Skip to content

বাউল-এর ব্লগ

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

নির্বাচন পরবর্তী তিনমাস এবং বিএনপির রাজনীতি

৯০ দিন একটি উল্লেখযোগ্য সময়, কালের বিচারে তা কোয়ার্টার বছর। বাংলাদেশের গত জাতীয় নির্বাচনের পর এরকম উল্লেখযোগ্য একটি কাল অতিবাহিত হয়ে গেছে। বলা হচ্ছিল, ৫ জানুয়ারীর নির্বাচন বিএনপি বর্জন করায় এই সংসদ তথা সরকারের গ্রহনযোগ্যতা দেশে-বিদেশে থাকবেনা। বিএনপি আশা করেছিলো যে, বহির্বিশ্বের মোড়লরা তাদের হয়ে সরকারের সংগে দর কষাকষি করে বিএনপির সঙ্গে আলোচনার প্রেক্ষিতে নতুন নির্বাচন দিতে সরকারকে বাধ্য করবে। এছাড়া নির্বাচনের পর পর এই সরকার কতদিন থাকবে, সে নিয়ে আলোচনা ছিলো।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মাহমুদুরের মিশন পসিবল



মিশন একমপ্লিশড! মিশনের শুরুটা রাজিব হত্যাকান্ড দিয়ে, নীল নকশা ছিলো চমৎকার এবং তার সফল বাস্তবায়ন ঘটেছে ২২ ফেব্রুয়ারীতে। মাহমুদুর ও আমারদেশ এই মিশনের সবচেয়ে বড় অংশগ্রহনকারী। শুরুটা আমরা সবাই বুঝেছি, শাহবাগের আন্দোলনকে নাস্তিকদের আন্দোলন হিসাবে ট্যাগ করে তারপরে জনমানুষের অংশগ্রহন ও গ্রহনযোগ্যতাকে কমিয়ে আনার প্রয়াসে এগুলি করা। হাজার হাজার জনতার মাঝ থেকে গোটাকয়েক নাস্তিককে ট্যাগ করে আন্দোলনকে ইসলামের বিরুদ্ধে আন্দোলন হিসাবে প্রচারনা চালানো। এবং আপাত সফল হয়েছে তাতে।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বিএনপির সিটি নির্বাচন বর্জন, সময়ের দাবী নয় বরং অবশ্যকর্তব্য বিষয়

বিএনপি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন ও চট্টগ্রামের সিটি নির্বাচন বর্জন করেছে। সকাল থেকে প্রথম আলো অনলাইন পোর্টাল তাদের সাইটে নির্বাচন নিয়ে সামান্যতম বিচ্যুতি দেখা গেলেও সেটা সাথে সাথে তুলে ধরছে। এমনকি মিরপুরের একটি কেন্দ্রে সাংবাদিকদের কেন্দ্রে ঢোকা নিয়ে বিতণ্ডাও তারা ছাপিয়েছে এবং বিএনপি কোন 'অভিযোগ' করলে সেটি তারা গুরুত্বের সঙ্গে নিউজ আকারে প্রকাশ করেছে।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ৬ এর স্থলে ৫ দশমিক ৬; চলেন চুতিয়ামী করি

প্রধানত রাজনৈতিক কর্মসূচীর নামে অরাজকতা চালানোয় দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ক্ষতি হয়েছে ১ শতাংশ। চলেন বেশী বেশী চুতিয়ামী করি। একটা তসবীহ কিংবা জপমালা হাতে নিয়ে ৫ জানুয়ারি, ৫ জানুয়ারী জপ করি। মনে রাখা প

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা লেখক অভিজিৎ রায় ও বন্যার উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাই



একুশের বইমেলার থেকে ফেরার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা লেখক অভিজিৎ রায় ও ব্লগার রাফিদা আহমেদ বন্যাকে। এর তীব্র নিন্দা ও হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানাচ্ছি। ভিন্নমত প্রকাশের কারনে লেখার বদলে অস্ত্রের ব্যবহার কোনভাবেই মেনে নেয়া যায়না। তাতে অস্ত্রধারীর যুক্তির অসারতা ও ব্যর্থতা প্রকাশ পায়। অভিজিৎ ও তার স্ত্রীর আশু সুস্থতা কামনা করছি। অভিজিৎদের কোপানো ব্যক্তি, ইসলামের জংগীবাদী সন্ত্রাসী ও ব্লগে প্রকাশ্যে কিংবা গোপনে পুলকিত মানুষগুলোর মধ্যে আসলে কোনো ফারাক নেই।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমারব্লগ কর্তৃপক্ষ সমীপেষু

