Skip to content

ভিনদেশকে সমর্থনের নামে সার্বভৌমত্বের অপমান: প্রতিরোধ এখনই

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আমরা চেয়েছিলাম এই বাংলার আকাশে চাঁদতারা নয়; বরং লাল-সবুজের একটি পতাকা মাথা উঁচু করে উড়বে। এই পতাকাটির জন্য আমরা বছরের পর বছর ধরে সংগ্রাম করেছি। অবশেষে ৩০ লাখ শহীদের রক্ত আর ৪ লাখ মা-বোনের সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের বিনিময়ে লাল সবুজের এই পতাকাটি আমাদের হয়েছে। পৃথিবীর ইতিহাসে একটি পতাকার জন্য এমন চরম মূল্য দেয়ার নজির দ্বিতীয়টি নেই।

আমাদের মুক্তির যুদ্ধে আমরা জয়ী হয়েছি। কিন্তু আমাদের পতাকা, আমাদের জাতীয় পরিচয়, আমাদের অস্তিত্বের বিপরীতে অবস্থান নেয়া একাত্তরের পরাজিত শক্তি বসে নেই, তারা এখনো সক্রিয়। এই ২০১০ এও মুক্তিযোদ্ধার নামে ঢাকার রাস্তার নামকরণ করা হলে পাকিস্তান তার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানায় (১)। এই ২০১৩তেও বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসি দিলে সেটার বিরুদ্ধে নিন্দাপ্রস্তাব ওঠে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে(২)! তাদের এদেশীয় এজেন্টরা এখনো কুষ্টিয়া-পাবনায় শহীদ মিনার ভাঙ্গে, তারা এখনো চাঁদপুরে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকায় আগুন দেয়। চাঁদতারা মার্কা যে পতাকাটিকে আমরা ৩০ লাখ জীবনের বিনিময়ে প্রতিস্থাপন করেছি লাল-সবুজের পরিচয় দিয়ে, এই স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে বসে এখনো তারা সেই পরাজিত পাকিস্তানের পতাকা উঁচিয়ে উল্লাস প্রকাশের কোনো সুযোগকেই হাতছাড়া করে না।

চাইলেই কি বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা পোঁড়ানো যায়? চাইলেই কি ভিনদেশের, বিশেষ করে যে পতাকার বিরুদ্ধে আমাদের রক্ত ঝরেছে, সে পতাকা নিয়ে উল্লাস করা যায়? বাংলাদেশের পতাকা আইন (৩) অনুসারে এটা করা অপরাধ। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা কিভাবে, কোন কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে, তা স্পষ্টভাবে বলা আছে পতাকা আইনে। এই ক্ষেত্রগুলো ছাড়া পতাকা যথেচ্ছভাবে ব্যবহার করা যাবে না। আর অন্যান্য সব দেশের মতোই বাংলাদেশের মাটিতেও খুবই সুনির্দিষ্ট কিছু ক্ষেত্র ছাড়া বিদেশের পতাকা ব্যবহার করা যাবে না।

বাংলাদেশের মাটিতে বিদেশের পতাকা উড়ানোর এই ক্ষেত্রগুলো সেসব দেশের দূতাবাস ভবন, তাদের রাষ্ট্রপ্রধান ও মন্ত্রীদের গাড়িতে বাংলাদেশে সফরকালে ব্যবহারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। এর বাইরে কোথাও বিদেশি জাতীয় পতাকা ব্যবহার করতে হলে বাংলাদেশ সরকারের বিশেষ অনুমতির দরকার হবে। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা আইন অনুসারে,

"Except as stated in the above Rules, the flag of a Foreign State shall not be flown on any car or building in Bangladesh without the specific permission of the Government of the People’s Republic of Bangladesh." (People's Republic of Bangladesh Flag Rules, article 9.IV)


সুতরাং কারো ইচ্ছা হলেই বিদেশি পতাকা গায়ে জড়িয়ে বাংলাদেশের স্টেডিয়ামে, বাংলাদেশের রাজপথে 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' কিংবা 'জয় হিন্দ' শ্লোগান দিবে, এটা আইনত অপরাধ।

