Skip to content

ইসলামের পথে চলতে চাই

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ফেইসবুক এবং
হোয়াটসএপ সহ
সামাজিক যোগাযোগ
মাধ্যম ব্যবহার
কারীরা হয়তো প্রায়ই
ইনবক্সে একটি
ম্যাসেজ পেয়ে
থাকেন... ম্যাসেজটি
নিম্নরুপঃ 'লা ইলাহা
ইল্লাললাহু
মুহাম্মাদুর রাসুল
উল্লাহ।' উপরের
কালেমা টি ৪০ জনকে
ম্যাসেজ করে পাঠান।
অথবা, 'ইয়া আল্লাহু',
'ইয়া রহমানু', 'ইয়া
রহিমু' আল্লাহর এই
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জনকে ম্যাসেজ করে
পাঠান। যদি পাঠান
তবে ৩ দিনের মধ্যে
নিশ্চিত কোন
সুসংবাদ পাবেন আর
যদি অবিশ্বাস করেন
তাহলে ৩ দিনের মধ্যে
কোন ক্ষতির সংবাদ
পাবেন.. ইত্যাদি !
ইত্যাদি ! এ জাতীয়
ম্যাসেজের সাথে
আমরা সবাই
পরিচিত। আগে যখন
মোবাইল ছিলো না,
তখন এসব কাগজে
ছাপিয়ে বিলি করতে
বলা হতো। মোবাইলের
ব্যবহার শুরু হওয়ার
পর থেকে ম্যাসেজ
করার কথা বলা হতো।
আর এখন এগুলো
ফেইসবুকে ইনবক্স
বলা হচ্ছে। আর
একজনের দেখাদেখি
একজন অন্যজনকে
ইনবক্সে ম্যাসেজ
পাঠিয়ে কথাগুলো
ছড়িয়ে দিচ্ছে। সবাই
কে অনুরোধ করছি,
আপনারা এ ধরনের
ম্যাসেজ পেলে
কখনোই অন্যকে
সেন্ড করবেন না।
আর সেন্ড করলেও
এটা লিখবেন না যে,
এত দিনের মধ্যে
সুখবর/দুঃখের পাবেন।
এগুলো হলো ঈহুদী-
নাসারাদের ষড়যন্ত্র।
ঈহুদী- নাসারারা এ
ধরনের কথা লিখে
মুসলিমদের মাঝে
ছড়িয়ে দেয়। এখন
কোন মুসলিম যদি
কালেমা বা আল্লাহর
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জন কে পাঠালো
কিন্তু ৩ দিনের মধ্যে
সে যদি কোন সুসংবাদ
না পায় তবে কালেমা
বা আল্লাহর নামের
প্রতি তার আস্থা
বিনষ্ঠ হতে পারে। সে
ভাবতে পারে, হয়তো
আল্লাহর নাম বা
কালেমার সুসংবাদ
দেয়ার কোনক্ষমতা
নেই... (নাউজুবিল্লাহ)
এভাবে ঈহুদী-
নাসারারা ইসলামকে
ধংস করার জন্য এবং
মুসলিমদের ঈমানকে
দুর্বল করার জন্য
সর্বদা ফাঁদ পেতে
চলেছে, তাদের পাতা
ফাঁদে ধরা দিবেন না...
আল্লাহর নিকট হতে
সুসংবাদ পেতে চাইলে
আল্লাহর হুকুম ও
রসুল (সাঃ) এর
নির্দেশ মেনে চলুন।
ফরজ, ওয়াজিব,
সুন্নাহ সঠিকভাবে
পালন করুন। ইনশা
আল্লাহ, সু- সংবাদ
পাবেন... আল্লাহ
আমাদের সকলকে
