Skip to content

নির্গমন

ব্লগারের প্রোফাইল ছবি

খুব করে দেখে নিও রাত, চলে যাব।
ভেবে ভেবে কবে এক রাত আর এক দিন
খুব চলে যাবে। তবু কিছু স্মৃতিমালা
থেকে যাবে। একদিন সহসাই দেখ
জাগবে সকাল রাতের শীতল বুকে
মাথা রেখে, দু'হাতে জড়ায়ে রবে
একমুঠো সুখ-
চোখের গভীরে তাই বেঁধে রেখ।
শিশিরের ছায়া ঝলসানো দেহে মেশা ঘাসে,
ঘাসফুলে, সুরভিত রাত্রিতে ও ভোরে
সূর্যালোক দেহে চোষে চোষে
ভাল থেকো, বেশ ভাল থেক।

কেউ আজ সহসা পিঙ্গল রাতের বেশে
দিবে না ত ডুব আর কভু।
সহস্র রজনী আছ তবু প্রতীক্ষায়
বিনিদ্র নয়ানে। বলছ গোপনে আজো
চলে যাব। চলে যাব। থাকব কত আর?
কত আর করে যাব খোঁজ?
বারবার পেয়ে হারাচ্ছি যে তারে
আঙুলের ফাঁকগলা জলের মতন!

রোজ একা চেয়ে রই ওই রাতজাগা
সারসের অভিমুখে। সুপারির শুষ্ক
পীঠে মুছে যাই ঘাম,
শুকনো পাতার বাদ্য শোনে শোনে
ভরে ওঠে কী যেন যা শূন্য ছিল এতকাল!
বাদুড়ের ভেজা চঞ্চুপুট চাটে শুকনো সুপারি
চোরা নদী বয়ে যায় স্রোতের গভীরে
কোন সে জলায়, অথবা সংকীর্ণ তীর্থে কোন
নিখাদ মায়ায়, অমৃত তরল জুড়ে জাগে
ফেনিল দরিয়া এক
জানেনা যে কোন কূলে তার মাছ দেবে ঘাই।

ধীরে তার চোখে ভেসে যায় কত কত
মমতাজ মহল-প্রাসাদ!
নিভে যায়, জ্বলে ওঠে। আর ফের
ওয়াদা ভুলে ভেসে যায় দাঁড়কাক, টিয়ে কত
মৃত ভাগাড়ের বুকে।
একখানি জারুলের দেয়ালেতে একা
গ্রামান্তরে যায় ছুটে খুব
মাঠে মাঠে তার ধরে কী সুন্দর
ছড়ায় কেমন আভা! আকাশী বনের দিকে
ঠিক যেখানে রয়েছে পানের বরজ
উঁচু উঁচু কত টিলা!

glqxz9283 sfy39587p07