বাংলাদেশের মাটিতে আমরা ৩০ লাখ বাঙালির খুনীদের পতাকা হাতে 'নামে বাংলাদেশের নাগরিক, কামে মনেপ্রাণে পাকিস্তানী' এজেন্টদের উল্লাস দেখতে চাই না। আমরা ফেলানি হত্যার ন্যায়বিচার পাইনি। ফেলানির রক্তে ভেজা বাংলাদেশের মাটিতে আমরা ভারতের পতাকা হাতে ভারতপ্রেমীর উল্লাস দেখতে চাই না।

আমরা এমন দেশে বাস করি যেখানে চাঁদে সাইদীকে দেখার বিভ্রমে ভোগে শত শত মানুষ, জামাত ইসলাম আর ইসলামকে গুলিয়ে প্রোপাগান্ডা চলে হরদম। খেলায় রাজনীতি মেশাবেন না তত্ত্বকে প্রচার প্রসারে খেলার পাতার দুই তৃতীয়াংশ পাকি বন্দনায় মত্ত হয় সর্বাধিক প্রচারিত দৈনিক প্রথম আলো। খুব সূক্ষ্মভাবে রিকনসিলিয়েশন থিওরির আড়ালে পাকিপ্রোপাগান্ডা চালায়, ভাষা আন্দোলন নিয়ে দুনিয়া কাঁপানো ত্রিশ মিনিটের কর্পোরেট ভণ্ডামি করে, উর্দু শিরোনামে সংবাদ ছাপে, "সব ম্যাচ কা বাপ!(৪)" স্বাধীনতার মাসে, বাঙালি জাতির গণহত্যার মাসে মিরপুর স্টেডিয়ামে পাকি পতাকা হাতে বাংলাদেশের শত্রুর উল্লাসের বিষবাস্প ভেসে যায় মিরপুর বধ্যভূমির বাতাসে।

আমরা আশাকরি, বাংলাদেশের আলো-হাওয়ায় বড়ো হওয়া এই কুলাঙ্গারদের অনেকেই একদিন ভুল বুঝতে পারবে, তারাও পাকিস্তানী কিংবা ভারতীয় না হয়ে বাঙালি ও বাংলাদেশি হওয়াকেই গৌরবের মনে করবে। কিন্তু কবে তাদের সেই চেতনার জন্ম হবে, সেজন্য অপেক্ষা করে করে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা ও দেশের সার্বভৌমত্বকে পদদলিত হতে দেয়ার কোনো যুক্তি নেই। বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে কোনো ছাড় নেই। দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকা এ ছাগুপনা প্রতিরোধের এখনি সময়।

এক্ষেত্রে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য বাংলা কমিউনিটি ব্লগ এলায়েন্সের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। প্রাথমিক পর্যায়ে সরকারকে অবশ্যই অন্তত নিচের যৌক্তিক কাজগুলো করতে হবে:

১। জাতীয় পতাকা আইনের যথাযথ প্রয়োগ করতে হবে এবং এ আইন লঙ্ঘনকারীদেরকে আইন অনুযায়ী শাস্তি দিতে হবে।

২। বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে বাংলাদেশের মাটিতে অন্যদেশের পতাকা নিয়ে উল্লাস করাকে পতাকা আইনের পাশাপাশি বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ববিরোধী কার্যকলাপ হিসেবে চিহ্নিত করে স্পষ্ট আইন প্রণয়ন ও তার বাস্তবায়ন করতে হবে।

৩। পতাকার এই উন্মাদনা প্রধানত দেখা যায় বাংলাদেশের ক্রিকেট স্টেডিয়ামগুলোতে। বর্তমানে আইসিসির নির্দেশ অনুযায়ী দর্শক সাথে করে অস্ত্র ও ঝুঁকিপূর্ণ দ্রব্যের পাশাপাশি ব্যাঙ্গাত্মক পোস্টার বা ব্যানার নিতে পারে না। বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ভিনদেশের জাতীয় পতাকাকেও এই তালিকায় যোগ করা হোক।

তথ্যসূত্র:

১) http://www.samakal.net/print_edition/details.php?news=14&view=archiev&y=2010&m=05&d=15&action=main&menu_type=&option=single&news_id=65608&pub_no=336&t...