ইসলাম মোতাবেক
চলার তৌফিক দান
করুক.. (আমিন)ফেইসবুক এবং
হোয়াটসএপ সহ
সামাজিক যোগাযোগ
মাধ্যম ব্যবহার
কারীরা হয়তো প্রায়ই
ইনবক্সে একটি
ম্যাসেজ পেয়ে
থাকেন... ম্যাসেজটি
নিম্নরুপঃ 'লা ইলাহা
ইল্লাললাহু
মুহাম্মাদুর রাসুল
উল্লাহ।' উপরের
কালেমা টি ৪০ জনকে
ম্যাসেজ করে পাঠান।
অথবা, 'ইয়া আল্লাহু',
'ইয়া রহমানু', 'ইয়া
রহিমু' আল্লাহর এই
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জনকে ম্যাসেজ করে
পাঠান। যদি পাঠান
তবে ৩ দিনের মধ্যে
নিশ্চিত কোন
সুসংবাদ পাবেন আর
যদি অবিশ্বাস করেন
তাহলে ৩ দিনের মধ্যে
কোন ক্ষতির সংবাদ
পাবেন.. ইত্যাদি !
ইত্যাদি ! এ জাতীয়
ম্যাসেজের সাথে
আমরা সবাই
পরিচিত। আগে যখন
মোবাইল ছিলো না,
তখন এসব কাগজে
ছাপিয়ে বিলি করতে
বলা হতো। মোবাইলের
ব্যবহার শুরু হওয়ার
পর থেকে ম্যাসেজ
করার কথা বলা হতো।
আর এখন এগুলো
ফেইসবুকে ইনবক্স
বলা হচ্ছে। আর
একজনের দেখাদেখি
একজন অন্যজনকে
ইনবক্সে ম্যাসেজ
পাঠিয়ে কথাগুলো
ছড়িয়ে দিচ্ছে। সবাই
কে অনুরোধ করছি,
আপনারা এ ধরনের
ম্যাসেজ পেলে
কখনোই অন্যকে
সেন্ড করবেন না।
আর সেন্ড করলেও
এটা লিখবেন না যে,
এত দিনের মধ্যে
সুখবর/দুঃখের পাবেন।
এগুলো হলো ঈহুদী-
নাসারাদের ষড়যন্ত্র।
ঈহুদী- নাসারারা এ
ধরনের কথা লিখে
মুসলিমদের মাঝে
ছড়িয়ে দেয়। এখন
কোন মুসলিম যদি
কালেমা বা আল্লাহর
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জন কে পাঠালো
কিন্তু ৩ দিনের মধ্যে
সে যদি কোন সুসংবাদ
না পায় তবে কালেমা
বা আল্লাহর নামের
প্রতি তার আস্থা
বিনষ্ঠ হতে পারে। সে
ভাবতে পারে, হয়তো
আল্লাহর নাম বা
কালেমার সুসংবাদ
দেয়ার কোনক্ষমতা
নেই... (নাউজুবিল্লাহ)
এভাবে ঈহুদী-
নাসারারা ইসলামকে
ধংস করার জন্য এবং
মুসলিমদের ঈমানকে
দুর্বল করার জন্য
সর্বদা ফাঁদ পেতে
চলেছে, তাদের পাতা
ফাঁদে ধরা দিবেন না...
আল্লাহর নিকট হতে
সুসংবাদ পেতে চাইলে
আল্লাহর হুকুম ও
রসুল (সাঃ) এর
নির্দেশ মেনে চলুন।
ফরজ, ওয়াজিব,
সুন্নাহ সঠিকভাবে
পালন করুন। ইনশা
আল্লাহ, সু- সংবাদ
পাবেন... আল্লাহ
আমাদের সকলকে
ইসলাম মোতাবেক
চলার তৌফিক দান
করুক.. (আমিন)

