Skip to content

কবিতা

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহঃ কেমন আছো আকাশের ঠিকানায়?


উৎসর্গঃ তসলিমা নাসরিন (কূলহারা কলঙ্কিনী)


“রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ” বাংলা সাহিত্যাকাশের এক উজ্জ্বল নক্ষত্রের নাম। যার জন্ম ১৯৫৬ সালের ১৬ই অক্টোবর। তাঁর বাবা ছিলেন পেশায় একজন ডাক্তার রুদ্রের জন্মের সময় তার কর্মস্থল ছিল বরিশাল। কবির জন্ম বরিশাল হলেও তাদের মূল বাড়ি বাগেরহাট জেলার মংলা উপজেলার মিঠেখালি গ্রামে। দ্রোহ ও প্রেমের কবির শৈশব কালটি কাটে মংলাতেই। এর পর চলে আসেন ঢাকায়। ১৯৭৩ সালে ঢাকা ওয়েস্ট হাইস্কুল থেকে তিনি এস.এস.সি এবং ১৯৭৫ সালে এইচ.এস.সি পাস করেন। এর পর তিনি ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং এখান থেকে বাংলায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এরূপ সেরূপ বিচিত্র রূপ -ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চিশতী

[৬১]

এরূপ সেরূপ বিচিত্র রূপ
-ফরিদ উদ্দিন আহম্মদ চিশতী ।

এরূপ সেরূপ বিচিত্র রূপ
কোন রূপে আছেন সাঁই আমার-।।

বিশ্বে রূপের ছড়াছড়ি
পাইনে আমি চিন্তা করি
কোন রূপটি স্বয়ং তাহার,
নানা মুনির নানা

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মেঘে লুকোনো মেঘ

ক দিন ধরেই বেশ ঘুমোট আকাশটা,
বৃষ্টি এলেই হয়তো ছিল ভাল,
বৃষ্টির আকাশটায় লুকোনো যায়-কান্নার কথা,
না দেখার ইন্দ্রাণীকে যায় বলা-না বলা।

বৃষ্টিতে বেমানান নেই কোন,
কান্না হাসি সবই যে যায় লুকোনো,
ভেঙ

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মেঘে লুকোনো মেঘ

ক দিন ধরেই বেশ ঘুমোট আকাশটা,
বৃষ্টি এলেই হয়তো ছিল ভাল,
বৃষ্টির আকাশটায় লুকোনো যায়-কান্নার কথা,
না দেখার ইন্দ্রাণীকে যায় বলা-না বলা।

বৃষ্টিতে বেমানান নেই কোন,
কান্না হাসি সবই যে যায় লুকোনো,
ভেঙ

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

উন্মাদ শহর

এ এক উন্মাদ শহর যেখানে স্বপ্ন মানে শুধুই স্বপ্ন নতুবা একরাশি
অন্ধকার।।
ভবিষ্যত এখানে অভিশপ্ত, যা নিজের
পরিচয় দিতে ঘৃণা বোধ কর

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নীতিনপুরের গল্প

নন্দ বাউল চলে গেল-
হয়তো তেমন একটা কিছু নয়,
চলছে চলার পৃথিবী-চলছে নিজের ভাষায়,
থেমে যায়নি কিছু-বদলায়নি কিছু।

ষ্টেশন ছাড়িয়ে পেছনের বস্তিটা,
সংসারের সাধারণ ছাড়ানো অনেক কটা মুখ,
রেল গাড়ী

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমি ও আমাদের দল


প্রচন্ড বাতাস যাদের কান্নায় নীরবতায়
ঢেউ তুলে আমি তাদের দলে।।
বৃষ্টির শত ফোঁটায় যাদের চোখের
জলগুলো মিশে যায় আমি তাদের দলে।।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বধু

শিশির কণার মতো বিন্দু বিন্দু ঘাম
খেলা করে অহরহ তোমার বদনে
আমার কিশোরী বধু, একটু দাঁড়াও
পূবের জানালাপথে ধানীরং শাড়ি পরে
খোলাচুলে এলোমেলো, দূরে দাঁড়িয়ে আমি
বাউল নয়নে দেখি তোমার ঠমক ।

সকালের সোন

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শেষ বিকেলের সমুদ্র

শেষমেষ দেখা হলো না,আমার,
দেখা হয়নি ইপ্সিতার সাথে।
হয়তো বা আমারই না চাওয়া,
মনের অজান্তে আমার,কাছে থেকে দুরে থাকা।

হয়তো আমি চাইনি,আমার পুরোনো গল্পের চোখ,
চাইনি পুরোনো চোখের ক্লান্ত সাজ,
দেখা

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

শরীর খোঁজার নীতিকথা

আলপনার ভালবাসা ছিল না-ঘর ছিল একটা,
সুর্য সকালে আলপনার গান ছিল না কোন,
ছিল সংসার ভঁরা গল্প,
শরীরের কথা ছিল না আলপনার রাতে,
ছিল আগামীর দিনটা শুধু।

আলপনা চায় নি যৌবন ছেড়ে যাওয়া দুপুর,
চা

Syndicate content
glqxz9283 sfy39587p07