২) http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article715751.bdnews

৩) http://lib.pmo.gov.bd/legalms/pdf/national-flag-rules.pdf

৪) http://www.prothom-alo.com/sports/article/159109


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

১। জাতীয় পতাকা আইনের যথাযথ প্রয়োগ করতে হবে এবং এ আইন লঙ্ঘনকারীদেরকে আইন অনুযায়ী শাস্তি দিতে হবে।

২। বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে বাংলাদেশের মাটিতে অন্যদেশের পতাকা নিয়ে উল্লাস করাকে পতাকা আইনের পাশাপাশি বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ববিরোধী কার্যকলাপ হিসেবে চিহ্নিত করে স্পষ্ট আইন প্রণয়ন ও তার বাস্তবায়ন করতে হবে।

৩। পতাকার এই উন্মাদনা প্রধানত দেখা যায় বাংলাদেশের ক্রিকেট স্টেডিয়ামগুলোতে। বর্তমানে আইসিসির নির্দেশ অনুযায়ী দর্শক সাথে করে অস্ত্র ও ঝুঁকিপূর্ণ দ্রব্যের পাশাপাশি ব্যাঙ্গাত্মক পোস্টার বা ব্যানার নিতে পারে না। বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ভিনদেশের জাতীয় পতাকাকেও এই তালিকায় যোগ করা হোক।


শতবার সাথে আছি ।

___________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

একজন বাঙালির জন্য পাকিস্তানকে সমর্থন করার মধ্যে কোনো যুক্তি থাকতে পারে না।
তবে ছাগুরা যেকোনো অজুহাতে পাকিস্তান জিন্দাবাদ শ্লোগান বা পাকিস্তানের পতাকা উড়ানোর চান্স নিবে।

জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি এ বিষয়ক আইনের বাস্তবায়ন ও আরো স্পষ্ট আইন করে তার কড়াকড়ি প্রয়োগের আবেদন জানাই।

--------------------------------------
সুশীলরা গণমানুষের শত্রু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

কিন্তু ব্রাজিল আর্জেন্টিনা ইটালি জার্মানীর পতাকার কি হবে? এই তো জুন মাস থেকে বিশ্বকাপ। সব বাড়িতে বাড়িতে পতাকা উড়বে।

.
.
(অন্ধকারে ঘামে ভেজা আতঙ্কে কুঁকড়ে বলতে চাইনা, আমি বিশ্বাস করি
শুধু জানি আলো চাই, বিশুদ্ধ জ্ঞানের আলো
অজ্ঞানতার আঁধার ফুঁড়ে আলো ফোটাবো বলে, বিশ্বাসের টুঁটি চেপে ধরি )


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পতাকা আইন অনুসারে আর্জেন্টিনা, জার্মানি, ইটালির পতাকাও বাংলাদেশের বাড়িতে বাড়িতে উড়ানো যাবে না। লোকজন আইনটা না জানার কারণেই এটা করে। আইনটা সম্পর্কে জানলে এবং তার প্রয়োগ শুরু হলে অধিকাংশ লোকজনই এটা করবে না।

জেনারেল কেসের বাইরে পাকিস্তান একটা স্পেশাল কেস। কারণ, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে আমরা স্বাধীন হয়েছি। সেই স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি অজুহাত পেলেই আবার এদেশে পাকি পতাকা উড়ানোর অপচেষ্টা করে। এখানে মূল উদ্দেশ্য এন্টি-বাংলাদেশ-প্রো-পাকিস্তান সেন্টিমেন্ট। আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল কেসে শুধুই খেলার সমর্থন।

--------------------------------------
সুশীলরা গণমানুষের শত্রু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পাকিস্তান সমর্থন তো আশির দশক থেকে বিটি বেগুনের মত জেনেটিক চাষ হয়েছে। স্পেশাল কেস হওয়াটাই তো স্বাভাবিক

.
.
(অন্ধকারে ঘামে ভেজা আতঙ্কে কুঁকড়ে বলতে চাইনা, আমি বিশ্বাস করি
শুধু জানি আলো চাই, বিশুদ্ধ জ্ঞানের আলো
অজ্ঞানতার আঁধার ফুঁড়ে আলো ফোটাবো বলে, বিশ্বাসের টুঁটি চেপে ধরি )


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ভাই জোয়া,
বিষয়টা কিনতু ভালো ভাবে খেয়াল করুন, আপনি যেটা আনছেন সেটা সাময়িক খেলার ভিতরেই খেলা হিসাবেই থাকে বাট পাকি পতাকা নিয়ে যারা হাতা মারে তা কিনতু পলিটিকাল আইডোলোজী থেকে করে , ফেসবুকে. সালাগো ভালো করে দেখুন নড়ে চড়ে একই কথা কায়েদে আজমের --------- চোষা