নো মডারেশন ব্লগ হিসাবে যে আমারব্লগের যাত্রা, সেই আমারব্লগ তার নো মডারেশন চরিত্র হারিয়ে ফেলেছে কী-না সেটা প্রশ্ন সাপেক্ষ। যদি মডারেশন করা হয়, তাতে কিন্তু কোন সমস্যা নেই। নো মডারেশন এর লক্ষ্য নিয়ে এই ব্লগ প্ল্যাটফর্ম তৈরী হলেও, বাস্তবতার কারনে সেটিকে ধরে রাখা সম্ভব না-ও হতে পারে পারে, আর নো মডারশন নীতি ধরে না রাখলেই বা না রাখতে পারলেই সেটা 'পরাজয়' বা 'আপোষ' নয়। সে যা-ই হোক, আমারব্লগ যদি মডারেশনে গিয়েই থাকে, তাহলে তা প্রকাশিত হোক।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

গণতান্ত্রিক পেট্রোলবোমা

বাংলাদেশের পলিটিক্স এমনই সোজা যে আমার মতোন গাল-গল্প আর আড্ডাবাজ নাদান ব্লগারও সেটা নিয়ে 'বিশ্লেষনী' ব্লগ লেখার সাহস দেখাতে পারে। বাংলাদেশের রাজনীতি সোজা এই কারনে যে এখানে রাজনীতি করতে হলে রাজনৈতিক দলক

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

অবরোধ, ইনজেকশন ও একটি লাশবাহী গাড়ী

টানা অবরোধে মানুষ পোড়ানোর উৎসব চলছেই, একে একে ৩০ এর অধিক প্রান আর এই প্রানের সাথে মিশে থাকা স্বপ্নের মৃৃত্যু ঘটেছে। যে মানুষেরা দগ্ধ হয়েছেন তাদের বেশীরভাগই খেটে খাওয়া সাধারন মানুষ। তাই এদের সমবেদনা জানানোর জন্য কেউ নেই। বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আদালতে দন্ডিত কোকো হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন, হাজার হাজার মানুষ শোক বইতে স্বাক্ষর করছেন। তাদের শত্রু পক্ষ আওয়ামীলীগ শোক প্রকাশ করছে, শোক প্রকাশে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে গিয়েছেন, কুটনীতিকরা সার বেধে গিয়ে ম্যাডামকে শোক জানিয়ে আসছেন। গুলশান কার্যালয়ে শোক চলছে। ম্যডাম জিয়া, আপনার সন্তানের মৃত্যুতে আমার কোন শোক নেই, আমি শোক প্রকাশ করতে পারছিনা। হৃদরোগে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ মারা যায়, জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারার ঘটনা হাতেগোনা। আমি বরং সেইসব হাতেগোনা দগ্ধ হয়ে মারা যাওয়া মানুষদের জন্য শোক প্রকাশ করবো।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভুল রাজনীতি, খেসারত, সংলাপ

বর্তমানের অবরোধ এবং অবরোধের নামে মানুষ পুড়িয়ে মারার যে 'আন্দোলন' চলছে তা নিয়ে এই নাদানের তেমন কিছু বলার নেই। প্রতিদিনই দেশের টিভি চ্যানেলগুলিতে বড় বড় পন্ডিত মানুষেরা এ-নিয়ে বলছেন এবং কেউই কারো কথা শুনছেন না। দেশে অবরোধ চলছে, কেননা দেশে 'গণতন্ত্র নেই'। গণতন্ত্র হচ্ছে একদিন ভোট বুথে গিয়ে ভোট দিয়ে আসা, গণতন্ত্র মানে এই নয় যে আপনি আপনার নিজের গাড়িটি নিয়ে বাইরে বের হবেন, গণতন্ত্র মানে এই নয় যে সারা বছর পরিশ্রম করে ফসল ফলিয়ে সেই ফসল আপনি বাজারে পাঠাবেন, আপনি আপনার ব্যাবসা বানিজ্য সচল রাখবেন।

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

প্রথম আলোর বিষের বীজ, ইউ এর অবস্থান, র‍্যাব এর রিপোর্ট

বাংলাদেশের সবচে জনপ্রিয়, প্রচারিত এবং প্রভাবশালী পত্রিকা প্রথম আলোর সাম্প্রদায়িকতা ছড়ানোর উদাহরন হিসাবে নির্বাচনের পরে সিঁদুর পরা নারীদের ছবি প্রকাশ করাটা সবচে বেশী আলোচিত হয়েছিলো, ঐ সময়ে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার বহুল ঝুঁকি এবং নির্বাচন পূর্ববর্তী সহিংসতার মাত্রা ও ভয়াবহতার রেশ কাটতেনা কাটতেই প্রথম আলোর ঐ ছবি প্রকাশ কিসের উসকানি দিতে চেয়েছিলো সেটা নাদানেও বুঝবে।

Syndicate content
glqxz9283 sfy39587p07