ফেইসবুক এবং
হোয়াটসএপ সহ
সামাজিক যোগাযোগ
মাধ্যম ব্যবহার
কারীরা হয়তো প্রায়ই
ইনবক্সে একটি
ম্যাসেজ পেয়ে
থাকেন... ম্যাসেজটি
নিম্নরুপঃ 'লা ইলাহা
ইল্লাললাহু
মুহাম্মাদুর রাসুল
উল্লাহ।' উপরের
কালেমা টি ৪০ জনকে
ম্যাসেজ করে পাঠান।
অথবা, 'ইয়া আল্লাহু',
'ইয়া রহমানু', 'ইয়া
রহিমু' আল্লাহর এই
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জনকে ম্যাসেজ করে
পাঠান। যদি পাঠান
তবে ৩ দিনের মধ্যে
নিশ্চিত কোন
সুসংবাদ পাবেন আর
যদি অবিশ্বাস করেন
তাহলে ৩ দিনের মধ্যে
কোন ক্ষতির সংবাদ
পাবেন.. ইত্যাদি !
ইত্যাদি ! এ জাতীয়
ম্যাসেজের সাথে
আমরা সবাই
পরিচিত। আগে যখন
মোবাইল ছিলো না,
তখন এসব কাগজে
ছাপিয়ে বিলি করতে
বলা হতো। মোবাইলের
ব্যবহার শুরু হওয়ার
পর থেকে ম্যাসেজ
করার কথা বলা হতো।
আর এখন এগুলো
ফেইসবুকে ইনবক্স
বলা হচ্ছে। আর
একজনের দেখাদেখি
একজন অন্যজনকে
ইনবক্সে ম্যাসেজ
পাঠিয়ে কথাগুলো
ছড়িয়ে দিচ্ছে। সবাই
কে অনুরোধ করছি,
আপনারা এ ধরনের
ম্যাসেজ পেলে
কখনোই অন্যকে
সেন্ড করবেন না।
আর সেন্ড করলেও
এটা লিখবেন না যে,
এত দিনের মধ্যে
সুখবর/দুঃখের পাবেন।
এগুলো হলো ঈহুদী-
নাসারাদের ষড়যন্ত্র।
ঈহুদী- নাসারারা এ
ধরনের কথা লিখে
মুসলিমদের মাঝে
ছড়িয়ে দেয়। এখন
কোন মুসলিম যদি
কালেমা বা আল্লাহর
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জন কে পাঠালো
কিন্তু ৩ দিনের মধ্যে
সে যদি কোন সুসংবাদ
না পায় তবে কালেমা
বা আল্লাহর নামের
প্রতি তার আস্থা
বিনষ্ঠ হতে পারে। সে
ভাবতে পারে, হয়তো
আল্লাহর নাম বা
কালেমার সুসংবাদ
দেয়ার কোনক্ষমতা
নেই... (নাউজুবিল্লাহ)
এভাবে ঈহুদী-
নাসারারা ইসলামকে
ধংস করার জন্য এবং
মুসলিমদের ঈমানকে
দুর্বল করার জন্য
সর্বদা ফাঁদ পেতে
চলেছে, তাদের পাতা
ফাঁদে ধরা দিবেন না...
আল্লাহর নিকট হতে
সুসংবাদ পেতে চাইলে
আল্লাহর হুকুম ও
রসুল (সাঃ) এর
নির্দেশ মেনে চলুন।
ফরজ, ওয়াজিব,
সুন্নাহ সঠিকভাবে
পালন করুন। ইনশা
আল্লাহ, সু- সংবাদ
পাবেন... আল্লাহ
আমাদের সকলকে
ইসলাম মোতাবেক
চলার তৌফিক দান
করুক.. (আমিন)ফেইসবুক এবং
হোয়াটসএপ সহ
সামাজিক যোগাযোগ
মাধ্যম ব্যবহার
কারীরা হয়তো প্রায়ই
ইনবক্সে একটি
ম্যাসেজ পেয়ে
থাকেন... ম্যাসেজটি
নিম্নরুপঃ 'লা ইলাহা
ইল্লাললাহু
মুহাম্মাদুর রাসুল
উল্লাহ।' উপরের
কালেমা টি ৪০ জনকে
ম্যাসেজ করে পাঠান।
অথবা, 'ইয়া আল্লাহু',
'ইয়া রহমানু', 'ইয়া
রহিমু' আল্লাহর এই
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জনকে ম্যাসেজ করে