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ইদানিং ফেসবুকে পাকিডান্ডু চোষা ভয়াবহরকম বেড়ে গেছে। যাস্ট এক/দেড় বছর আগেও এই রকম মহামারী ছিলো না।

.
.
(অন্ধকারে ঘামে ভেজা আতঙ্কে কুঁকড়ে বলতে চাইনা, আমি বিশ্বাস করি
শুধু জানি আলো চাই, বিশুদ্ধ জ্ঞানের আলো
অজ্ঞানতার আঁধার ফুঁড়ে আলো ফোটাবো বলে, বিশ্বাসের টুঁটি চেপে ধরি )


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আইন যেইটা আছে সেইটারই প্রয়োগ নাই ! আর ইমরান ভাইয়ের প্রশ্নের উত্তরটা কি হবে?

....................................
....................................
পৃথিবীতে প্রেমহীন কোন মানুষ নেই,
যা আছে তা হল প্রেমিক কিংবা প্রেমিকা হীন !!


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

প্রয়োগ নাই বলেই প্রয়োগের জন্য চেষ্টা করতে হবে, লোকজনকে আইনটা জানাতে হবে।

--------------------------------------
সুশীলরা গণমানুষের শত্রু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

লোকজন তো ঈভ টিজিং রেপ মার্ডারের নিয়া আইন ও তার শাস্তি সম্পর্কে জানে, ঈভটিজিং বা রেপ তো কমে নাই।

পতাকা নিয়া আইন ফাইন কেউই মানবো না, স্টেডিয়ামে দেশপ্রেমিক জনগনরে ছাইড়া দেওয়া হউক, পাকি বা ভারতের পতাকাওয়ালা বাংলাদেশী কাউরে খেলার মাঠে দেখলেই হাটুরে মাইর দেওয়ার একটা রেওয়াজ চালু করা উচিত। পতাকা লওয়া বন্ধ হইয়া যাবে

------------------------------------------------------------------------------------
হিজ নেম ইজ - পোলা, দেশী পোলা ;
ম্যান উইথ এ ডাবল-ও লাইসেন্স ; টানে সবাইকে, বাঁধনে জড়ায় না


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

লোকজন তো ঈভ টিজিং রেপ মার্ডারের নিয়া আইন ও তার শাস্তি সম্পর্কে জানে, ঈভটিজিং বা রেপ তো কমে নাই।
এটা আপনার ধারণামাত্র। আইন আর শাস্তি না থাকলে রেইপ বা ইভটিজিং একইরকম থাকতোনা।

পতাকা নিয়া আইন ফাইন কেউই মানবো না,
আইন আছে, এটাই অধিকাংশ লোকজন জানে না। আইনের প্রয়োগ শুরু হলে পতাকার অপব্যবহার অনেক কমবে। আইনের কাজ গণপিটুনি দিয়া হয় না।

--------------------------------------
সুশীলরা গণমানুষের শত্রু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

লাভ নাই, পতাকার আইন করলেও ছাগুরা মানবো না, তয় হাটুরে মাইরের রেওয়াজ থাকলে ভয়ে পতাকাই বাইর করবো না।

------------------------------------------------------------------------------------
হিজ নেম ইজ - পোলা, দেশী পোলা ;
ম্যান উইথ এ ডাবল-ও লাইসেন্স ; টানে সবাইকে, বাঁধনে জড়ায় না


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

দেশের মাটিতে ভিনদেশী পতাকা না না না... আইনের যথাযথ প্রয়োগ চাই।

-------------------------------------------------------
যে জামাত-শিবির করে, সে একটা জারজ ।
গালি দিলাম, আরো দিমু, সমুস্যা ?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এই আইন এবার ব্রাজিল আর্জেনটিনা দিয়ে শুরু হোক (কয়জন ব্রাজিলিয়ান-আর্জেনটিনিয়ান বাংলাদেশের নাম জানে? আমরা ফকিরনিরা ওদের পতাকা নিয়ে লাফাই!)।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

আইন করে সমাধান হবে বলে মনে হয় না, জেনেটিক্যালী বিনাষ করা ছাড়া উপায় নাই? কোন দিন মাঠে কাউকে পাকি পতাকা বা আলপনা দেখা গেলে সাথে সাথে গন পিটুনি চালু করার জন্য বিশেষ টিম গঠন করার দাবী জানাছি।

