Skip to content

ফরগিভিং এনড ফরগেটিং নেশন- সাকিবাল কেপটেন এনড হিসটরি অফ ফেলিউর রিপিটস

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ঘটনা ১:-অক্টোবর ২০১০ বাংলাদেশ নিউজজিলেনড খেলা- সাকিব খান বেট হাতে তেড়ে গেল সাইট স্ক্রিনের দিকে সেখানে তিনি একজন গ্রাউনডস কিপারলে মারার হুমকি দিলেন- সেখানে তিনি সময় নষ্ট করলেন এবং একটা সিন ক্রিয়েট করলেন যা বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য কোন ভাবেই একটি ভালো এডভারটাইসমেনট না- - ক্রিকেট ইনফোর ভাষ্যমতে-when there was movement near the sightscreen that the umpires could not stop. After a few minutes Shakib, Bangladesh captain at the time, ran towards the sightscreen, hurled abuse and threatened to hit the offender with his bat. He was warned by the match referee but because he had led Bangladesh to their first major series victory over higher-ranked New Zealand, the BCB ignored the incident despite it happening in front of a large audience.


ঘটনা ২:- ২০১১ দেশের মাটিতে ওয়ার্লড কাপ- ওয়েসট ইনডিসের সাথে খেলা এবং বাংলাদেশ আউট হলো ৫৮ রান হলো -বিশ্বকাপ সেখানেই শেষ- কেপটেন ছিলেন সাকিব- তিনি কি করলসে খেলা শেষে ডাগআউট থেকে সারা বাংলাদেশে তার মধ্যমা আংগুলি কিংবা ফাক সাইন দেখালেন- ক্রিকেট ইনফোর ভাষ্যমতে-After Bangladesh's World Cup match against West Indies, several people in the Mirpur grandstand complained Shakib had reacted too strongly when he was booed. The offending picture was spread over the internet and published in several newspapers.

ঘটনা ৩:- ২০১১ দেশের মাটিতে ওয়ার্লড কাপ- খেলার এবার সাউথ আফ্রিকার সাথে এবং এবার বাংলাদেশ আউট হলো ৭৮ রানে- বিশ্বকাপে নিজ দেশে বেইজ্জতি কোন দেশ একরম হয়নাই- সাকিন আল এবার কি করলেন তিনি- এবার প্রথম আলোতে কলাম লিখলেন- সেকানে তিনি নান্নু- লিপু -বাংলাদেশ ক্রিকেট যারা দশ টাকা ভাতায় গড়ে দিসেন তাদের কে অপমান করলেন- ক্রিকেট ইনফোর ভাষ্যমতে- days of that incident, Shakib blasted former national cricketers in his Prothom Alo column, retaliating to their criticism of Bangladesh's implosion against West Indies

ঘটনা ৪:- ২০১১ সাকিব এবং শফিউল ইসলাম ড্রেসিং রুমে বসে ছিলেন সেখাানে মাঠের কেমেরা একবারের বেশী উকি দিয়েছিলো তাতে সাকিব খান কেমেরার সামনে নিজের সোনার দিকে নির্দেশ করলেন-কেমেরা ড্রেসিং রুমের দিকে গিয়েছিল কারন সাকিবাল একটি টেরিবেল শট খেলে আউট হন এবং সাকিবালের রিএকশন এপোলজোটিক হবার বদলে সারা দেশকে তিনি তার সোনা চাটার নির্দেশ দিলেনক্রিকেট ইনফোর ভাষ্যমতে; সাকিবাল seemed to be getting angry because the camera had panned on him in the dressing room more than once. Shafiul Islam, the player sitting next to him, was laughing when Shakib suddenly gestured towards his crotch. The laughing continued, but by then the camera had refocused on the cricket. Shakib had played a poor shot to get out, and the immediate television attention was the trigger. এরপরে সাকিবাল খেলার মাজ সময়ে ড্রেসিং রুম থেকে বের হয়ে গেলারীর লোকজনের সাথে মারামারি করে যা কিনা এনটি করপশন এবং বিবিসি আচরনবিধির লংঘন-In June 2014, Shakib was allegedly involved in a brawl between him and a spectator, who was allegedly harassing Shakib's wife in the grand stand of Sher-e-Bangla National Cricket Stadium, during the first ODI against India

ঘটনা ৫:-হাতূড়াসিংহের সাথে সে ঘোষনা দেয় যদি তাকে ওয়েসট ইনডিস লীগে খেলার এন ও সি না দেয়া হয় তাহলে সে টেসট এবং ওয়ানডে থেকে রিটায়ার করবে- কোচকে গালি মন্দ করে ইমেইলে- এবং পুরো দলকে নতুন কোচের সাথে একটি অস্বস্তিকর পরিবেশ বানায়- এর ফলে সে ৬ মাসের শাস্তি খায়- যদিও পরে শাস্তি কমিয়ে সেটা তিন মাস করা হয়!! ২০১৫ সনের দিকে সে আবার এয়ারপোর্টে অফিসারের সাথে বিনা অনুমতিতে সিকিউরিটি এনক্লোসারে ঢুকার বেপারে ঝামেলা বাধায়-

উপরের প্রতিটি ঘটনা প্রমান করে সাকিব একজন স্বার্থপর এবং ইল টেমপারড ক্রিকেটার। সে নিজেকে দলের চেয়ে গুরত্বপুর্ন মনে করে এবং তার আচার আচরন গত ৬ বছরে কোন ভাবেই পালটায়নি- সাকিব বাংলাদেশ দলের কেপটেন হবার জন্য অনুপযুক্ত- সে নিজের জন্য খেলে এবং নিজের মতো খেলে এবং সে একি কাজ করবে দলে। একানে আরো মনে রাখতে হবে ২০১১ সনে মাশরাফির বিশ্বকাপ না খেলার জন্য সাকিব দায়ী কারন জেমি সিডনসের যে ক্লিকবাজী এবং বিকেসপি বাজি শুরু হয় তাতে সাকিবের সমর্থন ছিল-// এমনকি দলে একনো বিকেএসপি ফ্রেকশন অন্য সকলের সাথে সংঘাত করে- সাকিব নিজের কেপটেনসি রাকতে এসব দলবাজী আরো উসকে দেবে এবং এর রেসালট হবে ভয়াবহ- যা আমরা আগে দেকেছি০ ২য় সারীর জিমবাবুয়ে দলের কাছে সিরিজ হেরে- ক্রিকেট ইনফোর ভাষ্য মতে-When Bangladesh toured Zimbabwe in August 2011 they were expected to win the one-off Test, which was Zimbabwe's first in five years, and the five-match ODI series. As it transpired Bangladesh lost the ODI series 3–2 and the Test. Shakib and his vice-captain, Tamim Iqbal, were sacked with a BCB official citing unsatisfactory leadership//

সাকিব একটা ইনএফেকটিভ লিডার এর প্রমান সেই জিমবাবয়ে সিরিজ কিন্ত সে বাংলাদেশের লোক-এর ফরগিভিং এনড ফরগেটিং // এ ক্লিকবাজ সাকিব আবার কেপটেন হবে এবং দলের বারোটা বাজবে কিন্তু আমরা আমাদের হিরো পুজা চালিয়ে যাবো কারন আমরা ফরগিভিগং এনড ফরগেটিং নেশন আমরা আশা করি আমাদের হোগা যতো মারো ভালবাসা ততখানি বাড়বে!!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ক্যাটেগরি জীববিদ্যা হইলে ভালো হইতো

glqxz9283 sfy39587p07