ডের কারণে সীমিত জ্যোতি দেহই জিব্রাইল বা স্ব স্ব আল্লাহ। একাকার আল্লাহর সর্বনাম ‘নাহনু’ শব্দের ব্যবহার ইহাও অন্যতম কারণ।

এমন পবিত্র জীবন বা আত্মা সম্বলিত আত্মসমর্পিত মানুষ ছিলেন হযরত মুহাম্মদসহ সকল রাছুল-নবিগণ, ‘আল আমিন’ তাঁর একটি সর্বজনবিদিত নামও।

উপরোল্লিখিত শব্দর্থের আলোকে ‘নাজিল’ শব্দে সরাসরি ‘পাঠাই, পৌঁছাই’ বুঝায় না। জীবের হৃদয়ই যখন আল্লাহর আরশ (দ্র: ২৪: নূর- ৩৫, ৮: আনফাল-২৪) এবং মানুষই যখন সৃষ্টির শ্রেষ্ট তখন আলাদা অকল্পনীয় কথিত ‘জিব্রাইল’ সাহেব পাখীর মত ৪টি/৭০ হাজার (রূপক) পাখনা মেলে কোথা থেকে কোথায় উড়ে উড়ে অহি বহন করেন! নুতন যুগে তা একান্ত ভাববার বিষয়।!!!

http://youngmuslimsociety.com/?p=309


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মাশাল্লাহ!!! আমার হৃদয়েও জিব্রাইল এসেছিলেন বটে। Laughing out loud


মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেখতে হবে ।

নাস্তিকদের এত গা জ্বালা করে কেন বুঝি না । তোমরা যদি সত্যে থাক , ভাল কথা । উস্কানিমূলক কথার দরকার কি ? এটার অথই হল নৈতিক দিক দিয়ে তোমরা দূর্বল । অনেক ইতিহাসের মাঝে ইসলামের ইতিহাসও একটা । বিবিসিতে দেখলে প্রবলেম কোথায় ?

¥€$


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জৃলে কার?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আসলেই জ্বলে কার?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনার এই লেখাটা আমার অনেক পছন্দের, ইনফ্যাক্ট এই লেখাটা পড়েই আমি ফেইসবুক এবং সামুতে আপনাকে ফলো করা শুরু করি, এর আগে সামুতে যাওয়াই হতো না। আর একটা প্রসংসা আমি আপনার সবসময়ই করবো, আপনার মতো ইনফ্লামেটোরি লেখা লিখতে আমি খুব বেশী মানুষজনকে দেখি নাই!!! ইছলামিস্টদের মাথার তার-তুর, দড়ি-মড়ি তো একটাও ঠিক থাকার কথা না লেখা পইড়া!!! যাই হোক, আপনাকে এইখানে দেখে ভাল্লাগ্লো! চালিয়ে যান কোপাকুপি। আপনার লেখা নিয়মিত চাই।

ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের ক্রন্দনধ্বনি ম্লান হয়ে যায়
কতলের উৎসবে
আগুন আত্মাহুতি দেয় আমার বরফশীতল দরিদ্র চোখে!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@ আসিফ মহিউদ্দীন,


তোমরা ন্যায়ের পথে চল, সত্যের পথে চল।
নিশ্চয়ই তাতেই মানবজাতির মঙ্গল
আর ভালবাসো মানুষকে, ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ নির্বিশেষে।
তিনি যেমন ভালবেসেছেন তোমাকে। (তোমাদিগকে?)
যে ভালবাসা ভয় বা লোভের মাধ্যমে অর্জিত নয়।
অতএব, তোমরা সেই মমতাময়ী মায়ের কোন অবদানকে অস্বীকার করবে?


চমৎকার বলেছেন। আপনাকে সহ এ পর্যন্ত চার জন বাংলভাষী পয়গাম্বর পেলাম। পথভ্রষ্টদের কথায় কান দেবেন না, তাদের সাথে অনর্থক তর্কে জড়াবার প্রয়োজন নেই। আপনার উপর নাজিলকৃত প্রত্যাদেশ, চিরন্থন বাণী আপনি প্রচার করে যান, আমরা আপনার সাথে আছি।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আপনি নাস্তিক ঠিক আছে, এই নাস্তিকতা প্রচারে কি ভালোভাব সমাজ কল্যাণমূলক কাজে অংশ নেওয়াই ভাল নয়? অন্য ধর্মের পিছনে না লেগে, হেয় না করে? এতে কি লাভ হয় জানি না.... ঈশ্বর নাই, ধর্ম অসার এগুলো জানাতে যুক্তি ব্যবহার না করে এভাবে অন্যের অনুভূতিতে আঘাত করা শোভন নয়, তাই নয় কি? তা আপনি সুশীল হোন বা নাই হোন.... ধন্যবাদ

glqxz9283 sfy39587p07