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@ মোক্তারনামা,

জেনেটিক্যালী বিনাষ করা ছাড়া উপায় নাই? কোন দিন মাঠে কাউকে পাকি পতাকা বা আলপনা দেখা গেলে সাথে সাথে গন পিটুনি চালু করার জন্য বিশেষ টিম গঠন করার দাবী জানাছি।


জেনেটিক্যালী বিনাষ (বিনাশ) কীভাবে করা যায়? গন পিটুনি চালু করার জন্য বিশেষ টিম সরকারের পক্ষ থেকে হবে, না সরকারের পারমিশন নিয়ে হবে? আর গণপিটুনির সীমা কতটুকু হবে? হসপিট্যাল, না মৃত্যু?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

যেমন ককুর তেমন মগুর লাগবে ভাই, তাদের সংখ্যা ৫% এর কম এরা কুরানের ভাষায় বোবা/বধির হয়ে আছে আঘাত ছাড়া উপায় নাই! এরা পাকি জারজ ওরফে পারজ নামে এখন পরিচিত! বিনাষ বলতে আপনি যত টুকও বুঝেন ততটুকও দিলেই আপাতত চলবে।

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বিনাষ (বিনাশ)



ধন্যবাদ মালিক ভাই বাংলা বানান নিয়ে দুটো কথা বলার জায়গা করে দেওয়ার জন্য। ভাষার বয়স কোটি বছর ,ব্যাকরণের বয়স ৫০০ বছরেরও কম। এক্সাম ছাড়া মুলত আমি হায়ারোগ্লিফিকস এর নীতিকে অনুসরণ করি মাএ, বিনাষ কেই বেছে নিলাম মনের ভাবে জোর দেওয়ার জন্য, মানুষ,কষ,ঘষ,শেষ,বিশেষ এই সব আরকি, যাই হোক ভালো থাকবেন যা বুঝাতে চেয়েছিলাম সেই নিপাত করা আরকি এইটা ই আমার হায়ারোগ্লিফিকস।

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জেনেটিক্যালী বিনাষ (বিনাশ) কীভাবে করা যায়? গন পিটুনি চালু করার জন্য বিশেষ টিম সরকারের পক্ষ থেকে হবে, না সরকারের পারমিশন নিয়ে হবে? আর গণপিটুনির সীমা কতটুকু হবে? হসপিট্যাল, না মৃত্যু?


আকাশ মালিক আপনাকে ধন্যবাদ এই সুন্দর মন্তব্যের জন্য। বিনাশ করতে চাওয়া , গণপিটুনি দিতে চাওয়া সভ্যতা ভব্যতার ক্যাটাগরিতে পড়েনা।

২০০৬ সালে আমেরিকার সিনেটে আমেরিকান ফ্লাগ পোড়ানো নিষিদ্ধ করার আইনটি ১ ভোটের জন্য পাশ হয় নি। আইনটির বিরোধীতা করে দেয়া ২য় বিশ্বযুদ্ধে আমেরিকার জন্য যুদ্ধ করতে যেয়ে এক হাত হারানো সিনেটরের বক্তব্য থেকে শেখার অনেক কিছু আছে-

Flag burning "is obscene, painful and unpatriotic," Sen. Daniel K. Inouye (D-Hawaii), who lost an arm in World War II, said in a floor speech yesterday. "But I believe Americans gave their lives in the many wars to make certain that all Americans have a right to express themselves -- even those who harbor hateful thoughts." প্রত্যেক আমেরিকানের নিজেকে প্রকাশের অধিকার আছে , এমনকি তাদেরও যারা ঘৃণ্য চিন্তা ধারন করে।

প্রতিবাদের ভাষা নিচের ভিডিওর মতো হওয়া উচিৎ।



See video


-------------------------------------------------------------------------------------------------------
৫৪:১৭ আমি কোরআনকে সহজ করে দিয়েছি বোঝার জন্যে। অতএব, কোন চিন্তাশীল আছে কি?