পাঠান। যদি পাঠান
তবে ৩ দিনের মধ্যে
নিশ্চিত কোন
সুসংবাদ পাবেন আর
যদি অবিশ্বাস করেন
তাহলে ৩ দিনের মধ্যে
কোন ক্ষতির সংবাদ
পাবেন.. ইত্যাদি !
ইত্যাদি ! এ জাতীয়
ম্যাসেজের সাথে
আমরা সবাই
পরিচিত। আগে যখন
মোবাইল ছিলো না,
তখন এসব কাগজে
ছাপিয়ে বিলি করতে
বলা হতো। মোবাইলের
ব্যবহার শুরু হওয়ার
পর থেকে ম্যাসেজ
করার কথা বলা হতো।
আর এখন এগুলো
ফেইসবুকে ইনবক্স
বলা হচ্ছে। আর
একজনের দেখাদেখি
একজন অন্যজনকে
ইনবক্সে ম্যাসেজ
পাঠিয়ে কথাগুলো
ছড়িয়ে দিচ্ছে। সবাই
কে অনুরোধ করছি,
আপনারা এ ধরনের
ম্যাসেজ পেলে
কখনোই অন্যকে
সেন্ড করবেন না।
আর সেন্ড করলেও
এটা লিখবেন না যে,
এত দিনের মধ্যে
সুখবর/দুঃখের পাবেন।
এগুলো হলো ঈহুদী-
নাসারাদের ষড়যন্ত্র।
ঈহুদী- নাসারারা এ
ধরনের কথা লিখে
মুসলিমদের মাঝে
ছড়িয়ে দেয়। এখন
কোন মুসলিম যদি
কালেমা বা আল্লাহর
পবিত্র নাম গুলো ৪০
জন কে পাঠালো
কিন্তু ৩ দিনের মধ্যে
সে যদি কোন সুসংবাদ
না পায় তবে কালেমা
বা আল্লাহর নামের
প্রতি তার আস্থা
বিনষ্ঠ হতে পারে। সে
ভাবতে পারে, হয়তো
আল্লাহর নাম বা
কালেমার সুসংবাদ
দেয়ার কোনক্ষমতা
নেই... (নাউজুবিল্লাহ)
এভাবে ঈহুদী-
নাসারারা ইসলামকে
ধংস করার জন্য এবং
মুসলিমদের ঈমানকে
দুর্বল করার জন্য
সর্বদা ফাঁদ পেতে
চলেছে, তাদের পাতা
ফাঁদে ধরা দিবেন না...
আল্লাহর নিকট হতে
সুসংবাদ পেতে চাইলে
আল্লাহর হুকুম ও
রসুল (সাঃ) এর
নির্দেশ মেনে চলুন।
ফরজ, ওয়াজিব,
সুন্নাহ সঠিকভাবে
পালন করুন। ইনশা
আল্লাহ, সু- সংবাদ
পাবেন... আল্লাহ
আমাদের সকলকে
ইসলাম মোতাবেক
চলার তৌফিক দান
করুক.. (আমিন)


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ঠিক

ier


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সব দোষ করে ইহুদি নাছারারা তুমি মিয়া ধোয়া তুলসি পাতা। মুসলমান বাইনচোদ গুলির এই হইল একখান দোষ। খুনের পর খুন কইরা যাইতাছে লেকিন ভাজা মাছটা উল্টায়া খাইতে পারে না। ওরা কইল আর তুই তোর ঘরে আগুন দিবি না কইলে দিবি না। দোষ তো তোর হইল ওগোরে টানস ক্যান। এই সব ইতরামি ছাইড়া এলা ভালা হইয়া যাও ধর্ম ছাইরা মানুষ হও।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

হহ পরে আসমুনি ভাই খুব তারাতারি দেখা হইব

আমি ব্লগার


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি


ধর্ম ধরে রেখেও মানুষ হওয়া যায়। আর ধর্ম নিয়ে আমি কোনো নাস্তিক কুত্তাদের সাথে তর্কে জড়াতে যাই না!

hhshovon

glqxz9283 sfy39587p07