Skip to content

মানবিক জিগগাসা!

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাদী বিবাদী কোনো একটি পক্ষের বয়ান শুনেই আদালত বিচার শুরু করেন না। উভপক্ষকে বলার সুযোগ দেন। এরপর আদালত নিজের সিদ্ধান্ত জানান।

কোনো একটি পক্ষের কথা শুনেই যদি কেউ চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছে যায়, তবে উগ্র মস্তিষ্ক ছাড়া আর কিছু নয়।

নাসিরনগরেরর জেলে রসরাজ, স্মার্ট ফোন কেন কিনেছিল, তার ব্যাখ্যা হয়ত সে নিজেই জানে না। তার ফোন ব্যবহার করে, ধর্মের অবমাননার গুঞ্জন ছড়িয়ে এত বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ লুটপাট কি করে সম্ভব হয়েছিল? এর উপর যদি রসরাজ জেলে না হয়ে, বার্মিজ রোহিঙ্গা জঙ্গীদের মতো বাংলাদেশ বিরোধী দলের নেতা বা সদস্য হত, পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে পৌঁছাত?

glqxz9283 sfy39587p07