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সেটাই ফারুক ভাই, খাঞ্চোতের দল যখন পুটুতে পাকি পতাকা এঁকে "ফাক মি আফ্রিদী" প্ল্যাকার্ড ধরবে, আমরা তখন তাদের সামনে গিয়ে ইতিহাস বর্ণনা করবো, অথবা পিনাকি ভট্টের মত বললেও হয়, "গুড সেন্স গুড সেন্স"। নাকি বলেন? স্যরি ভাই আমি বরং শঠে শ্যাঠ্যাং নীতিতেই বিশ্বাসী

.
.
(অন্ধকারে ঘামে ভেজা আতঙ্কে কুঁকড়ে বলতে চাইনা, আমি বিশ্বাস করি
শুধু জানি আলো চাই, বিশুদ্ধ জ্ঞানের আলো
অজ্ঞানতার আঁধার ফুঁড়ে আলো ফোটাবো বলে, বিশ্বাসের টুঁটি চেপে ধরি )


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

মোক্তার ভাই, গালের পতাকা তো দেখা যায়, আমরা কি প্যান্ট খুলে দেখেছি যে পুটুতে পতাকা আঁকা থাকে না?

.
.
(অন্ধকারে ঘামে ভেজা আতঙ্কে কুঁকড়ে বলতে চাইনা, আমি বিশ্বাস করি
শুধু জানি আলো চাই, বিশুদ্ধ জ্ঞানের আলো
অজ্ঞানতার আঁধার ফুঁড়ে আলো ফোটাবো বলে, বিশ্বাসের টুঁটি চেপে ধরি )


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ফারুখ ভাই সালাম নিবেন,
সব সময় আপনার জবাবের ভিতর সমাধান খুজে এবার সমাধানতো দুরের কথা আপনার কথা ৫% পারজদের উৎসাহ যোগাবে বটে, ইট ইজ নট জাসট ফ্লাগ ইট ইজ ইজ এ্যা সলিড পোলিটিকাল আইডোলোজি।

"When you play with gentlemen,play
like a gentleman.But when you play
with bastards,make sure that you
play like bigger bastard. Otherwise
you will lose."Bangabandhu-Sheikh Mujib.

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

." প্রত্যেক আমেরিকানের নিজেকে প্রকাশের অধিকার আছে , এমনকি তাদেরও যারা ঘৃণ্য চিন্তা ধারন করে।"


মিথ্যা কথা, গুয়ানতা নামো বেতে জামাই আদরে যাদের রেখে দিয়েছে এরা কি মানুষ না ? রাখছে কে ? কিউবা না আমেরিকা? স্টিং অপারেশনের কারসাজিতে বাংলাদেশী এক চুদির ভাইকে জেলে ভরে দিল আপনার আমেরিকা ,হায় আমার উদার ঘু খাওয়া আমেরিকা!

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

খুবই আবেগী লেখা। আবেগটাকে প্রতি পূর্ণ সমর্থন করি, তবে কিছু প্রশ্ন আছে। অন্য কেউ লিখলে হয়তো করতাম না, যেহেতু আমারব্লগ তথ্যকেন্দ্র থেকে লেখা হয়েছে, এর গুরুত্ব ও প্রভাব অনেক বেশী। আইনে লেখা-

"Except as stated in the above Rules, the flag of a
Foreign State shall not be flown on any car or building in Bangladesh without the specific permission of the Government of the People’s Republic of Bangladesh."


এর বাংলা তরজমায় লিখেছেন-

সুতরাং কারো ইচ্ছা হলেই বিদেশি পতাকা গায়ে জড়িয়ে বাংলাদেশের স্টেডিয়ামে, বাংলাদেশের রাজপথে 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' কিংবা 'জয় হিন্দ' শ্লোগান দিবে, এটা আইনত অপরাধ


আমারব্লগ তথ্যকেন্দ্র কি নিশ্চিত যে, এটা আইনত অপরাধ? নিজের আবেগে আইন বানিয়ে দিলে রাস্তা-ঘাটে কারো হাটু ভেঙ্গে দেয়া, কারো গর্দান মটকায়ে দেয়া, কারো পেটে চুরি ঢুকিয়ে দেয়া আইনসিদ্ধ হয়ে যাবে। দেশপ্রেম বলেন, ধর্মপ্রেম বলেন, আসলে কোনো প্রেমই জোর করে চাপ প্রয়োগ করে হাটু ভেঙ্গে গর্দান ভেঙ্গে অর্জন করা বা আদায় করা যায়না। এবার একবার নিজের দিকে তাকান, নিজেকে প্রশ্ন করুন, এখানে আপনার আমার কোন ভুল বা দায়বদ্ধতা আছে কি না। যারা পাকিস্তানের পতাকা নিয়ে লাফালাফি করে গালে উল্কি আঁকে, এরা সকলেই কি জামাত, রাজাকার, যুদ্ধাপরাধীদের সন্তান? আমি জানি সত্যটা মেনে নেয়া বড়ই কষ্টকর। বিয়াল্লিশ বছর এই পতাকাকে, জাতীয় সঙ্গীতকে অস্বীকার করে আসছে বাংলাদেশের হাজার হাজার কওমী মাদ্রাসা, আমরা তখন কোথায় ছিলাম? ছোট্ট ছোট্ট শিশু কিশোরদের যখন মুক্তিযোদ্ধের বিকৃত ইতিহাস শেখানো হয়, তাদেরকে স্বদেশের কবি সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবীদের উপহাস ব্যঙ্গ করতে শেখানো হয় আমাদের ভূমিকা তখন কী ছিল? আমার দেশের পাঠশালার ছাত্রদেরকে যখন ধর্মের ট্যাবলেটে বিদেশী অপসংস্কৃতি গেলানো হয়, আমরা তখন নীরব থেকে বিয়াল্লিশটি বছর যাবত পরোক্ষ এমনকি অনেক সময় প্রত্যক্ষভাবে ওদেরকে সমর্থন দিয়েছি। যে মগজ থেকে এই হীনমণ্যতা এই বিকৃত সংস্কৃতি, নষ্ট মানসিকতার সৃষ্টি, সন্ধান করুন সেই জায়গাটা কোথায়? আঘাত করুন সেখানে। অস্ত্রের প্রয়োজন নেই, প্রয়োজন সাংস্কৃতিক বিপ্লব।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

এটাকে কালেকশন বলা যেতে পারে, মুল লেখাটা এখানে-http://nirmanblog.com/admin/8908

attorney


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ক্যামোথেরাপি দিয়া চেতনা উদ্ধারের ব্যর্থ প্রয়াস Stare বাংলাদেশ বোধহয় দুনিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশী আইন, বিধিবিধানের দেশ, যার কোন প্রয়োগ, মানামানির তাগিদ নাই, খবরও কেউ রাখে না। Ghost


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

পাকিস্তানকে সমর্থনে বাতিল ছাত্রত্ব!



------------------------------------------------------
সব মানুষেরই কিছু না কিছু অক্ষমতা থাকে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য ভিনদেশের জাতীয় পতাকাকেও এই তালিকায় যোগ করা হোক।

১০০ ভাগ খাটি প্রস্তাব।

______________________________________
'বিপ্লব স্পন্দিত বুকে মনে হয় আমিই মুজিব'


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

খাঁটি প্রস্তাব। সহমত জ্ঞ্যাপন।

Shahadat Noman


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

সেই কোন কালে চিটাগাং এ ইকবাল কাসেমের হাত ভাইংগা দিছিলো আমার বড় ভাই আর তার বনধুরা,আর এই ২০১৪ সালে এই কাম করতে গেলে উলটা মাইর খাইবো,দেশ ভইরা গেছে পাকি বিরযে কিছুই করার নাই মনে লয়?

__________________
জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

ইণডিআণ বিরজো ও কম না

Always on behalf of truth.


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু

সানী পলক


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

------------------------------------------------------
সব মানুষেরই কিছু না কিছু অক্ষমতা থাকে


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

@ মানকচু,

খুব সুন্দর। আমার বিশ্বাস এটাই উপযুক্ত পন্থা, নতুন প্রজন্মের কাছে মেসেইজ পৌছানোর। লজ্জা শরমে তাদের মাথা নত হবে, যারা পূর্বে ভুল করেছে। মেসেইজটা ছড়িয়ে দেয়া হউক সর্বত্র।


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

HUH

Always on behalf of truth.


ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

বাংলাদেশের নাগরিকদের স্টেডিয়ামে প্রবেশের সময় বাংলাদেশের ছাড়া অন্য দেশের পতাকা নিয়া ঢুকতে দেয়া উচিত না. আইডি কার্ডের সাথে মিলাইয়া নাগরিকদের তাদের জাতীয় পতাকা নিয়া ঢুকতে দেয়া উচিত।

--------------------------------------------------------

আয়না বসায়ছি মোর কলবের ভিতর।

glqxz9283 sfy39587p07